বৃহস্পতিবার, ৩০শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৬ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নৌ কর্মকর্তার সন্ধান মেলেনি ভোররাতে গ্রেপ্তার সাবেক দুই সেনা কর্মকর্তা

নারায়ণগঞ্জে সাতজনকে অপহরণ ও খুনের ঘটনায় অবসরে পাঠানো র‌্যাব-১১-এর সাবেক অধিনায়ক লে. কর্নেল তারেক সাঈদ মোহাম্মাদ ও মেজর আরিফ হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আজ শনিবার ভোররাতের দিকে মিলিটারি পুলিশের সহায়তায় নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ তাঁদের ঢাকা সেনানিবাসের বাসভবন থেকে গ্রেপ্তার করে।

তবে এ ঘটনায় অবসরে পাঠানো নৌবাহিনীর কর্মকর্তা ও র‌্যাবের নারায়ণগঞ্জ ক্যাম্পের সাবেক প্রধান লে. কমান্ডার এম এম রানাকে গ্রেপ্তার করা হয়নি৷তাঁর অবস্থান সম্পর্কে গোয়েন্দা কর্মকর্তারা  নিশ্চিত হতে পারেননি৷  

দুই কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তারের বিষয়ে নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার খন্দকার মহিদ উদ্দিন প্রথম আলোকে বলেন, ‘সম্ভবত তাঁদের আটক করে সঙ্গে সঙ্গে নারায়ণগঞ্জে নেওয়া হয়েছে।’ ভোর চারটা ৩৫ মিনিটে গ্রেপ্তার দুই কর্মকর্তাকে নিয়ে পুলিশ নারায়ণগঞ্জে পৌঁছেছে বলে আমাদের নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি জানিয়েছেন৷ 

অভিযানে অংশ নেওয়া পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, গতকাল শুক্রবার দিবাগত রাত তিনটার দিকে নারায়ণগঞ্জ জেলা গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল ঢাকা সেনানিবাসে পৌঁছে মিলিটারি পুলিশের সঙ্গে বৈঠক করে। ভোররাত সাড়ে তিনটার দিকে গোয়েন্দা পুলিশ ও মিলিটারি পুলিশের যৌথ দল সাবেক এ দুজন সেনা কর্মকর্তার বাসায় যান এবং তাঁদের গ্রেপ্তার করেন৷আজ ভোর চারটার দিকে পুলিশ তাঁদের নিয়ে নারায়ণগঞ্জে রওনা হন৷

সাত খুনের ঘটনার পর র‌্যাব-১১-এর এই তিন কর্মকর্তাকে নিজ নিজ বাহিনীতে ফেরত নেওয়া হয়৷ তারপর তাঁদের অবসরে পাঠানো হয়। ১১ মে হাইকোর্ট তাঁদের গ্রেপ্তারের নির্দেশ দেন৷  

ওই নির্দেশের পরপর ১২ মে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় মতামত চেয়ে প্রতিরক্ষাসচিবকে চিঠি পাঠায়। ১৫ মে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়  থেকে ওই চিঠির জবাব দেওয়া হয়৷ এতে বলা হয়, ‘আপনাদের সদয় অবগতির জন্য উল্লেখ করা যাচ্ছে যে হাইকোর্টের নির্দেশনার আলোকে আইন প্রয়োগকারী সংস্থা কর্তৃক এ ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট অবসরপ্রাপ্ত সেনাসদস্যদ্বয় সম্পর্কে দেশের প্রচলিত  ফৌজদারি আইন অনুযায়ী কার্যক্রম গ্রহণ করা যেতে পারে।’

গত ২৭ এপ্রিল দুপুরে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোড থেকে অপহূত হন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম, জ্যেষ্ঠ আইনজীবী চন্দন সরকারসহ সাতজন। এর তিন দিন পর ৩০ এপ্রিল ছয়জনের ও পরদিন আরও একজনের লাশ শীতলক্ষ্যায় ভেসে ওঠে। এ ঘটনায় নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নূর হোসেনকে প্রধান আসামি করে মামলা করে নজরুলের পরিবার।  ৪ মে নজরুলের শ্বশুর শহীদুল ইসলাম ওরফে শহীদ চেয়ারম্যান সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেন, ছয় কোটি টাকার বিনিময়ে র‌্যাবের তিন কর্মকর্তা ওই সাতজনকে অপহরণ ও খুন করেছেন।

তিন কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তারে বিষয়ে স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান গতকাল শিল্পকলা একাডেমীতে এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের  জবাবে  বলেছিলেন, ‘আমরা বসে নেই।  ধীরগতিতে হলেও তদন্ত এগিয়ে যাচ্ছে।  জড়িত ব্যক্তিদের বিচার হবেই। ’

নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার খন্দকার মহিদ উদ্দিন প্রথম আলোকে বলেছিলেন, বৃহস্পতিবার রাতে সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের একটি চিঠি নারায়ণগঞ্জ পুলিশের হাতে এসে পৌঁছেছে। যত দ্রুত সম্ভব হাইকোর্টের নির্দেশ কার্যকর করা হবে।

নারায়ণগঞ্জ পুলিশের একটি দায়িত্বশীল সূত্র জানিয়েছে, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ থেকে দুই সেনা কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তারের সবুজ সংকেত পাওয়ার পর পুলিশের একটি দল কাজ শুরু করেছে। এর ভিত্তিতেই রাতে অভিযান চালানো হয়।  

নারায়ণগঞ্জে অভিযান: বৃহস্পতিবার ক্রোক অভিযান চলার সময় নূর হোসেনের বাড়ি থেকে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় মামলা করেছে পুলিশ। এ ছাড়া নূর হোসেনের দুই সহযোগীকে দুই দিন করে রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ।

নারায়ণগঞ্জের পুলিশ জানায়, সাত খুনের ঘটনায় নূর  হোসেনের দুই সহযোগী রফিকুল ইসলামকে ডেমরা থেকে বৃহস্পতিবার রাতে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে তাঁকে বিচারিক হাকিম কে এম মহিউদ্দিনের আদালতে হাজির করে সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন জানালে আদালত দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। একই আদালত এ মামলার আরেক আসামি আরিফুজ্জামানকে আবার দুই দিনের রিমান্ডে নেওয়ার আদেশ দিয়েছেন। অন্য সাত আসামিকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

সাতজনের লাশের সঙ্গে পাওয়া বস্তা, রশি ও ইট মামলার গুরুত্বপূর্ণ আলামত। এগুলো যথাযথভাবে সংরক্ষণের ব্যবস্থা  নেওয়া হয়েছে কি না, জানতে চাইলে মহিদ উদ্দিন বলেন, সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে আলামতগুলো সংরক্ষণ করা হচ্ছে।

এ জাতীয় আরও খবর

যুদ্ধাপরাধে হবিগঞ্জের শফির প্রাণদণ্ড, তিনজনের আমৃত্যু কারাদণ্ড

কর্মী সংকট : যুক্তরাষ্ট্রে একদিনে ৬ শতাধিক ফ্লাইট বাতিল

১০ দিনে তিস্তার পানি ৫ বার বিপদসীমার ওপরে, আবারও বন্যার আশঙ্কা

তিনদিনের ব্যবধানে ৪ সাহিত্যিকের বিদায়

সিলেটে বন্যায় ৭২ লাখ মানুষের সহায়তা প্রয়োজন

পদ্মা সেতুর নাট খোলা বায়েজিদ ক্ষমা চাচ্ছেন: সিআইডি

চলতি অধিবেশনে ৯০ শতাংশ সময় ব্যয় হয়েছে পদ্মা সেতুর আলোচনায় : রুমিন

‘আবারও অঘটন’ ঘটালেন অপূর্ব!

ইউপি সদস্যকে গুলি করে হত্যা

একাকিত্ব সইতে না পেরে গলায় ফাঁস নিলেন শিক্ষক!

এবার বঙ্গবন্ধু এক্সপ্রেসওয়েতেও মোটরসাইকেল নিষিদ্ধ হচ্ছে!

ষড়যন্ত্রের ফলে পদ্মা সেতু নির্মাণে দেরি হয়েছে : প্রধানমন্ত্রী