রবিবার, ২৯শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ধামরাইয়ে দুই বাসের সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ৩০

news-image

ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি : ঢাকার ধামরাইয়ে দুই বাসের সংঘর্ষে কবিতা সরকার (৩০) নামের একজন নারী শ্রমিক নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন ৩০ যাত্রী। এঁদের মধ্যে দুইজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

আজ রবিবার (২২ নভেম্বর) সকাল ৬টার দিকে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ধামরাইয়ের কালামপুর বাসস্ট্যান্ডের পূর্বপাশে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

আহতদের ধামরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহত কবিতা সরকার (৩০) ধামরাইয়ের কুশুরা ইউনিয়নের গাড়াইল গ্রামের বিকাশ সরকারের স্ত্রী। তিনি ধামরাইয়ের ঢুলিভিটা এলাকার একটি কারখানার শ্রমিক ছিলেন।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, কক্সবাজার থেকে ছেড়ে আসা আরিচাগামী সৌদিয়া পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস (চট্টগ্রাম-মেট্রো- ব-১১-১০৭৮) ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ধামরাইয়ের কালামপুর বাসস্ট্যান্ডের পূর্বপাশে পৌঁছলে ঢাকাগামী ডি-লিংক পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাসের (ঢাকা মেট্রো-ব-১৫-৩৭৬০) সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। এতে ডি-লিংক বাসটি দুমড়েমুচড়ে যায় এবং সৌদিয়া পরিবহনের বাসটি উল্টে পাশে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হন ডি-লিংক পরিবহনের যাত্রী কবিতা সরকার। এতে উভয় বাসের ৩০ যাত্রী আহত হন। খবর পেয়ে ধামরাই ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আহতদের উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করেন।

আহত যাত্রী মুজাহিদুল ইসলাম ও মোকছেদুল ইসলাম জানান, সৌদিয়া পরিবহনের বাসের চালকের ঘুমের ভাব থাকার কারণেই এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। রাস্তায় আরো কয়েকবার বাসটি হেলেদুলে দুর্ঘটনায় পড়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছিল। যাত্রীরা বলার পরও সতর্ক হননি চালক।

গোলড়া হাইওয়ে থানার উপপরিদর্শক এসআই শ্রীবাস বলেন, ‘দুর্ঘটনাকবলিত বাস দুটি জব্দ করা হয়েছে এবং কবিতার মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এছাড়া আহতদের বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’