শুক্রবার, ৩১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ১৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

৭ খুনের ঘটনায় মেয়র আইভীকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে

IV...ডেস্ক রির্পোট : নারায়ণগঞ্জের চাঞ্চল্যকর সাত খুনের ঘটনায় নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভীকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় গঠিত তদন্ত কমিটি।সোমবার পৌনে ১১টার দিকে সচিবালয়ে তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব শাহজাহান আলী মোল্লার কক্ষে এ জিজ্ঞাসাবাদ শুরু হয়।রোববারই সচিবালয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে এমন তথ্য সাংবাদিকদের জানান জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় গঠিত তদন্ত কমিটির সদস্য সচিব আবুল কাশেম মো. মহীউদ্দীন।তিনি বলেন, সোমবার সকাল ১০টায় মেয়র আইভীকে এবং মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টায় শামীম ওসমানকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। এই তদন্ত কমিটি এ পর্যন্ত ৩৫০ জনের বেশি মানুষকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে, যাদের মধ্যে র‌্যাবের শীর্ষ কর্মকর্তারাও রয়েছেন। আগামী ৯ই সেপ্টেম্বরের মধ্যে আদালতে চূড়ান্ত তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের কথা রয়েছে।

এর আগে ওই ঘটনায় দায়ের করা মামলার প্রধান আসামি কলকাতার কারাগারে আটক নূর হোসেনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে কিনা জানতে চাইলে এ নিয়ে চিন্তাভাবনা চলছে বলেও জানান তিনি।

আলোচিত সাত খুনের ঘটনা প্রকাশের পর আলোচনায় আসে এমপি শামীম ওসমান ও মেয়র আইভীর বিরোধের বিষয়। এ নিয়ে পাল্টাপাল্টি বক্তব্যও দেয় দুই পক্ষ। একটি অডিও টেপ প্রকাশ করে শামীম আঙুল তোলেন আইভীর এক ঘনিষ্ঠজনের দিকে।

অন্যদিকে একেক সময় একেক রকম বক্তব্য দিয়ে আলোচনায় ছিলেন এমপি শামীম ওসমান। ঘটনার পরই নিহত কাউন্সিলর নজরুল ইসলামের শ্বশুর শহীদুল ইসলাম অভিযোগ আনেন র‌্যাব ছয় কোটি টাকার বিনিময়ে এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে। র‌্যাবের বিরুদ্ধে হত্যাকাণ্ডে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ ওঠার পর র‌্যাব ১১-এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল তারেক সাঈদ মোহাম্মদ, মেজর আরিফ হোসেন এবং লেফটেন্যান্ট কমান্ডার এমএম রানাকে বাধ্যতামূলক অবসর দেয়া হয়। গ্রেপ্তার হওয়ার পর কয়েক দফায় জিজ্ঞাসাবাদে হত্যাকাণ্ডে নিজেদের দোষ স্বীকার করে আদালতে তারা জবানবন্দিও দেন।

খুনের ঘটনা আগে থেকেই জানতেন বলে সে সময় র‌্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালক কর্নেল জিয়াউল আহসানের বিরুদ্ধেও অভিযোগ ওঠায় তাকেও জিজ্ঞাসাবাদ করেছে এ কমিটি।

উল্লেখ্য, গত ২৭শে এপ্রিল দুপুরে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোড থেকে অপহৃত হন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র ও কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম, জ্যেষ্ঠ আইনজীবী চন্দন সরকারসহ সাতজন। এর তিন দিন পর ৩০শে এপ্রিল শীতলক্ষ্যায় একে একে ভেসে ওঠে তাদের মরদেহ। এরা হলেন- এক গাড়িতে থাকা কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম, তার সঙ্গী তাজুল ইসলাম, মনিরুজ্জামান স্বপন, লিটন ও তার গাড়িচালক জাহাঙ্গীর আলম এবং আরেকটি গাড়িতে থাকা আইনজীবী চন্দন সরকার ও তার গাড়িচালক ইব্রাহিম।

এ জাতীয় আরও খবর

নজরুল পুরস্কার পেলেন চার গুণী

জামানত হারিয়েছেন ওবায়দুল কাদেরের ভাই শাহাদাত

ভিসা হয়নি ২৯২ হজযাত্রীর, ৯ এজেন্সির ব্যাখ্যা তলব

শাকিবের জীবনে প্রথম প্রেমিকা আমি : অপু বিশ্বাস

সাকিবের দলে খেলবেন মিলার

র‍্যাবের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার উত্তম কুমারের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা

বেনজীরের বিরুদ্ধে টাকা সরানোর প্রমাণ পেয়েছে দুদক

ঈদযাত্রায় একদিন একটু কষ্ট হলে কী আসে-যায়: কাদের

ফরিদপুর-১ আসনের সাবেক এমপি মনজুর হোসেন আর নেই

দস্যুতা না ছাড়লে দুঃসংবাদের খবর দিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

‘দেশের সবচেয়ে লাভজনক’ কক্সবাজার স্পেশাল ট্রেন বন্ধ

সরকারের স্বার্থ নয়, জনগণের অধিকার নিশ্চিতে কাজ করব : ইসির নতুন সচিব