শনিবার, ২৭শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

চারদিন পেরিয়েও অভিনন্দন বার্তা পায়নি প্রধানমন্ত্রী

sagotomদশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোট নেয়ার দেখতে দেখতে চারদিন পেরিয়ে গেছে। বিরোধী দল ছাড়া এবারের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছে। দলটির নেতৃত্বে বৃহস্পতিবার নতুন সরকারও গঠন হতে যাচ্ছে। জাতীয় সংসদে বৃহস্পতিবার নব-নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা শপথ বাক্য পাঠ করবেন। এদিকে  ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শুধু প্রতিবেশি রাষ্ট্র ভারত ছাড়া অন্য কোনো দেশের সরকারের কাছ থেকে এখন পর্যন্ত উল্লেখ করার মতো কোনো অভিনন্দন বার্তা পাননি। ‘একতরফা’ দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে হতাশা প্রকাশ করেছে বিদেশি কয়েকটি রাষ্ট্র। বিরোধী দল, ভোটার ছাড়া গত ৫ জানুয়ারি এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার পর থেকে আর্ন্তজাতিক সম্প্রদায়ের হতাশা প্রকাশ অব্যাহত আছে।

কূটনৈতিক শিষ্টাচার অনুযায়ী, নির্বাচন কমিশন ভোটের ফল ঘোষণার পরপরই, এমনকি অনেক ক্ষেত্রে গণমাধ্যমে বিজয়ের স্পষ্ট ঘোষণার পরই বিদেশি রাষ্ট্রপ্রধানদের অভিনন্দন বার্তা, টেলিফোন আসতে শুরু করে। আবার ভোটের শেষে এমপিদের শপথ গ্রহণের দিন ধার্য্য হয়ে গেলেও তা আসেনি। বরং দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে হতাশা প্রকাশ করে অবিলম্বে সবার কাছে গ্রহণযোগ্য নতুন একটি নির্বাচন অনুষ্ঠানের কথা বলেছে প্রভাবশালী এবং বন্ধু রাষ্ট্রগুলো।

এমনকি আওয়ামী লীগের কূটনৈতিক মিত্র ভারতের পক্ষ থেকেও এখন পর্যন্ত কোনো অভিনন্দন বার্তা আসেনি। তবে দেশটির প্রভাবশালী ইংরেজি পত্রিকা ‘দ্য টেলিগ্রাফ’র গতকাল মঙ্গলবার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, ‘ভারত সংসদ নির্বাচনে শেখ হাসিনার জয়কে স্বীকৃতি দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।’ অন্যদিকে গত ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত নির্বাচনে বিজয়ী ২৯০ জনের নামের গেজেট আজ বুধবার প্রকাশ করেছে নির্বাচন কমিশন। নিয়ম অনুযায়ী তাই আগামীকাল বৃহস্পতিবার শপথ নেবেন সদ্য নির্বাচিত সংসদ সদস্যরা। সংসদ সচিবালায় সূত্র এসব তথ্য জানায়।

দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে প্রতিবেশি রাষ্ট্র ভারত সাংবিধানিক প্রয়োজনীয়তা বলে মন্তব্য করেছে। দেশটি বলেছে, বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়াকে তাদের মত করেই চলতে দিতে হবে।

অন্যদিকে, সদ্য সমাপ্ত দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন ও চলমান সহিংসতা নিয়ে এবার হতাশা প্রকাশ করেছে ফ্রান্স, জার্মানী ও চীন। দেশ তিনটি বুধবার পৃথক বিবৃতিতে রাজনৈতিক দলগুলোকে জনগণের প্রত্যাশার প্রতি সাড়া দিয়ে অংশগ্রহণমূলক রাজনৈতিক প্রক্রিয়ায় ফেরার এবং অর্থবহ সংলাপ শুরুর তাগিদ দিয়েছে।

এক বিবৃতিতে বুধবার ফ্রান্সের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জানান, সহিংস এবং কম ভোটার উপস্থিতির নির্বাচনের পর বাংলাদেশের পরিস্থিতি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছে দেশটি। সব রাজনৈতিক দলকে সহিংসতার পথ পরিহার করে শান্তিপূর্ণ ও সহনশীল আচরণ করার পাশাপাশি নিজস্ব গণতান্ত্রিক কাঠামোর মধ্যে সংলাপে বসার আহ্বান জানিয়েছে ফ্রান্স।

এক বিবৃতিতে বুধবার জার্মান সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়, সকলের স্বার্থে, মত পার্থক্য ভুলে বাংলাদেশে একটি শান্তিপূর্ণ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠানে সরকার ও বিরোধী দলগুলোর দায়িত্বশীল ভূমিকা দেখতে চায় দেশটি। জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে হতাশা প্রকাশ করে বিবৃতিতে নির্বাচনের আগে-পরে অনেক মানুষ হতাহত হওয়ার ঘটনায় নিন্দা জানানো হয়। যে কোনো ধরনের সহিংসতা, বিশেষ করে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের ওপর হামলা পরিহার করতে বিবৃতিতে সব পক্ষের প্রতি আহ্বান করা হয়।

ঢাকায় নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূতের মতে, দশম সংসদ নির্বাচনে প্রধান বিরোধী দলসহ বেশির ভাগ দল অংশ নেয়নি এবং অধিকাংশ ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেনি। এই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সংঘটিত সহিংসতা গণতন্ত্রের পাশাপাশি বাংলাদেশের অর্থনীতিকে যেভাবে ধ্বংস করেছে, তাতে চীন উদ্বিগ্ন।

এর আগে সদ্য সমাপ্ত দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন ও চলমান সহিংসতা নিয়ে জাতিসংঘ, কমনওয়েলথ, জাপান, অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য হতাশা প্রকাশ করে বিবৃতি দিয়েছে।

এ জাতীয় আরও খবর

আহসান কবীরকে চাপা দেওয়া সিটি করপোরেশনের গাড়িচালক গ্রেপ্তার

নাসিরনগরে স্থায়ী মন্দিরের নিরাপত্তা বিষয়ক মতবিনিময় সভা

নাসিরনগরে ধান ক্ষেত থেকে অজ্ঞাত ব‍্যাক্তির লাশ উদ্ধার

নাসিরনগরে তৈরি হচ্ছে দেশীয় মাছের নানা জাতের শুটকি

বিয়ের আগেই মা হচ্ছেন স্বরা!

রাস্তা হওয়া উচিত ক্যাটরিনার গালের মতো মসৃণ: রাজস্থানের মন্ত্রী

ঢাকায় বিএনপির মশাল মিছিল

খালেদাকে স্লো পয়জনিং করলে বিএনপির লোকেরাই করতে পারে: কাদের

গণতন্ত্রের কথা বলে যুক্তরাষ্ট্র বিভিন্ন দেশকে চাপে রাখতে চায়

লাইসেন্স ছাড়াই ডিএসসিসির গাড়ি চলাচ্ছিলেন হারুন-রাসেল: র‌্যাব

সেই লিটন, এই লিটন

ভোলায় মাঝনদীতে চেয়ারম্যান-মেম্বারদের লক্ষ্য করে গুলি, নিহত ১