বৃহস্পতিবার, ২৭শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৩ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

নওগাঁয় বাদির এক ঘুষিতেই বিবাদী হাসপাতালে

news-image

অনলাইন ডেস্ক : নওগাঁর মান্দায় বাদির এক ঘুষিতেই প্রতিপক্ষের ফরহাদ হোসেন (২৫) নামে এক যুবককে রক্তাক্ত জখম অবস্থায় উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। বুধবার দুপুরে এসিল্যান্ড অফিসের বারান্দায় এ হামলার ঘটনা ঘটে।

এসময় উপস্থিত লোকজনের সহায়তায় হামলাকারীকে আটক করা হয়। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তাকে সাত দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তির নাম রুহুল আমিন (৪৫)। তিনি উপজেলার প্রসাদপুর ইউনিয়নের এলেঙ্গা গ্রামের আমিরুল ইসলামের ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দণ্ডপ্রাপ্ত রুহুল আমিন জমিজমা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে এসিল্যান্ডের বারান্দায় প্রতিপক্ষের ফরহাদ হোসেনের সঙ্গে বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়েন। এক পর্যায়ে রুহুল আমিন ক্ষিপ্ত হয়ে ফরহাদ হোসেনকে ঘুষি মারেন। এতে ফরহাদ হোসেনের নাক ফেটে রক্ত ঝরতে থাকে ও জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। পরে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে দেওয়া হয়।

এ প্রসঙ্গে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইমরানুল ইক বলেন, জমিজমা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে উভয়পক্ষের মধ্যে ৭ বছর ধরে মামলা চলছে। রেকর্ড সংশোধনের একটি বিষয় নিয়ে আজ বুধবার শুনানির দিন ধার্য ছিল। কিন্তু শুনানির আগেই রুহুল আমিন অফিসের বারান্দায় প্রতিপক্ষের একজনের নাক ফাটিয়ে দেন।

তিনি আরো বলেন, এটি একটি ফৌজদারী অপরাধ। এ ঘটনায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে দণ্ডবিধির ১৬০ ও ৩৫৮ ধারায় রুহুল আমিনকে সাত দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

 

এ জাতীয় আরও খবর