বৃহস্পতিবার, ২রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছাড়াই সেতু নির্মাণ, অল্পের জন্য বেঁচে গেলেন সাংবাদিক সুমন নূর

SUMONঅল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে গেলেন তরুণ সংবাদকর্মী সুমন নূর। ঠিকাদারের অবহেলায় প্রাণ হারাতে বসেছিলেন তিনি। প্রতিদিনের ন্যায় বুধবার নিজ কর্মস্থল ব্রাহ্মণবাড়িয়াটোয়েন্টিফোরডটকম এর মৌলভীপাড়াস্থ কার্য্যালয় থেকে দুপুরের খাবারের জন্য কাজীপাড়াস্থ বাসায় যাবার পথে কাজীপাড়া-মৌলভীপাড়া সংযোগ সেতু এলাকায় তিনি দূর্ঘটনার কবলে পড়েন।

সুমন নূর জানান, তিনি সেতু মেরামতের করণে তৈরী বিকল্প সাকু ব্যবহার করে খালটি পার হচ্ছিলেন। হঠাৎ করে সেখানে ব্যবহৃত ক্রেন এর তার ছিড়ে তার মাথায় লোহার পাইপ এসে পড়ে, সেখানেই তিনি স্মৃতি শক্তি হারান। 

প্রত্যক্ষর্শী ও এলাকাবাসীরা অভিযোগ করে জানান, কয়েক হাজার শিক্ষার্থী ছাড়াও এ মহল্লার সাধারন জনগণ দৈনিক এ সড়কে চলাচল করে। তারপরও কোন ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ না করেই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স হাসান ট্রেডার্স এই সেতু তৈরীর কাজ করছে।

সাংবাদিক সুমন নূরের ছোট ভাই দেলোয়ার হোসেন জানান, খবর পেয়ে ভাইয়াকে তাড়াতাড়ি উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়, মাথায় ৬টি সেলাই লেগেছ। তিনি নিরাপত্তা ব্যবস্থা না নিয়ে এই রকম জনবহুল স্থানে নির্মাণ কাজ পরিচালনাকারী ঠিকাদারের বিচার দাবী করেন।

এ ব্যাপারে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স হাসান ট্রেডার্স এর সত্বাধীকারী খাইরুল হাসান জানান, ঘটনাঁিট দুঃখজনক ও অপ্রত্যাশিতভাবে ঘটেছে। আমরা তার সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করছি । এখানে কাজের নিরাপত্তা ব্যবস্থাও নেয়া হবে। 

উল্লেখ্য, এর আগেও বেশ কয়েকজন এ জায়গায় গুরুত্বরভাবে আহত হয়েছেন। সর্বশেষ গত সপ্তাহে এক শিশু শিক্ষার্থী ও তার অভিভাবক গুরুত্ব আহত হন।