শনিবার, ২৯শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৫ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ব্রাজিলকে ঠেকিয়ে দিল মেক্সিকো

footballব্রাজিলের একের পর এক আক্রমণ ব্যর্থ হয়ে গেলো গিলের্মো ওচোয়ার দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের কাছে। মেক্সিকোর অদম্য গোলরক্ষকের কাছেই ‘হার’ মানতে হলো নেইমারদের। নেইমারদের কাছে বিরাট দেয়াল হয়ে দাঁড়ালেন ওচোয়া। সে দেয়াল টপকে কোনো গোলই করতে পারলেন না লুইস ফেলিপে স্কলারির ছাত্ররা। ফোর্তালেজায় মেক্সিকোর বিপক্ষে ০-০ ড্র নিয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হলো ব্রাজিলকে।
২৬ মিনিটে দানি আলভেজের ক্রসে নেইমারের দারুণ হেড অসাধারণ সেভ করলেন অচোইয়া । ৪৪ মিনিটে বক্সে থিয়াগো সিলভার সহায়তায় পাওয়া পাওলিনহোর শটটি আটকে দিলেন মেক্সিকোর গোলরক্ষক। ৬৯ মিনিটে নেইমারের ভলিটাও কী দারুণভাবে সেভ করলেন ওচোয়া! ম্যাচের শেষ দিকে, ৮৬ মিনিটে সিলভার হেডটিও আটকে গেল ওচোয়ার ‘আঠালো’ হাতে! যেভাবে চোখধাঁধানো সব সেভ করলেন মেক্সিকোর এ গোলরক্ষক—বলাই যায়, এক ওচোয়া ঠেকিয়ে দিলেন ব্রাজিলকে।

বল দখলে দুই দল অনেকটা কাছাকাছি। ব্রাজিলের দখলে ছিল ৫৩ শতাংশ, মেক্সিকোর সেখানে ৪৭। ব্রাজিলের লক্ষ্যে শট ছিল ৮টি, মেক্সিকোর সেখানে ৩টি। মেক্সিকোর রক্ষণভাগ কতটা জমাট ছিল, সেটিই স্কোরলাইনই বলে দিচ্ছে। মেক্সিকো অবশ্য ক্ষণে ক্ষণে কাঁপন ধরিয়েছে ব্রাজিলের রক্ষণভাগকেও। হুলিও সিজারকেও বেশ কবার পরীক্ষা দিতে হয়েছে মেক্সিকোর কাছে।

আগেই জানা গিয়েছিল, নেইমারকে ঠেকানোর সব ব্যবস্থা নিয়েছে মেক্সিকো। ডিফেন্ডার রাফায়েল মার্কেজ তো বলেই দিয়েছিলেন, ‘নেইমারকে খেলতে দেওয়া যাবে না।’ সেদিক দিয়ে ‘ব্যর্থ’ নয় তাঁরা! ব্রাজিলীয় সেনসেশনকে বেশ কয়েকবার ফাউলের শিকার হতে হয়। ৬২ মিনিটে নেইমারকে ফাউল করায় হলুদ কার্ড দেখলেন ভাজকেজ। নেইমার নিজে অবশ্য কয়েকবার মেক্সিকোর রক্ষণভাগ ভেঙে গোলের চেষ্টা চালিয়েছিলেন। কিন্তু সব ব্যর্থ ওই ওচোয়ার কাছে। নেইমার সর্বশেষ চার ম্যাচে করেছেন ছয় গোল। মেক্সিকোর বিপক্ষে গোলের খাতাটা শূন্য থাকল। আজ অস্কার নিজের ছাঁয়া হয়েছিলেন। 

২০১২ লন্ডন অলিম্পিকে ব্রাজিলকে হারিয়েছিল মেক্সিকো। তবে বিশ্বকাপে সেলেসাওরা আজকের আগ পর্যন্ত মেক্সিকোর বিপক্ষে তিন ম্যাচের তিনটিতেই জিতেছে। ওই তিন ম্যাচে মেক্সিকোর জালে  গোল দিয়েছে ১১টি। মেক্সিকো দিতে পারেনি একটি গোলও। অথচ আজ জালের ঠিকানা খুঁজেই পেল না নেইমার-সিলভাদের শট কিংবা হেড। তুলনামূলক কম শক্তির দল মেক্সিকোর কাছে ড্র করার পর ব্রাজিলের সমর্থকদের কপালে চিন্তার ভাঁজ স্বাভাবিকভাবে বেড়েছে!

এ জাতীয় আরও খবর