বৃহস্পতিবার, ১৮ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৩রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়ক সাত দিনের মধ্যে মেরামতের নির্দেশ

obaidul kader-2অনলাইন ডেস্ক : কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কের বেহাল অবস্থার জন্য সড়ক ও জনপথের (সওজ) সংশ্লিষ্ট লোকজনের অবহেলা রয়েছে। সময়মতো মহাসড়কটি মেরামত না হওয়ায় সড়কের অনেক অংশে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। আগামী সাত দিনের মধ্যে সড়কটি মেরামত করে চলাচলের উপযোগী করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের গতকাল রোববার সরেজমিনে সড়ক পরিদর্শনে এসে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ার তন্তর বাজারে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন। কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়ক নিয়ে ‘গর্ত, খানাখন্দে মরণফাঁদ’ শিরোনামে গতকাল একটি সচিত্র প্রতিবেদন ছাপা হয়। এই প্রতিবেদনের পর মন্ত্রী সরেজমিনে সড়কটি পরিদর্শনে আসেন।

স্থানীয় ব্যক্তিরা জানান, মন্ত্রী গতকাল সন্ধ্যায় সড়কের আখাউড়ার তন্তর বাজার এলাকা অতিক্রম করার সময় স্থানীয় লোকজন তাঁকে সড়কটি দেখার আহ্বান জানান। পরে তিনি তন্তর বাজারে নেমে স্থানীয় লোকজনকে আগামী সাত দিনের মধ্যে সড়কটি চলাচলের উপযোগী করার আশ্বাস দেন।

এ সময় সাংবাদিকদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, দায়িত্বে অবহেলার জন্য সওজ কুমিল্লা কার্যালয়ের একজন উপসহকারী প্রকৌশলীসহ দুজনকে শোকজ করা হয়েছে। সড়কের অনেক স্থান ভালো, কিছু কিছু অংশ খারাপ। এ অবস্থা অবহেলার কারণে হয়েছে। টানা বর্ষণে সড়কে পানি জমেছে, কিন্তু পানি সময়মতো সরানো হয়নি। যে কারণে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। সড়ক মেরামতের যে নিয়ম রয়েছে, এই সড়কের বেলায় সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা তা মানেননি বলেই মনে হয়েছে।

৮২ কিলোমিটার সড়কের ২২ কিলোমিটার কেন বারবার খারাপ হচ্ছে, তা তদন্ত করতে যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব জামাল উদ্দিনকে প্রধান করে তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই কমিটি আগামী শুক্র ও শনিবার সরেজমিনে রাস্তা দেখবে এবং ঢাকায় গিয়ে প্রতিবেদন দেবে বলেও মন্ত্রী জানিয়েছেন। সওজ কুমিল্লার আঞ্চলিক কার্যালয়ের প্রধান প্রকৌশলীকে আগামী সাত দিনের মধ্যে সড়কটিকে যান চলাচলের উপযোগী করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা যেকোনো মূল্যে সড়কটিকে উপযোগী করব।’