মঙ্গলবার, ২৯শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বিএনপির ৩৮৫ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা

news-image

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি : সিরাজগঞ্জে সদর উপজেলার কালিয়া হরিপুর ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ড এবং শাহজাদপুর উপজেলার গাড়াদহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে মঙ্গলবার রাতে হামলা-ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও ককটেল বিস্ফোরণের অভিযোগ উঠেছে বিএনপির বিরুদ্ধে।

এ অভিযোগে বুধবার দুপুরে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার ১৪ বিএনপি নেতাকর্মীর নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ১৫০ এবং শাহজাদপুর উপজেলার গাড়াদহ ইউনিয়ন বিএনপির ২১ নেতাকর্মীর নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ১৫০ থেকে ২০০ জনের বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে মামলা দায়ের হয়েছে।

এ হামলা ও ভাঙচুরের অভিযোগ জানিয়ে বুধবার বিকেলে শাহজাদপুর শহরে ও গাড়াদহ ইউনিয়নের তালগাছি বাসস্ট্যান্ড এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে আওয়ামী লীগ।

তালগাছির সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন শাহজাদপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক এমপি চয়ন ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন শাহজাদপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শেখ আব্দুল হামিদ লাভলু।

গাড়াদহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সেলিম হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল কাদের, মুন্তাক আহম্মেদ, অ্যাডভোকেট জালাল উদ্দিন, ইকরাল হোসেন নয়ন প্রমুখ।

চয়ন ইসলাম তার বক্তব্যে বলেন, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে বিএনপি নেতাকর্মীরা তালগাছি বাসস্ট্যান্ড এলাকায় অবস্থিত গাড়াদহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে হামলা চালিয়ে ককটেল বিস্ফোরণ, একটি মোটরসাইকেলে অগ্নিসংযোগ, চেয়ার, টিভি, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি ভাঙচুর করে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তিনটি অবিস্ফোরিত ককটেল ও একটি বিস্ফোরিত ককটেলের স্প্লিন্টার উদ্ধার করে। এ ঘটনার প্রতিবাদে আওয়ামী লীগের নেতারা রাতেই তালগাছি বাসস্ট্যান্ড এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করে। এ ছাড়া দুপুরে শাহজাদপুর শহরে একই কর্মসূচি পালন করে। তিনি আরো বলেন, কোনোভাবে বিএনপির সন্ত্রাস-নৈরাজ্য বরদাশত করা হবে না। যেখানেই বিএনপি হামলা চালাবে সেখানেই দুর্বার প্রতিরোধ গড়ে তোলা হবে।

এ বিষয়ে শাহজাদপুর থানার ওসি নজরুল ইসলাম মৃধা বলেন, শাহজাদপুর উপজেলার গাড়াদহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে হামলার ঘটনায় বুধবার দুপুরে গাড়াদহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন নয়ন বাদী হয়ে বিএনপির ২১ নেতাকর্মীর নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ১৫০ থেকে ২০০ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা করেছে। এ বিষয়ে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ বিষয়ে সিরাজগঞ্জ সদর থানার পরিদর্শক (অপারেশন) সুমন চন্দ্র দাস জানিয়েছেন, মঙ্গলবার রাতে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার কালিয়া হরিপুর ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে হামলা-ভাঙচুরের ঘটনায় কালিয়া হরিপুর ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সভাপতি জাকির হোসেন বাদী হয়ে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা বিএনপির ১৪ নেতাকর্মীর নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ১৫০ জনের নামে থানায় মামলা দায়ের করেছে। এ বিষয়ে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ ছাড়া ঘটনাস্থল থেকে পাঁচটি হাত বোমা উদ্ধার করা হয়েছে।

কালিয়া হরিপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, মঙ্গলবার রাত ১২টার দিকে বিএনপি নেতাকর্মীরা ৬ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও হাত বোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে। এ ঘটনার প্রতিবাদে আমরা সমাবেশ ও মামলা করেছি।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও রাজশাহী বিভাগীয় সমাবেশের প্রধান সমন্বয়ক ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু জানান, রাজশাহী বিভাগীয় সমাবেশ বানচাল করতে সিরাজগঞ্জ, নাটোর, বগুড়া, নওগাঁ, পাবনাসহ, দেশের বিভিন্ন জেলায় নিজেরাই তাদের দলীয় কার্যালয় ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করে বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র মূলক মিথ্যা ও সাজানো মামলা করেছে।

 

এ জাতীয় আরও খবর