শুক্রবার, ১২ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২৮শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

এডভোকেট আনিসুল হক আইন মন্ত্রী হওয়ায় কসবায় আনন্দ উল্লাস

newskhasbabrahmanbar14399999999999সীমাহীন আনন্দে ভাসছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায়। মন্ত্রী হয়েছেন অ্যাডভোকেট আনিসুল হক। কসবার এই প্রথম আইন মন্ত্রী হইয়াছেন দেশের খ্যাতিমান আইনজীবি আনিসুল হক মন্ত্রী হবেন-এই খবর ছিল অনেক আগে থেকেই ছিল সবার মুখে মুখে।
এই আইনজীবি  মন্ত্রী হবেন-এমন স্বপ্ন দেখেছিলেন আগে থেকেই তার নির্বাচনী এলাকার মানুষজন। বাস্তবে আজ সেই স্বপ্ন পুরন হওয়ায় আনন্দে মেতে উঠেছেন কসবা উপজেলার দলীয় নেতাকর্মীসহ সর্বস্তরের মানুষ। শপথ নেয়ার পরপরই ঢাক-ঢোল-বাজনার শব্দে মুখরিত হয়ে উঠে সমগ্র কসবা–আখাউড়ায়। মিষ্টি খাওয়ার ধুম পড়ে যায়।
পাশাপাশি বের হয় আনন্দ মিছিল, এছাড়াও গতকাল বুধবার উপজেলা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও অন্যান্য সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগ কসবা সদরে আনন্দ মিছিল বের হয়। আর সেই আনন্দ মিছিলটির নেতৃত্ব দেন কসবা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী আজহারুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগ সহ সভাপতি এডভোকেট আনিসুল হক ভুইয়া, ছাত্র নেতা তসলিমুর রেজা, প্রমুখ। এই সময় উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব রুহুল আমীন ভুইয়া বকুল, মো.আকরাম খান, এডভোকেট শফীকুল ইসলাম, এমজি হাক্কানী, আবু জাহের প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।  
সৌভাগ্য বান ব্যক্তিটি বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় নির্বাচিত হন। সুপিম কোর্টের সিনিয়র আইনজীবি আনিসুল হক বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলা, জাতীয় চারনেতা হত্যা মামলার প্রধান কৌশলী তিনি। এছাড়াও বিডিআর হত্যা মামলা, দুদকের মামলাসহ রাষ্ট্রীয় অনেক গুরুত্বপুর্ণ মামলা পরিচালনা করছেন তিনি। অ্যাডভোকট আনিসুল হকের বাড়ী ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার পানিয়ারুপ গ্রামে। আনিসুল হকের পিতা প্রয়াত সিরাজুল হক ওরফে বাচ্চু মিয়া ছিলেন সাবেক সংসদ সদস্য ও বঙ্গবন্ধুর পরিবারের ঘনিষ্টজন। তারা আতশবাজী ফুটিয় আনন্দ-উল্লাস করে।
গতকাল বুধবার বিকেল সাড় ৫ ঘটিকার সময় পৌর শহরের মসিএনজিষ্ট্যান্ডের দলীয় কার্য্যালয় থেকে একটি মিছিল বের হয়। মিছিলটি  পৌর শহরের নতুন বাজার নতুন বাজার হয়ে উপজেলা এলাকা প্রদক্ষিণ করে।