মঙ্গলবার, ২৮শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের মানববন্ধন

পাকিস্তানী পণ্য বর্জন করার আহবান ও পাকিস্তানের জাতীয় পতাকায় অগ্নি সংযোগের মধ্যে দিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের উদ্যোগে মানববন্ধন  অনুষ্ঠিত হয়েছে। একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধকালে মানবতা বিরোধী অপরাধের দায়ে জামায়াতে ইসলামীর সহকারী সেক্রেটারী জেনারেল  আবদুল কাদের মোল্লার ফাঁসি কার্যকরের পর পাকিস্তানের ধৃষ্টতাপূর্ণ আচরণের প্রতিবাদে সেক্টর 11387618207কমান্ডারস ফোরামের উদ্যোগে গতকাল শনিবার দুপুরে এই মানববন্ধন করা হয়। দুপুর একটার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সামনে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে মুক্তিযোদ্ধা ছাড়াও বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা-কর্মী ও শ্রেণী-পেশার মানুষ অংশ নেন। মানববন্ধন চলাকালে জেলা সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের আহবায়ক হারুন অর রশিদের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন জেলা ১৪ দলের সমন্বয়ক মুক্তিযোদ্ধা আমানুল হক সেন্টু, জেলা নাগরিক কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট আবদুস সামাদ, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও যুদ্ধকালীন কমান্ডার অ্যাডভোকেট তফছিরুল ইসলাম, জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক ও সাবেক পৌর মেয়র মুক্তিযোদ্ধা আল-মামুন সরকার, জেলা সুজনের সভাপতি প্রফেসর মুখলেছুর রহমান, মুক্তিযুদ্ধের শহীদ স্মৃতি পাঠাগারের সভাপতি আলী আকবর মজুমদার, মুক্তিযোদ্ধা আবদুল ওয়াহিদ খান লাভলু, সচেতন নাগরিক কমিটির সাবেক আহবায়ক অ্যাডভোকেট আবু তাহের, জেলা সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের যুগ্ম আহবায়ক গাজী রতন মিয়া, জেলা ন্যাপ’র সাধারন সম্পাদক হাজী উমর আলী, জেলা যুবলীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট মাহবুবুল আলম খোকন, উদীচীর সাধারন সম্পাদক জহিরুল ইসলাম স্বপন, সম্মিলিত সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের সদস্য সচিব এটিএম ফয়েজুল কবীর প্রমুখ। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, জামায়াত-শিবির বাংলাদেশকে আবার পাকিস্তান বানানোর ষড়যন্ত্র করছে। দেশ ও জাতিকে পাকিস্তানের এসব প্রেতাত্মাদের ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে। বক্তারা পাকিস্তানের পণ্য বর্জন করার আহবান জানান। মানববন্ধন শেষে পাকিস্তানের জাতীয় পতাকায় অগ্নি সংযোগ ও পাকিস্তানের তৈরি সেমাইয়ের প্যাকেট ও জুসের বোতল আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেওয়া হয়।