মঙ্গলবার, ২৭শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ১৪ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

সন্ত্রাসী,চাঁদাবাজ ও মামলাবাজের কবল থেকে রেহাই চায় নাসিরনগরবাসী

MinKMনাসির নগর,ব্রাহ্মণবাড়িয়াঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার ভলাকুট ইউনিয়নের বালিখোলা গ্রামের  দুই সন্ত্রাসী,চাঁদাবাজ,মামলাবাজ, ও দাঙ্গাবাজের কবল থেকে রক্ষা পেতে চায় এলাকার শান্তিপ্রিয় জনগন। দুই সন্ত্রাসী,চাঁদাবাজ, ও মামলাবাজের ভয়ে নিরাপত্তাহীনতা ভোগছে এলাকার অনেক পরিবার, বলে লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। ১৬ এপ্রিল বালিখোলা গ্রামের নিরীহ ইদু‘ মিয়ার ছেলে ব্যবসায়ী মোঃ সফিকুল ইসলাম ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পুলিশ সুপার ও পরে মহাপুলিশ পরিদর্শক,ক্যাম্প কমান্ডা র‌্যাব-৯ ভৈরব ভৈরব কিশোরগঞ্জ,চীপ কো-অর্ডিনেটর আইন সহায়তা কেন্দ্র(আসক) ফাউন্ডেশন বরাবরে লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছে।সফিকুল ইসলামের লিখিত অভিযোগের ভিওিতে জানা গেছে ,বালিখোলা গ্রামের মোঃ নাদু মিয়ার ছেলে মোঃ দানু মিয়া ও মৃত তালেব হোসেনের ছেলে মোঃ তৈয়ব হোসেন তারা দুইজন এলাকার চাঁদাবাজ,দাঙ্গাবাজ,সন্ত্রাসী ও মামলাবাজ প্রকৃতির লোক। তারা এলাকার ঘরে ঘরে,পাড়ায় পাড়ায় দ্বন্দ্ব সংঘাতের সৃষ্টি করে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে রেখেছে ।নিরীহ লোকজন কে বিভিন্ন মিথ্যা মামলা মোকদ্দমা দিয়ে অহেতুক  হয়রানী করে জনজীবন বির্পযস্ত করে তুলেছে ॥ এলাকার মানুষ বিপদে পড়ে যখন দানু মিয়ার  কাছে সুদি ্ঋনের জন্য  আসে ।দানু মিয়া তখন খালি ১৫০ টাকার ননজুডিশিয়াল ষ্টেম্পে স্বাক্ষর রেখে টাকা দেয় ।পরবর্তীতে টাকা পরিশোধ করার পর বলে  ষ্ট্যাম্পটি হরিয়ে গেছে । কিছু দিন পরে সেই  ষ্ট্যাম্পে তিন গুন টাকা লিখে আদালতে মামলার ভয় দেখিয়ে আবারো টাকা আদায় করে নেয় ।এভাবে কোন কোন ব্যাক্তির কাছ থেকে এক বারের টাকা দুই তিন বারও আদায় করে নেয় ।দানু মিয়া এলাকার প্রভাবশালী ব্যাক্তি হওয়া তাকে তৈয়ব হোসেন সহ বিভিন্ন লোকজন দানু মিয়া এ কাজে সহযোগিতা করে ।তারাও সেখান থেকে কমিশন পেযে থাকে বলে বিভিন্ন সুত্র্রে জানা গেছে ।তাদের ভয়ে সমাজের কেউ মুখ খুলে  টু শব্দটি ও করার সাহস পায় না। তাদের বিরোদ্ধে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড,  খুন ও চাঁদাবাজীর অনেক মামলা আদালতে চলমান ও বিচারাধীন রয়েছে। তৈয়ব হোসেন সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজ হওয়া জরূরী বিধিমালা আইন২০০৭ এর ১৬(২) ধারা ৬ মাস কারাভোগ করেছে ।দানু মিয়ার বিরোদ্ধে জি আর ১৪৮/০৮,জি,আর ১০৫/১৩, জি,আর, ১০৫/১৪, জি,আর, ৫০৮/১৩, নাসিরনগর থানার মামলা নং০৯ তাং-০৬/০৭/২০১৩,গংদের,বিরোদ্ধে জি, আর ৫০২/০৪,দন্ডবিধি ৩০২/৩৪, নাসিরনগর থানার মামলা নং০৭ তাং-২৪/০৪/৯৮। জি,আর ১৪৩/০১, পি,৪৬৪/০৮, পি৫০২/১৪এবং দন্ডবিধি ৩৮৬/৩৭৯ সহ অসংখ্য মামলা আদালতে চলমান রয়েছে। তারা নিরীহ লোকদের হয়রানী করার উদ্দেশ্যে জি আর, ১০৮/১৩, সি আর ২১০/১৩,জি আর ৫১০/১৩ দায়ের করিলে তদন্তে মিথ্যা প্রমাণিত হওয়ায় থানা থেকে ফাইনাল রির্পোট দেয় এবং আদালত মামলা গুলো নথিজাত করে। ব্যবসায়ী মোঃ সফিকুল ইসলাম জানায় তাদের এহেন কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে আমি কথা বলায় তারা আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে আমি ও আমার পরিবারকে হয়রানী করছে।এ বিষয়ে চাতলপাড় গ্রামের ধনুশাহের ছেলে দীপংকর রায়,মঙ্গুরায় ও বাপ্পন রায়,জুনু শাহের ছেলেদীপক শা দুর্গাপুর গ্রামের জারুন মিয়ার ছেলে সাহাদ মিয়া,মনিন্দ্র দাসের ছেলে মৃণাল কান্তি দাস,বালিখোলা গ্রামের কপির উদ্দিনের ছেলে মোঃ রেজেক মিয়া,চান মিয়ার ছেলে মোঃধন মিয়া ,শিশু মিয়ার ছেলে মোঃ রহিজ মিয়া,সেলিম মিয়া এ প্রতিনিধি কে জানান দানু মিয়া ও তৈয়ব হোসেনের অত্যাচারে তারা অতিষ্ট ও তাদের মিথ্যা মামলা মোকদ্দমার কারনে তারা আজ সর্বশান্ত ও রাস্তা বসে পড়েছে ।তারা জানান তাদের বিরোদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা সহ   একাধিদ  থাকলে ও অজ্ঞাত কারনে থানা পুলিশ তাদের গ্রেফতার করছে না ।অভিযোগ সম্পর্কে মোবাইল ফোনে জানতে চাইলে দানু মিয়া বলেন সফিকের বিরুদ্ধে আমাদের মামলা মোকদ্দমা রয়েছে। তাই সে আমাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছে ।

এ জাতীয় আরও খবর

রোহিঙ্গাদের জন্য ৬৯ মিলিয়ন ডলারের সহায়তা দিচ্ছে জাপান

আফগানিস্তানে দুই হাজার মানুষের সামনে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর

ওষুধ ও হার্টের রিংয়ের দাম কমাতেই হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

বুধবার ১৫ ঘণ্টা গ্যাস থাকবে না যেসব এলাকায়

সংরক্ষিত আসনের এমপিদের গেজেট প্রকাশ

দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন জনপ্রিয় অভিনেত্রীসহ ৯ জন

ভারতীয় বিমানবাহিনী প্রধানের সঙ্গে সশস্ত্র বাহিনীর প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসারের সৌজন্য সাক্ষাৎ

গ্রামের মেধাবীদের জন্য বিশ্বমানের শিক্ষার পরিবেশ তৈরি হবে : পলক

ওবায়দুল কাদের বিএনপির বিকল্প স্থায়ী কমিটির সদস্য: রিজভী

বিদ্যুতে ব্যবহৃত গ্যাসের দাম বাড়ল ৭৫ পয়সা

‘পুলিশ জনগণের বন্ধু’ এটি প্রতিষ্ঠিত সত্য: প্রধানমন্ত্রী

পঙ্কজ উদাসকে কোনো দিন গোমড়া মুখে দেখিনি: রুনা লায়লা