বৃহস্পতিবার, ১৮ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৩রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভাগ্যপরীক্ষার ২২ ম্যাচ

বিশ্বকাপ, দ্য গ্রেটেস্ট শো অন আর্থের পর্দা ওঠার আর মাত্র ২২ দিন বাকি। দুরু দুরু বুকে ফুটবলপ্রেমীরা ক্ষণগণনা শুরু করে দিয়েছেন নিশ্চয়ই। শুরু হয়েছে প্রথম আলো অনলাইনেরও ‘কাউন্ট ডাউন’। প্রতিদিন ধারাবাহিকভাবে ক্ষণগণনা নিয়ে একটি বিশেষ রচনা থাকছে। আজ থাকছে ‘২২’ সংখ্যাটি নিয়ে—

বিশ্বকাপে টাইব্রেকারের প্রচলন হয় ১৯৮২ সালে। সেবার পশ্চিম জার্মানি ও ফ্রান্সের মধ্যকার সেমিফাইনাল ম্যাচটির নিষ্পত্তি প্রথমবারের মতো হয় শুট-আউটের মাধ্যমে। ২০১০ সালের বিশ্বকাপে উরুগুয়ে ও ঘানার মধ্যকার কোয়ার্টার ফাইনালটি টাইব্রেকারের মাধ্যমে নিষ্পত্তি হওয়া সর্বশেষ ম্যাচ।

 ফুটবলের বিশ্ব আসরে টাইব্রেকারের মাধ্যমে ফল-নির্ধারিত ম্যাচের সংখ্যা মোট ২২। জার্মানি, আর্জেন্টিনা, ফ্রান্স, ইতালি—এই চার বিশ্বচ্যাম্পিয়নই মোট চারবার করে টাইব্রেকারের মুখোমুখি হয়েছে। এর মধ্যে জার্মানির জয়ের রেকর্ড শতভাগ।

বিশ্বকাপ ইতিহাসে দুটি ফাইনালে শিরোপার নিষ্পত্তি হয়েছে টাইব্রেকারে। এই দুই ফাইনালেই অন্যতম প্রতিদ্বন্দ্বী দল ছিল ইতালি। ১৯৯৪ সালের যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বকাপের ফাইনালের টাইব্রেকারে তারা ব্রাজিলের কাছে ৩-২ গোলে হেরে গেলেও ২০০৬ সালে ফ্রান্সকে ৫-৪ গোলে হারিয়ে ভাগ্যকে নিয়ে নেয় নিজেদের দখলে।

এ জাতীয় আরও খবর