মঙ্গলবার, ৩০শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বিএনপি-জামায়াত মানুষ খুন করতেই ব্য¯ত্ম

Hasina 13.11.13প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ২০০১ সালে ক্ষমতায় এসে বিএনপি-জামায়াত মানুষ খুন করতেই ব্য¯ত্ম ছিলো। প্রতিটি জায়গায় বোমা হামলা আর সন্ত্রাস সৃষ্টি করেছিলো তারা।

বুধবার বিকালে বাগেরহাটে অনুষ্ঠিত এক জনসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপি-জাময়াত সরকারের দুর্নীতির কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমরা ৪ হাজার তিনশ’ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ রেখে গিয়েছিলাম, সেখানে তারা ক্ষমতায় আসার পর বিদ্যুৎ উৎপাদন নামিয়ে এনেছে ৩ হাজার দুইশ’ মেগাওয়াটে।

তিনি বলেন, কোনো সরকার ক্ষমতায় আসলে উন্নয়ন করে না, এরকম সরকারের উদাহরণ হল বিএনপি-জামায়াত সরকার। তারা শুধু লুট-পাট আর দুর্নীতি করতো।   

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আগামীতে আমরা যদি নৌকায় ভোট পাই, সরকার গঠন করতে পারি, তাহলে প্রত্যেক ঘরে ঘরে আমরা বিদ্যুৎ পৌঁছে দেব। বিদ্যুতের  কোনো সমস্যা থাকবে না।

তিনি এসময় বিএনপির সমালোচনা করে আরও বলেন, বিএনপি ক্ষমতায় আসা মানে হলো, তারা চোরাগোপ্তা হামলা চালাবে। যারা জনগণকে নিয়ে রাজনীতি করে তারা চোরাগোপ্তা হামলা চালাবে কেনো? চোরাগোপ্তা হামলা তারাই চালায় যারা সন্ত্রাসে বিশ্বাস করে। বিএনপি-জামায়াত হচ্ছে সন্ত্রাসী দল।

তিনি জনগণের সামনে প্রশ্ন রেখে হরতালে সহিংসতা প্রসঙ্গে বলেন, কোনো মানুষ কি মানুষ পুড়িয়ে মারতে পারে।

 

তিনি বিএনপির সমালোচনা করে আরও বলেন, যারা খুনিদের রক্ষা করে, যারা মানুষ হত্যা করে, তারা দেশের কল্যাণ কিভাবে করবে, দেশের মানুষের উন্নয়ন কিভাবে করবে। তারা মানুষের উন্নয়ন বোঝে না।

শেখ হাসিনা শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বলেন, আমরা সরকারে গেলে আগামীতে প্রাথমিক পর্যায় থেকেই কম্পিউটার শিক্ষা বাধ্যতামূলক করে দেব। একই সঙ্গে প্রতি স্কুলে কম্পিউটার শিক্ষার ব্যবস্থা করে দেব। এবং প্রতিটি উপজেলায় একটি করে স্কুল ও একটি করে কলেজ সরকারি ঘোষণা করবো।

বিএনপির সঙ্গে হেফাজত জুটেছে মšত্মব্য করে তিনি বলেন, বিএনপি-জামায়াত ইসলামের নামে রাজনীতি করে এবং তার সঙ্গে জুটেছে হেফাজতে ইসলাম। কিšত্মু ইসলাম ধর্মের হেফাজত আল্লাহই করেন, এজন্য অন্য কাউকে লাগে না।

 

এ জাতীয় আরও খবর