মঙ্গলবার, ৩০শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

অবরোধে সারাদেশ বিচ্ছিন্ন

Obo১৮ দলীয় জোটের ডাকা টানা ৭২ ঘণ্টা অবরোধের দ্বিতীয় দিন। রোববার ভোর থেকে রাজধানীর বিভিন্ন অঞ্চলে আইনশৃক্সখলা বাহিনীর কঠোর অবস্থানে রয়েছে। বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় ঘিরে পর্যাপ্ত পুলিশি পাহারা। অবরোধের প্রথম দিনে (শনিবার) দেশের বিভিন্ন স্থানে গাড়িতে আগুন-ভাঙচুর, ককটেল ও পেট্রোল বোমা বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। পিকেটারদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এই সহিংসতা ও অবরোধ সংক্রান্ত দুর্ঘটনায় এ পর্যšত্ম নিহত হন ৫জন। রাজধানীতে কোন দুরপাল্লার যানবাহন প্রবেশ করতেও দেখা যায়নি ও ছেড়ে যেতেও  দেখা যায়নি।

 

এদিকে ১৮ দলের অবরোধের কারণে সীমাšেত্ম সকল প্রকার আমদানী ও রাপ্তানি  বন্ধ। ঢাকার বাইরে থেকে কোন পণ্যেবাহী যানবাহন প্রবেশ করতে পারছে না। বাড়ছে কাচাঁমাল থেকে শুরু করে নানা পণ্যের দাম। সাধারন খেটেঁ খাওয়া মানুষ পড়ছে চরম বিপদে। বিভিন্ন স্থান থেকে ট্রেন ছাড়লেও নাশকতার কারণে বগি লাইনচুত্য হয়েছে। বিভিন্ন স্থানে ঝুঁকি নিয়ে যানবাহন ছাড়লে তাতে আগুন দেওয়া হচ্ছে। বাদ পড়ছে না সংবাদপত্রবাহী গাড়ি।

 

এদিকে সকাল থেকে বনানী, মহাখালী, তেজগাও শিল্প এলাকা, ফার্মগেট, পান্থপথ, গ্রিন রোড, কারওয়ান বাজার, এফডিসি মোড়, মালিবাগ, মগবাজার, কাকরাইল, পুরানা পল্টন মোড়, ফকিরাপুল মোড়, মতিঝিল অঞ্চলে ১৮ দলের কর্মীদের নাশকতা করতে দেখা গেছে।

 

রোববার সকালে রাজধানীর তেজগাঁওয়ে অবরোধের সমর্থনে মিছিল করেছেন যুবদলের কর্মীরা। পুলিশ জানায়, ভোর ছয়টার দিকে তেজগাঁও রেলগেটের পূর্বপাশের সড়কে অবরোধের সমর্থনে মিছিল বের করেন যুবদল কর্মীরা। যুবদলের ১০ থেকে ১২ জন কর্মী রেলগেটের সামনে এসে অবরোধের সমর্থনে সেøাগান দেয়। একপর্যায়ে তাঁরা ওই সড়কে টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেন। এ সময় পুলিশের ধাওয়া খেয়ে বিক্ষোভকারীরা পালিয়ে যায়। পুলিশের বিশেষ শাখার পরিদর্শক সিরাজুল আলম এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

 

রেললাইনের ফিসপ্লেট উপড়ে ফেলায় শনিবার দিনগত রাত ২টার পর রাজশাহী থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে আসা ধূমকেতু এক্সপ্রেসে তিনটি বগি লাইনচ্যুত হয় সারদা স্টেশন সংলগ্ন নন্দনগাছিতে। এতে বন্ধ রয়েছে ঢাকা-রাজশাহী রেল যোগাযোগ। তাছাড়া বিঘ্নত হচ্ছে এ অঞ্চলের নির্ধারিত ট্রেন চলাচল। এছাড়া দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষিপ্ত গাড়ি ভাঙচুর ও ককটেল বিস্ফোরণের খবর পাওয়া গেছে।

 

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের যাত্রামুড়া এলাকায় আজ রোববার ভোরে কাগজবাহী একটি পিকআপ ভ্যানে আগুন দিয়েছে পিকেটাররা। পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ভোরে বিএনপির নেতা কর্মীরা যাত্রামুড়া এলাকায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে অবরোধের সমর্থনে পিকেটিং শুরু করেন। ভোর সাতটার দিকে তাঁরা ওই পিকআপ ভ্যানটিতে আগুন লাগিয়ে দেয়। রূপগঞ্জ থানার এক কর্মকর্তা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তবে তিনি বিস্তারিত জানাতে পারেননি।

 

কারওয়ান বাজারে কাঁচামালের ট্রাক আসতে দেখা গেছে হাতে গোনা কয়েকটি। কাঁচামালের মতো এ বাজারটিতে মাছের যোগানও দেখা গেছে খুবই সামান্য।

 

উল্লেখ্য, জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা, বিরোধীদলীয় নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা, গ্রেফতার ও নির্যাতনের প্রতিবাদে শুক্রবার রাতে শনিবার ভোর ৬টা থেকে মঙ্গলবার ভোর ৬টা পর্যন্ত টানা ৭২ ঘণ্টার সড়ক, নৌ ও রেলপথ অবরোধ কর্মসূচি দেয় বিএনপি।

এ জাতীয় আরও খবর

করোনায় একদিনে সাত হাজারের বেশি প্রাণহানি

মেসির হাতে উঠলো সপ্তম ব্যালন ডি’অর

ওমিক্রন রোধে বেনাপোল বন্দরে সর্বোচ্চ সতর্কতা

এসএসসি পাস ছাড়া বিমা পেশায় ঢোকার পথ বন্ধ

‘মাইনু আয়, তোরে ভালো কলেজে ভর্তি করামু’

কুমিল্লায় কাউন্সিলর হত্যা: দুই আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

পদত্যাগ করলেন টুইটারের প্রধান নির্বাহী জ্যাক ডরসি

মা-বাবার পরে চেয়ারম্যান হলেন মেয়ে

যুক্তরাষ্ট্রে যাচ্ছেন বুবলিও

খালেদা জিয়ার জন্য বিদেশ থেকে চিকিৎসক আনতে পারবে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

সিনহা হত্যা মামলা : ৮ম দফায় প্রথম দিনেও তদন্তকারী কর্মকর্তার জেরা অসমাপ্ত

ওমিক্রন : ভারতের উচ্চ ঝুঁকির তালিকায় বাংলাদেশ