বুধবার, ২৯শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৫ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

‘বাংলাদেশ এখন উন্নয়ন ও সম্ভাবনার দেশ’

বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত ড্যান ডব্লিউ মজীনা বলেছেন, ‘বাংলাদেশ এখন আর দরিদ্র দেশ নয়, মধ্যম আয়ের দেশ। বাংলাদেশ এখন উন্নয়ন ও সম্ভাবনার দেশ।’

আজ রোববার দুপুরে পাবনা সার্কিট হাউস মিলনায়তনে জেলা প্রশাসন, পুলিশ সুপার ও জেলার সুধীজনের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় মার্কিন রাষ্ট্রদূত এসব কথা বলেন।

পাবনা ভ্রমণ সম্পর্কে মার্কিন রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘আমি যখন প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের কাছে পরিচয়পত্র পেশ করি, তখনই বলেছিলাম, আমি সারা দেশ ঘুরে বেড়াব, বাংলাদেশকে জানব। এরই অংশ হিসেবে পাবনায় আসা।’

মজীনা বলেন, ‘আমার মনে হয়েছে, পাবনার কৃষি অর্থনীতি ভালো। এ জেলার একটি বাজারে প্রচুর পেঁয়াজ দেখেছি, যা বিস্ময়কর। তবে আমার মনে হয়েছে, এই জেলার কৃষিপণ্য সংরক্ষণের কোনো ব্যবস্থা নেই। কৃষকদের আরও লাভবান করতে এই কৃষিপণ্য সংরক্ষণের ব্যবস্থা করতে হবে।’

মার্কিন রাষ্ট্রদূত গত বছরের ২ নভেম্বর পাবনার বনগ্রামে হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর হামলার ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করে ঘটনার পরবর্তী পদক্ষেপ সম্পর্কে পুলিশ সুপারের কাছে জানতে চান।

এ সময় পাবনার পুলিশ সুপার মিরাজ উদ্দিন আহম্মেদ বলেন, ফেসবুকে মহানবী (সা.) সম্পর্কে কটূক্তি করার গুজব ছড়িয়ে এই হামলার ঘটনা ঘটানো হয়। এতে স্থানীয় ব্যবসায়ী বাবলু সাহাসহ হিন্দু সম্প্রদায়ের ২৯টি বাড়িতে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাট করা হয়। এ ঘটনায় পৃথক তিনটি মামলা হয়েছে। পুলিশ এ পর্যন্ত মামলাগুলোতে ৪২ জনকে গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে পাঠিয়েছে। তবে এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনের মধ্যে আর আতঙ্ক নেই।

এ ছাড়া মার্কিন রাষ্ট্রদূত জেলা প্রশাসক ও উপস্থিত সুধীজনদের কাছে পাবনার অর্থনৈতিক উন্নয়ন, কৃষকদের সমস্যা ও সম্ভাবনা এবং প্রাথমিক শিক্ষাসহ সার্বিক শিক্ষাব্যবস্থা সম্পর্কে জানতে চান।

দুপুরের খাবারের পর মার্কিন রাষ্ট্রদূত জেলার প্রাচীন ভবন শীতলাই হাউস,  তারাশ ভবন, পাবনা মানসিক হাসপাতাল, পাকশী হার্ডিঞ্জ ব্রিজসহ  বেশকিছু  প্রাচীন নিদর্শন পরিদর্শন করেন।