শনিবার, ২৩শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ৭ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

মুসলিম নজরদারির ফাঁকেই ক্রাইস্টচার্চ হামলা

news-image

অনলাইন ডেস্ক : নিউ জিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে হামলার আগে নিরাপত্তাজনিত বেশ কিছু ব্যর্থতার দিক ছিল বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় নিযুক্ত তদন্ত দল। সে সময় গোয়েন্দা দল ব্যাপকভাবে ‘মুসলিম সন্ত্রাসবাদ’ নিয়ে ব্যস্ত ছিল। এ ফাঁকেই এ হামলা সংগঠিত হয়। বিবিসি, গার্ডিয়ান।

অস্ট্রেলীয় শ্বেতাঙ্গ বর্ণবাদী ব্রেন্টন ট্যারেন্ট ২০১৯ সালের মার্চে ওই দুটি মসজিদে হামলা চালিয়ে ৫১ জনকে হত্যা করার পর এই তদন্ত শুরু করা হয়েছিল। ২০ মাস তদন্তের পর মঙ্গলবার এ প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। এ প্রতিবেদন প্রকাশের পর হমালা প্রতিহত করতে ব্যর্থতার জন্য ক্ষমা হেয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আডার্ন।

তদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নিউ জিল্যান্ডের নিরাপত্তা সংস্থাগুলো ‘প্রায় একচেটিয়াভাবে’ ইসলামি সন্ত্রাসবাদের হুমকি মোকাবেলার ওপর জোর দিয়েছিল আর কর্তৃপক্ষের আগ্নেয়াস্ত্রের লাইসেন্স পরীক্ষা করার বিষয়টি অবহেলা করার সুযোগে ট্যারেন্ট প্রচুর অস্ত্রের মজুদ গড়ে তুলেছিলেন।তবে এসব ব্যর্থতা সংশোধন করার পরও ওই বর্ণবাদীকে আক্রমণ চালানো থেকে বিরত রাখা যেত না বলে প্রতিবেদনে মন্তব্য করা হয়েছে।

চলতি বছরের অগাস্টে ২৯ বছর বয়সী ট্যারেন্টকে প্যারোলে মুক্তির সুযোগ না রেখে আমৃত্যু কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত, যা নিউ জিল্যান্ডের আইনে সর্বোচ্চ সাজা।

রয়াল কমিশন অব ইনকোয়ারির তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশের পর এক বিবৃতিতে নিউ জিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আডার্ন বলেছেন, ‘সন্ত্রাসবাদীর পরিকল্পনা ও প্রস্তুতি শনাক্ত করতে পারত, সরকারি সংস্থাগুলোর এমন কোনো ব্যর্থতা খুঁজে পায়নি কমিশন। কিন্তু তারা শেখার মতো বহু বিষয় এবং পরিবর্তন করার মতো উল্লেখযোগ্য ক্ষেত্র চিহ্নিত করেছে।’

তিনি ‘আগ্নেয়াস্ত্র লাইসেন্সের পদ্ধতির ক্ষেত্রে ব্যর্থতা’ ও ইসলামপন্থিদের হুমকির দিকে ‘অতিরিক্ত নজর’ দেওয়ার বিষয়গুলো উল্লেখ করে বলেন, ‘এই ইস্যুগুলো হামলাটি থামাতে পারতো, কমিশন এমন কিছু খুঁজে না পেলেও, এগুলো ব্যর্থতাই ছিল আর এজন্য সরকারের পক্ষ থেকে আমি ক্ষমাপ্রার্থী।’

তদন্ত কমিশনের প্রতিবেদনে বেশ কিছু সুপারিশ করা হয়েছে এবং সেগুলোর সবই তারা গ্রহণ করেছে বলে সরকার জানিয়েছে। এগুলোর মধ্যে নতুন একটি জাতীয় গোয়েন্দা ও নিরাপত্তা সংস্থা গঠন করা এবং ঘৃণাজনিত অপরাধের ক্ষেত্রে পুলিশকে আরও সক্রিয় হওয়ার প্রস্তাব অন্তর্ভুক্ত। সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল

এ জাতীয় আরও খবর

পীরগঞ্জের মাঝিপাড়ার ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে আর কোন ভয়ভীতি নেই : পরিদর্শনকালে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী

নাস্তায় পুষ্টিকর ও মজাদার কিমা স্যান্ডউইচ

‘পাকিস্তানের আফগানিস্তান দখল’

তাহসান-সাবিলার টেলিফিল্মে সুস্মিতা আনিসের গান

শুটিংয়ে অভিনেতার হাতে চিত্রগ্রাহক নিহত, কঙ্গনার অভিজ্ঞতা

হোসনি দালানে বোমা হামলার বিচার ছয় বছরেও শেষ হয়নি

যশোর শিক্ষা বোর্ডের আরও আড়াই কোটি টাকার হদিস মিলছে না

মিতু হত্যা: যশোর থেকে গ্রেফতার আসামি ভোলা

পীরগঞ্জের ঘটনায় গ্রেফতার দুজন জিজ্ঞাসাবাদে যা জানালো

বিশ্ববাজারে বাড়লো স্বর্ণের দাম

এ যাত্রায় রক্ষা মেয়র জাহাঙ্গীরের, পাচ্ছেন ‘কড়াবার্তা’

অদ্ভুত বোল্ড ডি কক, বিপর্যয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা