রবিবার, ১৪ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৩০শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার “খান বাহাদুর” দাম হাকা হচ্ছে ২০ লাখ টাকা

news-image
তৌহিদুর রহমান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া : ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ঈদ-উল আযহার দিনক্ষন ঘনিয়ে আসার সাথে সাথেই খামারীরা তাদের পোষা গরু গুলির দিকে বিশেষ যত্ন নিতে শুরু করেছেন। মোটা তাজা করা গরুগুলো জনগনের সামনে প্রদর্শন শুরু করছে।জেলা সদর উপজেলার সুলতানপুর ইউনিয়নের বিরামপুর গ্রামের খামারী মোনায়েম খান তার পোষা গরু “খান বাহাদুর” মানুষের সামনে প্রদর্শন করছে। কালো রঙের এই খান বাহাদুরের ওজন ৩২ মন। এর দাম হাঁকা
হচ্ছে ২০ লাখ টাকা।
খামারী মোনায়েম খান গত তিন বছর ধরে প্রাকৃতিক খাবারের পাশাপাশি দেশীয় দানাদার খাবার খাইয়ে গরুটিকে পরম যকানে  মোটাতাজা করে বড় করেছেন। বিশাল আকারের গরুটি দেখতে বর্তমানে প্রচুর মানুষ আসে মোনায়েমের বাড়িতে।মোনায়েম খান জানান, গত তিন বছর আগে প্রতিবেশী আবদুস সালামের কাছ থেকে তিনি ব্রাহমা জাতের এই ষাড়ের বাচ্চাটি কিনেন।
এরপর থেকে তিনি গরুটিকে কাঁচা ঘাসের পাশাপাশি, খৈল, ভুষি, ডাল সহ দেশীয় দানাদার খাবার খাইয়ে বড় করেছেন। আকারে বড় এবং আচরণে খানদানি হওয়ায় খামারি গরুটির নাম রেখেছেন “খান বাহাদুর”।
তিনি বলেন, এটা আমার ঘরের খামারের গরু। খুবই সাধারণ ভাবে তাকে লালন পালন করা হয়েছে। এটি দেখতে অনেক বড় এবং সুন্দর। তাই নাম রেখেছি “খান বাহাদুর”। তিনি বলেন, গরুটির ওজন ১হাজার ২শ কেজি। কালো রঙের এই ষাড়ের দাম চাই ২০ লাখ টাকা। এদিকে প্রতিদিন এই “খান বাহাদুর” কে দেখতে জেলা সদরসহ আশপাশ এলাকা থেকে বিপুল সংখ্যক উৎসুক জনতা ভীড় করেন খামারী মোনায়েমের বাড়িতে।
স্থানীয় খামারী আবদুস সালাম বলেন, গরুটি মোনায়েম খুব যত্ন করে লালন পালন করেছেন। দেশীয় পদ্ধতিতে গরুটিকে পালন করা হয়েছে। গরুটিকে দেখতে আসা গাজী শহিদুল আলম বলেন, খান বাহাদুর আমাদের এলাকার বড়চেয়ে বড় গরু। জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ এ.বি.এম সাইফুজ্জামান বলেন, খান বাহাদুর নামে গরুটি ব্রাহমা জাতের। এটি একটি বর্ধনশীল জাত। দুই বছরে এক-একটি গরুর ওজন হয় ৮শ থেকে ১হাজার কেজি। তবে এখানে কিছু নীতি মালার বিষয় আছে, যার কারণে এই গরু সকলের পক্ষে লালন পালন করা সম্ভব হয় না। কারণ এই জাতের বাচ্চার যে দুধের চাহিদা সেটি পূরণ করা সম্ভব হয়না। সে জন্য এই জাতের বীজ পরীক্ষামূলক উৎপাদন বন্ধ আছে। কিন্তু ইতোমধ্যে যারা লালন পালন করছেন তারা লাভবান হচ্ছেন বা হবেন। তিনি বলেন, খামারী মোনায়েমের গরুটির ওজন ১ হাজার ২শ কেজি।
গায়ের রঙ কালো। গরুটির দাম ২০লাখ টাকা চাওয়া হয়েছে।

এ জাতীয় আরও খবর

গোপন ছবি দিয়ে সাবেক স্ত্রীকে ‘ব্ল্যাকমেইল করছেন’ হিরো আলম

স্বামীকে খুশি করতে ‘রক্ষিতা’ আনলেন স্ত্রী!

ডিমের হালি ৭০ টাকা!

বঙ্গবন্ধু হত্যার ষড়যন্ত্রকারীদের খুঁজতে কমিশনের রূপরেখা প্রস্তুত : আইনমন্ত্রী

সিসিএর গবেষণা : নারীরা বেশি পর্নোগ্রাফির শিকার, পুরুষেরা হ্যাকিংয়ের

পুলিশের গাড়িতে তেল বরাদ্দ কমেছে

ক্ষমতায় গেলে কুইক রেন্টাল ও বিদ্যুৎ খাতে আইন বাতিল করবে বিএনপি

হলিউড অভিনেত্রী অ্যান হেচে আর নেই

কাজের কথা বলে ভাড়া বাসায় নিয়ে ধর্ষণ, খুবি শিক্ষার্থী কারাগারে

‘পররাষ্ট্রমন্ত্রী দেশবাসীর কাছে কৌতুক অভিনেতায় পরিণত হয়েছেন’

স্বামীকে খুশি করতে ‘রক্ষিতা’ আনলেন স্ত্রী!

রুশদির ওপর হামলাকারী কে এই হাদি মাতার?