রবিবার, ২৭শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

গ্রামীণফোনে আইয়ুব বাচ্চুর নতুন গান

52fe573cdbfb3-Untitled-5আইয়ুব বাচ্চুর সর্বশেষ একক অ্যালবাম বলিনি কখনো প্রকাশিত হয়েছিল পাঁচ বছর আগে। ২০১১ সালে বাজারে আসে এলআরবির অ্যালবাম যুদ্ধ। আইয়ুব বাচ্চুর গানের ভক্তদের জন্য নতুন খবর হলো, এবার আসছে আইয়ুব বাচ্চুর পাঁচটি নতুন গান। আর গানগুলো শোনা যাবে মুঠোফোন সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান গ্রামীণফোনে।

আইয়ুব বাচ্চু বলেন, ‘অন্তরের ভেতর থেকে এই গানগুলো করেছি। প্রতিটি গানেই প্রাণের ছোঁয়া আছে। কাজটি করতে গিয়ে অনেক আনন্দের অনুভূতি হয়েছে! মিক্স, মাস্টার করার পর মনে হয়েছে গানগুলো ভালো একটা জায়গায় এসে দাঁড়িয়েছে। বাকিটা শ্রোতারা বলবেন।’

এবারই প্রথম ডিজিটাল প্রযুক্তিতে অ্যালবাম প্রকাশ করতে যাচ্ছেন আইয়ুব বাচ্চু। তিনি বলেন, ‘অডিও সিডির অবস্থা এখন খুবই খারাপ। তাছাড়া পাইরেসিও ঠেকানো সম্ভব না। সবাই মুঠোফোনে গান শুনতে অভ্যস্ত হয়ে গেছে। সেই দিকটা মাথায় রেখেই ডিজিটাল প্রযুক্তি বেছে নিয়েছি।’

জানা গেছে, আগামী ২০ ফেব্রুয়ারি থেকে গ্রামীণফোনের গ্রাহকেরা আইয়ুব বাচ্চুর নতুন গানগুলো শুনতে পাবেন।

আইয়ুব বাচ্চুর নতুন গানগুলোর শিরোনাম হচ্ছে ‘আল্লায় জানে কে কখন যায় চলে’, ‘কিছু মুহূর্ত’, ‘কেমন আছো নাগরিক সকাল’, ‘জলের কি দোষ’ ও ‘বাসি খবর’। সবগুলো গানেরই সুর ও সংগীত পরিচালনা করেছেন আইয়ুব বাচ্চু। একটি গানের কথাও লিখেছেন তিনি। অন্য চারটি গানের কথা লিখেছেন নিয়াজ আহমেদ ও রবিউল ইসলাম।

আইয়ুব বাচ্চু জানান, শ্রোতাদের আগ্রহ বিবেচনা করে মাস ছয়েক পর গানগুলো অডিও সিডি আকারে প্রকাশ করার সম্ভাবনা আছে। ওই অ্যালবামে থাকবে নতুন গানও।

এ জাতীয় আরও খবর

রিজার্ভ নিয়ে গণমাধ্যম উল্টাপাল্টা বলে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

নয়াপল্টনে সমাবেশ করলে কঠোর ব্যবস্থা: তথ্যমন্ত্রী

সামনে কঠিন চ্যালেঞ্জ: ডিএমপি কমিশনার

দেশে খাদ্যের মজুদ যেন ১৫ লাখ টনের নিচে না নামে: প্রধানমন্ত্রী

বাংলাদেশের প্রখ্যাত মৃত্তিকা বিজ্ঞানী নাসিরনগরের কৃতি সন্তান ড. রফিক এম ইসলামের দাফন সম্পন্ন

দুধ দিয়ে গোসল করা সেই ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম

দিল্লির হাসপাতালে ভর্তি ফারিয়া

বেনাপোলে যাত্রীবাহী ভ্যান থেকে ১ কেজি স্বর্ণ উদ্ধার

‘গোল্ডেন বুট’ পরে খেলছেন মেসি! কী বিশেষত্ব আছে এতে

স্বামীর প্রাণ নিল স্ত্রীর অনৈতিক সম্পর্কের শাবল

অরিজিৎকে কাছ থেকে দেখবেন? লাগবে ১৬ লাখ টাকা!

চীনে টানা চারদিন করোনার সর্বোচ্চ সংক্রমণ