শনিবার, ২১শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ঢাকাসহ পাঁচ বিভাগে ভারী বর্ষণ হতে পারে বন্দরে ৩ নম্বর সতর্কতা বহাল

news-image

পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগর এবং তত্সংলগ্ন উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থানরত লঘুচাপটি উত্তর-পশ্চিম দিকে সরে গিয়ে বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গ ও তত্সংলগ্ন  এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমী বায়ুর কেন্দ্র গুজরাট, মধ্যপ্রদেশ, উত্তরপ্রদেশ, বিহারে এবং বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চল হয়ে উত্তর-পূর্ব দিকে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত। 
মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের উপর সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে প্রবল অবস্থায় রয়েছে। এর প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর এলাকায় বায়ুচাপের তারতম্য বিরাজ করছে। ফলে উত্তর বঙ্গোপসাগর, বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা এবং সমুদ্র বন্দরসমূহের উপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরসমূহকে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্কতা সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারসমূহকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি থেকে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।
 
বাংলাদেশের উপর মৌসুমী বায়ু সক্রিয় থাকার কারণে গতকাল দুপুর ২টা থেকে  পরবর্তী ২৪ ঘন্টার মধ্যে ঢাকা, বরিশাল, রংপুর, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণ হতে পারে। অতি ভারী বৃষ্টির কারণে চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের পাহাড়ি এলাকায় কোথাও কোথাও ভূমিধসের আশঙ্কা রয়েছে।
fishing-boat-sea
 
গতকাল সোমবার রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্নস্থানে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হয়েছে। এর মধ্যে গতকাল সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘন্টায় সীতাকুণ্ডে ৮৮ মিমি, সন্দ্বীপে ৮৬ মিমি, ময়মনসিংহে ৭৯ মিমি, ফেনীতে ৭৭ মিমি, মাইজদীকোর্টে ৬৯ মিমি, বগুড়ায় ৬২ মিমি, মংলায় ৫৫ মিমি, রংপুরে ৫২ মিমি, চট্টগ্রামে ৪৪ মিমি, ভোলায় ৪১ মিমি, যশোরে ৪০ মিমি ও কক্সবাজারে ৩০ মিমি বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

এ জাতীয় আরও খবর