মঙ্গলবার, ২৯শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

২ বাংলাদেশিকে অপহরণ করেছে ‘রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা’

টেকনাফ প্রতিনিধি : কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের মরিচ্যাঘোনা এলাকা থেকে দুই বাংলাদেশিকে অপহরণ করেছে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনায় সন্ত্রাসীদের হাত থেকে দুজন পালিয়ে এসেছেন। এর মধ্যে একজনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে মরিচ্যাঘোনা এলাকা থেকে ওই চার জনকে অপহরণ করেছিল রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা। সন্ত্রাসীদের কবল থেকে পালিয়ে আসা দুজনের বরাত দিয়ে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন হ্নীলা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রাশেদ মোহাম্মদ আলী।

তিনি বলেন, ‘বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে মরিচ্যাঘোনা থেকে হ্নীলা ইউনিয়নের পশ্চিম পানখালী এলাকার নজির আহমদ (৫০), তার ছেলে সাদ্দাম হোসেন (২৭), একই এলাকার মো. শাহজাহান ও মো. মেহেদীকে অপহরণ করেছিল রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা। এর মধ্যে শাহজাহান ও মেহেদী পালিয়ে রক্ষা পেয়েছেন। তবে শাহজাহানকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পালানোর সময় তাকে গুলি করা হয়।’

শাহজাহান ও মেহেদীর বরাত দিয়ে চেয়ারম্যান রাশেদ মোহাম্মদ আলী বলেন, ‘সকালে মরিচ্যাঘোনা এলাকায় শসা ক্ষেতে কাজ করছিলেন নজির আহমদ, সাদ্দাম হোসেন, শাহজাহান ও মেহেদীসহ কয়েকজন। হঠাৎ একদল রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী অস্ত্রের মুখে চার জনকে অপহরণ করে নিয়ে যায়।তাদের নিয়ে যাওয়ার পথে পাহাড়ি এলাকায় আরেক রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর সঙ্গে অপহরণকারীদের গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। এ সুযোগে পালিয়ে আসেন শাহজাহান ও মেহেদী। এ সময় অপহরণকারীদের গুলিতে শাহজাহান আহত হন। শাহজাহানকে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে তাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। বিষয়টি টেকনাফ থানা পুলিশকে জানানো হয়েছে।’

টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাফিজুর রহমান বলেন, ‘স্থানীয়দের কাছ থেকে শুনেছি দুইজনকে অপহরণ করা হয়েছে। অপহরণের ঘটনায় কারা জড়িত এ ব্যাপারে খোঁজ খবর নিচ্ছি। অপহৃতদের উদ্ধারে অভিযান চালানো হবে।’