বৃহস্পতিবার, ১১ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২৭শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

অপহরণের তিন দিন পর স্কুল ছাত্রী উদ্ধার

52fc6021f304b-indexব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে অপহরণের তিন দিন পর দশম শ্রেণির এ স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত শুক্রবার সন্ধ্যা সাতটার দিকে কিশোরগঞ্জের ভৈরব পৌর শহরের বাস স্ট্যন্ড এলাকা থেকে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে। এ ব্যাপারে সরাইল থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ, মামলার এজহার ও ওই ছাত্রীর পারিবারিক সূত্র জানায় সরাইল উপজেলা সদরের বড্ডাপাড়া গ্রামের বাসিন্দা ও স্থানীয় পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির এক মেধাবী ছাত্রীকে কয়েক মাস ধরে উপজেলা সদরের বড় দেওয়ানপাড়ার বখাটে পিয়ার মিয়া (২০), নাদিম মিয়া (২১) ও বড্ডাপাড়ার মুখলেছ মিয়া (২০) বিদ্যালয়ে আসা যাওয়ার সময় উত্ত্যক্ত করে আসছিল। প্রতিকার চেয়ে ছাত্রীর বাবা বিষয়টি বখাটেদের পরিবারে নালিশ করে। এতে বখাটেরা ক্ষিপ্ত হয়ে পড়ে। গত মঙ্গলবার (১১-২-১৪) সন্ধ্যায় ছাত্রীর বসতবাড়ির সামনে থেকে তিন বখাটে আরও অজ্ঞাতনামা ৪/৫ জনকে সাথে নিয়ে জোর করে মাইক্রেবাসে করে তুলে নিয়ে যায়। এ ব্যাপারে ছাত্রীর বাবা গত বুধবার তিন বখাটের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরও ৪/৫ জনের বিরুদ্ধে সরাইল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দয়ের করেন। পুলিশ ওই ছাত্রীকে গত শুক্রবার সন্ধ্যা সাতটার দিকে কিশোরগঞ্জের ভৈরব পৌর শহরের বাস স্ট্যন্ড এলাকা থেকে উদ্ধার করে। পুলিশ ওই ছাত্রীর উদ্ধৃতি নিয়ে বলেন তিন বখাটে তাকে তিনদিন চট্রগ্রামের বিভিন্ন স্থানে রেখে শুক্রবার সন্ধ্যায় ভৈরব নিয়ে আসে। এক পর্যায়ে তাকে ভৈরব বাস স্ট্যন্ডে রেখে পালিয়ে যায়। পরে সরাইল থানার পুলিশ তাকে উদ্ধার করে। পুলিশ শনিবার সকালে ওই ছাত্রীকে আদালতে সোপর্দ করলে আদালত ছাত্রীকে পরিবারের জিম্মায় হস্তান্তর করেন। সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.আলী আরশাদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন বখাদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।