শুক্রবার, ১লা জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৭ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মার্টিনো সংশয়ী নিজ যোগ্যতা নিয়েই

সংশয়টা শুরু থেকেই ছিল। জেরার্ডো মার্টিনো বার্সেলোনার কোচ হিসেবে সফল হতে পারবেন কি না, তা নিয়ে সন্দিহান ছিলেন অনেকেই। ইউরোপিয়ান ফুটবলে যে কোনো অভিজ্ঞতাই ছিল না এই আর্জেন্টাইন কোচের। সন্দেহ-সংশয়কে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে শুরুটা অবশ্য ভালোভাবেই করেছিলেন মার্টিনো। অনেক দিনই লা লিগার পয়েন্ট তালিকায় শীর্ষে ছিল কাতালানরা। কিন্তু মৌসুমের শেষপর্যায়ে এসে মার্টিনো নিজেই সন্দেহ প্রকাশ করলেন নিজের যোগ্যতা নিয়ে।



কোপা ডেল রে, চ্যাম্পিয়নস লিগের পর লা লিগার শিরোপা জয়ের লড়াই থেকেও ছিটকে পড়েছে বার্সেলোনা। গতকাল নিচের সারির দল গেটাফের বিপক্ষে ২-২ গোলে ড্র করার পর কার্যত শেষই হয়ে গেছে বার্সার শিরোপা জয়ের সম্ভাবনা। মৌসুমের শুরুতে জেতা সুপার কাপটাই কাতালানদের একমাত্র সফলতা। কিন্তু সেটা বার্সেলোনার মতো শীর্ষ ক্লাবের সমর্থকদের খুশি করার জন্য মোটেও যথেষ্ট নয়। এবারের মৌসুমে মাঠের বাইরের নানা বিতর্কেও টালমাটাল হয়েছিল বার্সা। কিন্তু এসব অজুহাত দিয়ে নিজের দায় এড়াতে চান না মার্টিনো, ‘আমার ভবিষ্যত্ নির্ধারণ করার সময় এখনো আছে। আমি দায় এড়ানো পছন্দ করি না। আর আমি নিজেকেই দোষী মনে করি। এবারের মৌসুমে আমাদের অনেক ত্রুটিবিচ্যুতি হয়েছে আর আমরা সেগুলো সমাধান করতে পারিনি।’



চরম হতাশাজনক একটা মৌসুম কাটলেও মার্টিনোকে ছাঁটাই করার কোনো কথাবার্তা এখনো পর্যন্ত শোনা যায়নি বার্সেলোনার কর্তাব্যক্তিদের কাছ থেকে। কিন্তু এবারের মৌসুম শেষে আর্জেন্টাইন এই কোচ নিজে থেকেই সরে দাঁড়ালে অবাক হওয়ার কিছু নেই। সরাসরি কিছু না বললেও গতকাল এমন ইঙ্গিতই দিয়েছেন মার্টিনো, ‘কখনো কখনো কেউ যদি নিজেকে যোগ্য বলে মনে করে তাহলে সে একটা সুযোগ চাইতে পারে। আর কখনো কখনো নতুন সুযোগ চাওয়ার প্রয়োজন পড়ে না। কারণ সে নিজেই নিজেকে যোগ্য মনে করে না।’



অথচ এই মার্টিনোই এ সময়ের অন্যতম সফল কোচ হিসেবে পরিচিতি পেয়েছিলেন লাতিন আমেরিকান ফুটবলে। ২০০৭ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত প্যারাগুয়েকে দারুণভাবে বদলে দিয়েছিলেন এই আর্জেন্টাইন কোচ। তাঁর অধীনেই ২০১০ বিশ্বকাপে প্রথমবারের মতো কোয়ার্টার ফাইনালে গিয়েছিল প্যারাগুয়ে। ২০১১ সালের কোপা আমেরিকাতে গিয়েছিল ফাইনাল পর্যন্ত।— গোল ডটকম

এ জাতীয় আরও খবর

ঈদের আগে ফ্রিজ পরিষ্কারের দারুণ কিছু টিপস

ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ২২

পদ্মা সেতু হওয়ায় দুশ্চিন্তায় দৌলতদিয়ার ১৪০০ হকার

বাসার নিচতলায় হাঁটুপানি, বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ২ জনের মৃত্যু

‘সোনার চর’ দিয়ে কাজে ফিরলেন মৌসুমী

কিশোরীকে ‘আই লাভ ইউ’ বলায় যুবকের কারাদণ্ড

কোক স্টুডিও বাংলায় গান গাইবেন ওস্তাদ রশিদ খান

সেই জিতুকে স্কুল থেকে আজীবন বহিষ্কার

জাতির কাছে নূপুর শর্মার ক্ষমা চাওয়া উচিত : ভারতীয় সুপ্রিম কোর্ট

যাত্রীর চাপে এক্সপ্রেসওয়ের টোল প্লাজায় বাড়ল বুথ

‘আমরা শেষ পর্যন্ত সিদ্ধান্তে অটল থাকতে পারলে আ.লীগ সরকার থাকবে না’

ভাইয়ের জানাজায় অংশ নিতে প্যারোলে মুক্তি পেলেন হাজী সেলিম