মঙ্গলবার, ৩০শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বেড়ে বেড়ে শুক্রবার ভোর ৫ টা পর্যšত্ম অবরোধ

28.11.13নির্বাচনী তফসিল ঘোষণার পরপরই জরুরী সংবাদ সম্মেলন ডেকে ১৮ দলীয় জোট বিএনপি প্রথমে ৪৮ ঘণ্টার অবরোধের ডাক দেয়। এই অবরোধের কর্মসুচি বাড়তে বাড়তে  পরে গতকাল বুধবার বিকালে আরও ১২ ঘণ্টা বাড়ানো হয়। ১২ ঘণ্টা বাড়িয়ে থামেনি বিএনপি, তৃতীয় বারের মত রুহুল কবির রিজভী গতকাল বুধবার রাত সাড়ে ১১টায় শুক্রবার ভোর ৫টা পর্যন্ত অবরোধের ঘোষনা করে। এতে ১৮ দলের অবরোধ গিয়ে দাড়্য়া মোট ৭১ ঘণ্টায়।
দলীয় সুত্রে জানা যায় শুক্রবার  ছুটির দিনে কোন পণ্যবাহী ট্রাক যাতে রাজধানীতে আসতে না পারে সেই কৌশল হিসেবে অবরোধের সময় বাড়ানো হয়েছে। নাম না বলার শর্তে নেতা-কর্মীরা জানান রোববার থেকে ১৮ দলের আরও কঠোর কর্মসুচি আসতে পারে পারে। দুই দিনের সহিংসতায় মোট ১৮ জন মানুষ নিহত হয়। এদিকে ৪৮ ঘণ্টা হরতালের প্রথম দিনে ৯ জন দ্বিতীয় দিনে ৯ জন মানুষ নিহত হওয়ার পর বেড়েছে হতাশা আর ভয়। এই অবরোধের কারণে জনগণের মধ্যে এখন প্রশ্ন অবরোধ কি আরও বাড়তে পারে? প্রথম দিন থেকে বিভিন্ন জেলায় ১৮ দলের সর্মথনকারীরা  গাড়ি ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ, ককটেল বিস্ফোরণ করে।

 

এদিকে অবরোধের তৃতীয় দিন বৃহস্পতিবার সকাল  থেকেই সারাদেশে সহিংসতার খবর পাওয়া গেছে। দেশের বিভিন্ন স্থানে রেল লাইন উপরে ফেলা, সড়ক অবরোধ, গাড়িতে আগুন ও ভাঙচুরের খবর পাওয়া গেছে।

এদিকে বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর আজিপুরে অবরোধের সমর্থনে মিছিল করে গাড়ি ভাঙচুর, ককটেল বিস্ফোরণ করেছে ঢাকা মহানগর পূর্ব শিবির। এ ঘটনায় পুলিশের সঙ্গে ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়ার ঘটনাও ঘটেছে। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে সাতটার দিকে এ ঘটনা ঘটে।একজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, সকাল সাড়ে সাতটার দিকে হঠাৎ নারায়ে তাকবীর সেøাগান দিয়ে ১৫-২০ জন মানুষ জড়ো হয়ে মিছল শুরু করে। পুলিশ তাদের লক্ষ্য করে গুলি, টিয়ারশেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করলে গাড়ি ভাংচুর ও ককটেল বিস্ফোরণ করতে করতে পালিয়ে যায় তারা।

 

রাজধানীর মিরপুর শাহ আলী রোডে একটি বাসে আগ্নিসংযোগ ও ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে অবরোধকারীরা। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে শাহ আলীর বেড়িবাঁধ রোডে এ ঘটনা ঘটে।

 

শাহ আলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিমুজ্জামান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, একটি লোকাল বাস রা¯ত্মার পাশে পার্কিং করা ছিল। ভোরে কে বা কারা এসে এতে আগুন ধরিয়ে দেয়। পরে কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে পালিয়ে যায় তারা। তবে এতে কেউ হতাহত হয়নি। এ ঘটনায় কাউকে আটক করা যায়নি বলেও জানান তিনি।

 

অবরোধকারীরা বুধবার রাত আনুমানিক দেড়টার দিকে ৭২ ফুট রেললাইন কেটে উপড়ে ফেলেছে অবরোধকারীরা। ট্রেন লাইন বিকল হওয়ায় বৃহস্পতিবার ভোর থেকে লালমনিরহাট-বগুড়ার সাšত্মাহারসহ সংশ্লিষ্ট সব ধরনের ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে যত দ্রুত সম্ভব ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক করার চেষ্টা চলছে।

 

বগুড়া রেলওয়ের উপ-সহকারী প্রকৌশলী আফজাল হোসেন জানান, অবরোধকারীরা অক্সি এসিটিলিন শিখা ব্যবহার করে ৭২ ফুট ট্রেন লাইন কেটে ফেলেছে।         

 

নওগাঁর আত্রাই উপজেলার থাওয়াইপাড়া এলাকায় রেলাইন উপড়ে ফেলেছে অবরোধকারীরা। বুধবার গভীর রাতে এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে এলাকাবাসী। এ ঘটনায় উত্তরাঞ্চলের সঙ্গে ঢাকা ও রাজশাহীর রেল যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

 

শাšত্মাহার জংশনের এসিসট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার (রেল) আফজাল হোসেন এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আমরা মেরামতের কাজ চালিয়ে যাচ্ছি, শিগগিরই রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক হবে।

 

এ ঘটনার পর থেকে উত্তরাঞ্চল থেকে রাজশাহীগামী উত্তরা এক্সপ্রেস, ঢাকাগামী আšত্মনগর একতা এক্সপ্রেস, নীল সাগর এক্সপ্রেস, রাজশাহী থেকে উত্তরাঞ্চলগামী তিতুমীর এক্সপ্রেস, খুলনা থেকে উত্তরাঞ্চলগামী সীমাšত্ম এক্সপ্রেস ও ঢাকা থেকে উত্তরাঞ্চলগামী দ্রুতযান এক্সপ্রেস স্টেশনে আটকা পড়েছে। এতে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন যাত্রীরা।

 

টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার বঙ্গবন্ধু সেতু পুর্বপার ইব্রাহিমাবাদ রেল স্টেশনে ট্রেনের দু’টি বগিতে পেট্রোল ঢেলে অগ্নিসংযোগ করেছে অবরোধকারীরা। বুধবার রাত ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। তবে এতে কেউ হতাহত হয়নি।

 

এ জাতীয় আরও খবর