সোমবার, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১১ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

‘ভয় পেয়ে বাড়িতে বসে থাকতে পারব না’

news-image

অনলাইন ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে কয়েকদিন আগে একটি অনুষ্ঠানে হামলার শিকার হন বিতর্কিত লেখক সালমান রুশদি। এর রেশ কাটতে না কাটতেই এবার পাকিস্তান থেকে হুমকি পাওয়ার কথা জানালেন ভারতে বসবাসরত বাংলাদেশি লেখক তসলিমা নাসরিন। গত বুধবার ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জি নিউজকে তিনি বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তসলিমা বলেন, ‘বাংলাদেশ থেকে আমার মাথার মূল্য নির্ধারণ করে ফতোয়া জারি হয়েছে। ভারত থেকেও হয়েছে। কিন্তু পাকিস্তানের মতো মৌলবাদী অধ্যুষিত জায়গা থেকে আমার নামে ফতোয়া জারি হবে তা আমি ভাবতে পারিনি। ওখানে কিছুদিন আগে একটি ধর্মীয় সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা খাদিম হুসেন ঋদ্ধি একটি ব়্যালিতে প্রকাশ্যে বলেছেন, ‘‘রুশদি ও তসলিমাকে হাতের কাছে পেলে আমি নিজেই তাদের খুন করতাম। ওরা নবী নিয়ে এত বাজে কথা বলেছে যে ওদের খুন করতেই হবে’’।’

তিনি আরও বলেন, ‘ইতোমধ্যে রুশদির ওপর হামলা হয়েছে। এবার বাকি আমি। টুইটারে পাকিস্তান থেকে হুমকি পেয়ে চলেছি। সবার প্রোফাইল দেখেই বোঝা যাচ্ছে এরা সন্ত্রাসবাদী বা সন্ত্রাসবাদ সমর্থনকারী। তারা খুব খুশি যে রুশদির ওপর হামলা হয়েছে। বাংলাদেশে বা ভারতে মাথার দাম ঘোষণা করায় আমি বিশেষ উদ্বিগ্ন ছিলাম না। তবে এখন আমি উদ্বিগ্ন। এরা সরাসরি পাকিস্তান থেকে হুমকি দিচ্ছে।’

হুমকির পর আরও বেশি সচেতন থাকবেন কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে তসলিমা বলেন, ‘আমি ভয় পেয়ে বাড়িতে বসে থাকতে পারব না। হয়তো কোনো ব়্যালিতে যাব না, এটুকু সাবধানতা অবলম্বন করব। তবে কেউ যদি আমায় মেরে ফেলার চেষ্টা করে সেটা থেকে তো বাঁচা যাবে না। আমি আমার মুখ বন্ধ করব না, বাড়িতে বসেও থাকব না। স্বাভাবিক জীবনযাপন করে যাব।’

গত ১২ আগস্ট নিউইয়র্কের চৌতাকুয়া ইনস্টিটিউশনে ভাষণ দিতে গিয়ে ছুরি হামলার শিকার হন বুকারজয়ী লেখক রুশদি। এ ঘটনায় একজনকে গ্রেপ্তার করেছে নিউইয়র্ক পুলিশ। এ ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছিলেন ‘হ্যারি পিটার’ সিরিজের জনপ্রিয় লেখিকা জে কে রাউলিং। এর জের ধরে হত্যার হুমকি পেয়েছেন তিনিও।