মঙ্গলবার, ৪ঠা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৯শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বাংলা ভাষা প্রচলনে সরকারের আগ্রহ নেই: হাইকোর্ট

news-image

সর্বত্র বাংলা ভাষা প্রচলনের নির্দেশ বাস্তবায়নের বিষয়ে ১৫ মের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বিবাদীদের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। আজ মঙ্গলবার বিচারপতি কাজী রেজাউল হক ও বিচারপতি এ বি এম আলতাফ হোসেন সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।





আদালতের নির্দেশনা বাস্তবায়ন বিষয়ে বিবাদীদের দাখিল করা প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে আদালত বলেন, ‘আদেশের সম্মতি পূরণ দেখে মনে হয়, প্রতিপক্ষ একে অপরকে চিঠি প্রেরণ ছাড়া বাংলা ভাষা প্রচলন বিষয়ে কার্যকর কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করে নাই…।’ আদালত বলেন, ‘সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের বাংলা ভাষা প্রচলনের বিষয়ে কোনো আগ্রহ নেই।’





এ অবস্থায় আদালত গত ১৭ ফেব্রুয়ারি দেওয়া রুলের আদেশ পালনে যথাযথ ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেন। একই সঙ্গে স্থানীয় সরকার ও জনপ্রশাসন সচিবকে পক্ষভুক্ত করার আদেশ দেন।





গত ১৭ ফেব্রুয়ারি এক রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে হাইকোর্টের একই বেঞ্চ এক মাসের মধ্যে দেশের সব সাইনবোর্ড, বিলবোর্ড, ব্যানার, গাড়ির নম্বর প্লেট, সরকারি দপ্তরের নামফলক (দূতাবাস, বিদেশি সংস্থা ও তত্-সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্র ব্যতীত) এবং ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ায় ইংরেজি বিজ্ঞাপন ও মিশ্র ভাষার ব্যবহার বন্ধ করার জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করে অবিলম্বে আদালতকে অবহিত করতে নির্দেশ দেন। পাশাপাশি আদালত রুলও জারি করেন। আদালতের নির্দেশনা অনুসারে মন্ত্রিপরিষদসচিব ও তথ্যসচিবের পক্ষ থেকে প্রতিবেদন দাখিল করেন রাষ্ট্রপক্ষের ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিত্ রায়। এ প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে আদালত ওই আদেশ দেন বলে জানান বিশ্বজিত্ রায়।

এ জাতীয় আরও খবর