শুক্রবার, ২১শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৭ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

চীন সফর শেষে দেশে ফিরছেন প্রধানমন্ত্রী

hasina 1প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৬-দিনের চীন সফর শেষে আজ বুধবার বেইজিং থেকে দেশে ফিরছেন। প্রধানমন্ত্রী ও তাঁর সফরসঙ্গীদের নিয়ে বাংলাদেশ বিমানের একটি ভিভিআইপি ফ্লাইট বাংলাদেশ সময় সকাল ৯টায় বেইজিং আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করবে। ফ্লাইটটি বুধবার বেলা ২টা ১০ মিনিটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছাবে বলে আশা করা হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী চীন সফরের প্রথম পর্যায়ে দক্ষিণাঞ্চলীয় কুনমিং নগরীতে যান। সেখান থেকে তিনি চীনের রাজধানীর উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন। কুনুমিং অবস্থানকালে শেখ হাসিনা দ্বিতীয় চীন-দক্ষিণ এশিয়া এক্সপো’র উদ্বেধনী অনুষ্ঠান এবং ইউনান প্রদশের গভর্নর লি জিহেং-এর দেয়া এক ভোজসভায় যোগ দেন। তিনি নবম চীন-দক্ষিণ এশিয়া বিজনেস ফোরামে মূল বক্তব্যও পেশ করেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৮ জুন বেইজিং পৌঁছালে তাঁকে লাল গালিচা সম্বর্ধনা দেয়া হয়। চীনের রাজধানীতে অবস্থানকালে তিনি সে দেশর প্রধানমন্ত্রী লি কেকিয়াং-এর সংগে আনুষ্ঠানিক বৈঠক করেন।

আনুষ্ঠানিক আলোচনা শেষে দু’দেশের ৭টি দলিল স্বাক্ষরিত হয়। এগুলোর মধ্যে রয়েছে দুটি চুক্তি, একটি সমঝোতা স্মারক এবং দুটি পত্র বিনিময় (ইএল)। পরে বাংলাদেশ ও চীনের মধ্যে আরো দুটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়। চুক্তিগুলো হচ্ছে- বাংলাদেশ ও চীনের মধ্যে অর্থনৈতিক ও কারিগরি সহযোগিতা এবং পটুয়াখালীতে যৌথ উদ্যোগে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা সংক্রান্ত। সমঝোতা স্মারকগুলো হচ্ছেÑ চট্টগ্রামে চীনের অর্থনৈতিক ও বিনিয়োগ অঞ্চল প্রতিষ্ঠা, কর্ণফুলী নদীর তলদেশে টানেল নির্মাণ এবং মুন্সিগঞ্জ জেলার গজারিয়ায় গার্মেন্টস পল্লী প্রতিষ্ঠা। পত্র বিনিময়গুলো (ইএল) হচ্ছেÑ বাংলাদেশ ও চীন সরকারের মধ্যে দুর্যোকালীন উদ্ধার সরঞ্জামের দ্বিতীয় ব্যাচ এবং বাংলাদেশে বন্যা নিয়ন্ত্রণ ও ব্যবস্থাপনার সম্ভাব্যতা জরিপ সংক্রান্ত পত্র বিনিময়।

সফরকালে শেখ হাসিনা চীনের প্রেসিডেন্ট জি জিনপিং-এর সংগে সাক্ষাৎ এবং চীনের পিপলস পলিটিকাল কনসালটেটিভ কনফারেন্সের রেচয়ারম্যান জু ঝেংশেং-এর সংগে বৈঠক করেন। প্রধানমন্ত্রী তিয়ান আন মেন স্কয়ারে জনবীরদের স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ এবং বেইজিং চাওইয়াং থিয়েটার ও এ্যাক্রোবেটিক ওয়ার্ল্ড পরিদর্শন করেন। শেখ হাসিনা তাঁর সম্মানে চীনের প্রধানমন্ত্রী লি কেকিয়াং-এর দেয়া এক ভোজসভায়ও যোগ দেন।

চীন সফরকালে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে অন্যান্যের মধ্যে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী, প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম, প্রধানমন্ত্রীর মিডিয়া উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, পররাষ্ট্র সচিব শহিদুল হক এবং প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব এ কে এম শামীম চৌধুরী ছিলেন।
এ ছাড়াও এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি কাজি আকরাম উদ্দিন আহমেদের নেতৃত্বে ৭০ সদস্যের একটি ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদলও প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সংগে চীন সফর করেন।