মঙ্গলবার, ৯ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২৫শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

তিতাস গ্যাসের ১ হাজার ২২৬ কোটি টাকা মুনাফা

২০১২-১৩ অর্থ বছরে এক হাজার ২২৬ কোটি ৫৪ লাখ টাকা মুনাফা করেছে তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড।

মঙ্গলবার কোম্পানিটির বার্ষিক সাধারণ সভায় এ তথ্য জানানো হয়।

এছাড়া শেয়ার হোল্ডারদের ৩৫ শতাংশ হারে লভ্যাংশ ঘোষণা দিয়েছে রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন এ কোম্পানিটি।

Titas Gas-2গ্যাস সেক্টরের সর্ববৃহৎ এই কোম্পানিটি গত অর্থ বছরে ১৪ হাজার ২৩৬ দশমিক ৪২ মিলিয়ন ঘনমিটার গ্যাস বিক্রি করে। যা বিগত বছরের ‍তুলনায় ৪.৫৫ শতাংশ বেশি।

কোম্পানিটি রাজস্ব বাবদ ৭১৬ কোটি ৩৪ লাখ টাকা রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা দিয়েছে। যা ২০১১-১২ অর্থ বছরের চেয়ে ১৪১ কোটি ৭২ লাখ টাকা বেশি।

রাজধানীর অফিসার্স ক্লাবে আয়োজিত সাধারণ সভায় সভাপতিত্ব করেন তিতাস গ্যাস বোর্ডের চেয়ারম্যান ও জ্বালানি বিভাগের সচিব মোজাম্মেল হক খান।

অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বোর্ড সদস্য পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান ড. হোসেন মনসুর, আব্দুল ওয়াহাব খান, ব্যবস্থাপনা পরিচালক (অতিরিক্ত দায়িত্ব) প্রকৌশলী নওশাদ ইসলাম।

সভায় শেয়ার হোল্ডাররা অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার আহ্বান জানান। এর জবাবে বোর্ড সদস্য পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান অবিলম্বে অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার পাশাপাশি এর সঙ্গে জড়িত কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার ঘোষণা দেন।

দেশে ৫টি কোম্পানি গ্যাস বিতরণ কাজে নিয়োজিত রয়েছে। মোট উৎপাদিত গ্যাসের দুই-তৃতীয়াংশ বিতরণ করছে তিতাস গ্যাস। দৈনিক চাহিদা রয়েছে ১ হাজার ৮শ মিলিয়ন ঘনফুট। এর বিপরীতে সরবরাহ দেওয়া হচ্ছে ১ হাজার ৪৫০ মিলিয়ন ঘনফুট।

তিতাস গ্যাসের অধীনে গ্রাহক রয়েছে ১৫ লাখ ৬৫ হাজার ৮০২টি। এরমধ্যে আবাসিক সংযোগ রয়েছে ১৫ লাখ ৪৮ হাজার ৮৮৬টি, বাণিজ্যিক সংযোগ ১০ হাজার ৯০৮টি, সিএনজি স্টেশন ৩৩০টি, ক্যাপটিভ পাওয়ার ১ হাজার ৫৮টি, শিল্প ৪ হাজার ৫৭১টি, সার কারখানা ৩টি এবং বিদ্যুৎ উৎপাদন কারখানায় সংযোগ রয়েছে ৩৪টি।