বৃহস্পতিবার, ১৯শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ভর্তি নীতিমালা মানছে না রাজধানীর একাধিক কলেজ

news-image

ক্যাম্পাস প্রতিবেদক : নিজস্ব নিয়মে শিক্ষার্থী ভর্তি করতে প্রস্তুতি নিচ্ছে এসব প্রতিষ্ঠান। একাদশ শ্রেণির ভর্তি নীতিমালা মানছে না রাজধানীর একাধিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এ কারণে প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিজ্ঞপ্তি ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। এতে বিপাকে পড়েছে শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করেছে, পছন্দের তালিকায় এসব কলেজ থাকার পরও তারা আবেদন করতে পারছে না।
বিগত কয়েক বছরের মতো এবারো মাধ্যমিক পরীক্ষার ফলের ভিত্তিতে শিক্ষার্থী ভর্তির সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এবার সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অনলাইনে ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু করার নির্দেশ দিয়ে গত সোমবার ভর্তি নীতিমালা জারি করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। আগামী ১ জুলাই থেকে ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ক্লাস শুরু হবে। গত ৩০ মে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়, যাতে উত্তীর্ণ হয়েছে ৮৭ দশমিক ০৪ শতাংশ শিক্ষার্থী। ভর্তি নীতিমালা অনুযায়ী, এবারের এসএসসিতে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী ছাড়াও ২০১৩ ও ২০১৪ সালে পরীক্ষায় উত্তীর্ণরাও একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি হতে পারবে।
অথচ এ নীতিমালা মানছে না খোদ রাজধানীর সুনামধারী কলেজগুলো। জানা গেছে, হলিক্রস, নটরডেম, রাজউকসহ বেশকটি সুপরিচিত কলেজ নিজেদের ইচ্ছা অনুযায়ী ভর্তি কার্যক্রম সম্পন্ন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এ কারণে স্ব স্ব প্রতিষ্ঠানে ভর্তিসংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি লাগানো হয়েছে।
তাতে বলে হয়েছে, ‘উল্লেখিত প্রতিষ্ঠানের নিয়মে একাদশ শ্রেণির ভর্তি কার্যক্রম সম্পন্ন করা হবে। তাই অনলাইনে বা খুদে বার্তায় আবেদন করলে তা গণ্য হবে না বলে কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তাই অনলাইনে নয়, প্রতিষ্ঠান থেকে আবেদনপত্র সংগ্রহ করে তা নির্ধারিত সময়ে জমা দেওয়ার অনুরোধ করা হচ্ছে।’
ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করেন, পছন্দের তালিকায় এসব কলেজ থাকার পরও আমরা আবেদন করতে পারছি না। তারা সংশ্লিষ্টদের সহায়তা কামনা করেছেন।
এ বিষয়ে হলিক্রস স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা সিস্টার শিখা গোমেজ জানান, হলিক্রস স্কুল অ্যান্ড কলেজ একটি মিশনারি প্রতিষ্ঠান। ট্রাস্ট্রি বোর্ড এর তত্ত্বাবধান করে থাকে। তাই ট্রাস্ট্রি বোর্ড যে সিদ্ধান্ত নেবে, তাই বাস্তবায়ন করা হবে। সরকারি নীতিমালা বিষয়ে তিনি কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।
স্কুল সূত্রে জানা যায়, বাণিজ্যিকভাবে অধিক লাভবান হওয়ার চিন্তা থেকে সুনামধারী প্রতিষ্ঠানগুলো অনলাইনের আওতায় ভর্তি কার্যক্রমে বিঘœ সৃষ্টি করছে। ইতোমধ্যে তারা বাণিজ্যিকভাবে তা সম্পন্ন করতে সকল প্রস্তুতি নিয়েছে।
এ বিষয়ে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা (মাউশি) অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ফাহিমা খাতুন বলেন, সবাইকে সরকারি নীতিমালা মানতে হবে। বিশেষ কারো জন্য আলাদা আইন করা হবে নাÑ মন্তব্য করে তিনি বলেন, কয়েক প্রতিষ্ঠানের প্রধানরা নীতিমালার আওতায় না আসতে বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করছেন। তাদের ছাড় দেওয়া হবে না।

এ জাতীয় আরও খবর

হজযাত্রী নিবন্ধনের সময় বাড়লো

খালেদাকে পদ্মা সেতুতে তুলে নদীতে ফেলে দেওয়া উচিত: প্রধানমন্ত্রী

বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় হত্যা, চারজনের যাবজ্জীবন

সিলেটে বন্যার্তদের পাশে পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ক্লাসরুমে ফ্যান খুলে পড়ে চার ছাত্রী আহত

ঘরে বসে খুব সহজেই করে ফেলুন পার্লারের মতো হেয়ার স্পা

সামরিক সহায়তা চাইলো মিয়ানমারের ছায়া সরকার

হত্যা মামলায় তিন ভাইসহ চারজনের যাবজ্জীবন

এমপির গাড়িবহরে ট্রাকচাপায় লাশ হলেন ছাত্রলীগ নেতা

কান উৎসবে বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের ট্রেইলার, ফ্রান্সের পথে তথ্যমন্ত্রী

শ্রমিকের তীব্র সঙ্কট, বৃষ্টিতে তলিয়ে যাচ্ছে ধান

পল্লবীর অনুপস্থিতিতে ফ্ল্যাটে কে আসতেন, মুখ খুললেন পরিচারিকা