বৃহস্পতিবার, ১৯শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

খোশ আমদেদ মাহে রমজান

news-image

রমজানের প্রথমদিকে রোজা রাখার কারণে কিছুটা অস্বাভাবিক লাগে, কয়েকদিন রোজা রাখলে তা আবার স্বাভাবিক হয়ে যায়। আজকে আলোচনা করবো ইফতার এবং সেহরি নিয়ে। সূর্যাস্তের পর পরই ইফতার করা উত্তম। প্রিয়নবী (সা.) বলেন, মানবজাতি ততদিন পর্যন্ত কল্যাণের মধ্যে থাকবে, যতদিন তারা ইফতারের সময় হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ইফতার করে নেবে (মুসলিম শরীফ)। ইফতারের মর্যাদা অনেক। সময় হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ইফতার করা উচিত। নবীয়ে করীম (সা.) ঘোষণা করেন যে, আল্লাহপাক বলেন- বান্দাদের মধ্যে আমার নিকট অধিক প্রিয় যারা (সময় হলে) দ্রুত ইফতার করে নেয় (তিরমিযী)। অন্য হাদিসে মহানবী (সা.) বলেন (ইফতারের সময় হলে) রোজাদার মুমিনরা তাড়াতাড়ি ইফতার করলে দ্বীন ইসলাম সর্বদা বিজয়ী থাকবে। কেননা, ইহুদি নাছারাগণ দেরিতে ইফতার করে (আবু দাউদ)।  নবীয়ে করীম (সা.) আরও বলেন যে,  ‘কোন ব্যক্তি এ মাসে কোন রোজাদারকে আল্লাহর সন্তুষ্টি ও সওয়াব হাসিল করার নিয়তে ইফতার করালে এটা তাঁর জন্য গোনাহসমূহ মাফ ও দোজখের আগুন থেকে মুক্তির উপায় হবে এবং সে রোজাদারের সমান সওয়াব পাবে। কিন্তু এ কারণে  রোজাদারের সওয়াব কম হবে না। একথা শুনে সাহাবায়ে কেরাম (রাঃ) গণ আরজ করলেন ‘ইয়া রাসুলুল্লাহ (সা.) আমাদের মধ্যে যদি কেউ রোজাদারকে ইফতার করানোর সামর্থ্য রাখে না, তাহলে ঐ দরিদ্র লোক এই মহান সওয়াব কিভাবে লাভ করবে? উত্তরে আল্লাহর রাসুল (সা.) বলেন যে, ব্যক্তি রোজাদারকে একটি খেজুর, একটু দুধ, কিংবা এক গ্লাস সাদা পানি দ্বারা ইফতার করাবে তাঁকেও আল্লাহপাক সওয়াব দান করবেন। আর যে ব্যক্তি রোজাদারকে পূর্ণমাত্রায় পরিতৃপ্ত করাবে, চাই সেটা ইফতারের সময় হোক অথবা সেহরির সময়। আল্লাহপাক তাঁকে হাউজে কাউছার হতে এমন পানীয় পান করাবেন যার ফলে বেহেশতে প্রবেশের পূর্বে আর কখনও সে পিপাসার্ত হবে না (বায়হাকী, মিশকাত)। খেজুর দিয়ে ইফতার করা উত্তম, নতুবা ইফতারের সূচনা পানি দিয়ে করা উচিত। নবীয়ে করীম (সা.) বলেন- রোজাদারের উচিত খেজুর দ্বারা ইফতার করা, খেজুর না পাওয়া গেলে পানি দ্বারা ইফতার করবে। নিশ্চয় পানি অত্যন্ত পবিত্র কারক (আবু দাউদ শরীফ)। ইফতার সামনে হাজির হলে এই দোয়া পাঠ করবে- “আল্লাহুম্মা লাকা ছুমতু ওয়ালা রিজকিকা আফতারতু”। আরবিতে না পারলে বাংলায় বলবেন- অর্থাৎ: হে আল্লাহ আমি তোমারই জন্য রোজা রেখেছি এবং তোমারই দেয়া রিজিক দ্বারা ইফতার করছি। নবীয়ে করীম (সা.) বলেন- তিন ব্যক্তির দোয়া ব্যর্থ হয় না। এক. ন্যায়পরায়ণ বাদশার দোয়া। দুই. ইফতারের সময় রোজাদারের দোয়া। তিন. মজলুমের দোয়া (জালিম, যারা অন্যায়ভাবে মজলুমের উপর অত্যাচার, নির্যাতিন ও নিপীড়ন করে)।  আরেকটি হাদিসে বর্ণিত হয়েছে যে মহানবী (সা.) ইফতার শেষে এই দোয়া পাঠ করতেন, পিপাসা নিবারণ হয়েছে, শিরা-উপশিরা সিক্ত হয়েছে, ইনশাআল্লাহ সওয়াবও নির্ধারিত হয়েছে।  সেহরি: রোজা রাখার নিয়তে শেষ রাতে খাদ্য গ্রহণ করাকে সেহরি বলা হয়। সেহরি খাওয়া সুন্নত। সুবহে সাদিকের একটু পূর্বে সেহরি খাওয়া মুস্তাহাব। প্রিয়নবী (সা.) বলেন- তোমরা সেহরি খাও এতে অত্যন্ত বরকত নিহিত রয়েছে (মুসলিম শরীফ)। অন্য এক হাদিসে বলা হয়েছে আমাদের রোজা ও আহলে ফিতারের রোজার মধ্যে পার্থক্য হলো: আমরা সেহরি খাই আর ওরা খায় না। সেহরির বরকত ইহকাল ও পরকাল উভয়ের জন্যই হতে পারে। সেহরি খাওয়ার মাধ্যমে রাসুল (সা.)-এর সুন্নত প্রতিষ্ঠা হয়। এটা অধিক সওয়াবের কারণ এভাবে সেহরি খাওয়ার মাধ্যমে রোজা রাখার শক্তি অর্জিত হয়। রোজা রাখা সহজ হয় এবং রোজার কোন ক্ষতির সম্ভাবনা থাকে না।  হযরত আবু সাইদ খুদরী (রাঃ) বলেন নবীয়ে করীম (সা.) বলেছেন যে, তোমরা সেহরি খাও। যদি এক ঢোক পানিও হয়। অন্যত্র বলেছেন যদি এক লোকমা খাদ্যও হয়। এখানে সেহরির বরকতের বিভিন্ন দিক হতে পারে যেমন: নবীর সুন্নতের অনুসরণ, আহলে কিতাব (ইহুদি-নাছারাদের বিরোধিতা) ইবাদতে পূর্ণ শক্তি, তাকওয়া অর্জন, অধিক প্রফুল্লতা লাভ, ক্ষুধার তাড়নায় সৃষ্ট প্রবৃত্তির কামনা নিবারণ যারা একত্রে বসে সেহরি খায় এবং তাদের প্রতি বরকত অবতরণ চায়, সেহরির সময় দোয়া কবুল হয়। রোজার নিয়ত ভুলে গেলে নিয়ত করার সুযোগ ইত্যাদি। আমাদের খেয়াল রাখতে হবে সেহরি ও ইফতারিতে হালাল উপার্জনের খাদ্যদ্রব্য আহার করা উচিত। রমজান মাসের এই হালাল উপার্জন থেকে আমাদিগকে শিক্ষা নিতে হবে যে, সর্ব অবস্থায় আমাদেরকে মৃত্যুর পূর্ব পর্যন্ত রমজানের এই প্রশিক্ষণের যথাযথ অনুসরণ এবং অনুকরণ করতে পারি।

এ জাতীয় আরও খবর

হজযাত্রী নিবন্ধনের সময় বাড়লো

খালেদাকে পদ্মা সেতুতে তুলে নদীতে ফেলে দেওয়া উচিত: প্রধানমন্ত্রী

বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় হত্যা, চারজনের যাবজ্জীবন

সিলেটে বন্যার্তদের পাশে পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ক্লাসরুমে ফ্যান খুলে পড়ে চার ছাত্রী আহত

ঘরে বসে খুব সহজেই করে ফেলুন পার্লারের মতো হেয়ার স্পা

সামরিক সহায়তা চাইলো মিয়ানমারের ছায়া সরকার

হত্যা মামলায় তিন ভাইসহ চারজনের যাবজ্জীবন

এমপির গাড়িবহরে ট্রাকচাপায় লাশ হলেন ছাত্রলীগ নেতা

কান উৎসবে বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের ট্রেইলার, ফ্রান্সের পথে তথ্যমন্ত্রী

শ্রমিকের তীব্র সঙ্কট, বৃষ্টিতে তলিয়ে যাচ্ছে ধান

পল্লবীর অনুপস্থিতিতে ফ্ল্যাটে কে আসতেন, মুখ খুললেন পরিচারিকা