বৃহস্পতিবার, ২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বিজয়নগর থানা পুলিশের ঘুষ বানিজ্য!

Golam Rasul (Bijoynagar)আমিরজাদা চৌধুরী: ‘হাক-ডাক দিয়া ঘুষ-দূর্নীতি ইত্যাদি নানা অনিয়মের কার্যাদিতে মহা উৎসবে মাতিয়া উঠিয়াছে। মনে হয় তাদের খুটির জোর এতোই প্রবল যে তাদেরকে নজরদারী,তদারকি,দেখভাল করার কোন উর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তা নাই’- ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাসহ অন্যান্য পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে এমনই অভিযোগ সেখানকার এক বাসিন্দার। নূরপুর গ্রামের মো: হাফিজুর রহমান গত ২৭ শে এপ্রিল পুলিশ সুপারের কাছে অপকর্মের নানা ঘটনা তুলে ধরে লিখিত অভিযোগ করেন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও এক এস আই’র বিরুদ্ধে। তিনি এসব অভিযোগের বিভাগীয় তদন্ত এবং দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী করেন।  হাফিজুর তার অভিযোগে বলেন তিনি নিজে ভূক্তভোগী এবং এলাকার আরো অনেকের কাছ থেকেই পুলিশের এই কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ অবহিত হন। এসব অভিযোগের মধ্যে রয়েছে বিজয়নগর থানার নারী ও শিশু নির্যাতন আইনের মামলা নং ৪৪,জিআর ৫৬৭/১২,তারিখ-২৯.১০.১২ইং এর এজাহারনামীয় সহযোগী আসামীদের নিকট থেকে চার্জশীটে নাম বাদ দেবে বলে ২০ হাজার টাকা ঘুষ গ্রহন। ঘুষের এই টাকা অভিযোগকারী হাফিজুর তার ভাতিজি জামাই মামলার ১ নম্বর আসামী মিজান মিয়ার পক্ষে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রসুল আহমেদ নিজামীকে দেন। তার অভিযোগ এই টাকা নেয়ার পরও মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে ২/৩ লাখ টাকার আর্থিক ক্ষতি করা হয় মিজানকে। এস আই কবির হোসেন থানার মামলা নং -৮,তারিখ-৬.১১.১৩ ইং ,জিআর ৫৯৪/১৩ এর বাদী নূরজাহানকে ফোন করে থানায় এনে তার মামলার আসামীদের গ্রেফতার ও চার্জশীট দেয়ার কথা বলে ৫ হাজার টাকা আদায় করেন। এই দারোগার বিরুদ্ধে আরো অভিযোগ চম্পকনগর ফাড়ির দায়িত্বে থেকে অবৈধভাবে অর্থ গ্রহন করে এলাকাটিকে মাদক বানিজ্যের জোনে পরিনত করেছেন।কামালপুর গ্রামের হোসেন মিয়ার কাছ থেকে ২০১৩ সালের ১২ ই সেপ্টেম্বর ২৫ হাজার টাকা ঘুষ নেয়া হয় একটি মামলা রেকর্ড করার জন্যে। পরে আসামী পক্ষের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা খেয়ে এই মামলা আর রেকর্ড করেননি ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা । থানায় কোন মামলা রেকর্ডে ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকা দিতে হয় ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে। অভিযোগ  মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে,মামলার সন্দেহভাজন আসামী করে নিরীহ লোকজনের কাছ থেকে অর্থ আদায় করছে এই পুলিশ কর্মকর্তারা। তাদের প্রত্যক্ষ মদদে চলছে এলাকায় মাদক ব্যবসা ।  খোজ নিয়ে জানা গেছে,গত বছর ৮ ই  ডিসেম্বর চান্দুরা ইউনিয়নের মানিকপুর থেকে হরষপুর ইউনিয়নের  ব্ল্লুা গ্রামের মাদক ব্যবসায়ী এবাদুল ও আলী হোসেনকে ১০ কেজি গাজাসহ গ্রেফতার করে বিজয়নগর থানা পুলিশ।বেধড়ক মারধোর করা হয় তাদেরকে। পরে গভীররাতে ৬৫ হাজার টাকার বিনিময়ে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নিজামী তাদেরকে ছেড়ে দেন। বিজয়নগর থানা এলাকাধীন মাদক ব্যবসায়ীদের মাসে ২৫ থেকে সর্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত দিতে হয় থানায়। চান্দুরার জালালপুর গ্রামের একজন মাদক ব্যবসায়ী বজলু জানান, প্রতি মাসে থানার ক্যাশিয়ার ফারুকের মাধ্যমে ৩০ হাজার টাকা ওসিকে দিতে হয় তার। মাস শেষ হওয়ার ৫ দিন আগে থেকেই টাকা পরিশোধের জন্যে তাদের তাগিদ দেয়া হয়। বিষ্ণপুর ইউনিয়নের কালাছড়া গ্রামের মাদক ব্যবসায়ী বিল্লাল,এরশাদ ও জালাল জানান-ওসিকে নিয়মিত টাকা দিয়েই আমরা ব্যবসা করছি। টাকা দিতে দেরী হলে দারোগা দিয়ে খবর পাঠিয়ে থানা হাজতে নিয়ে ভরে রাখা হয়। চান্দুরার ইব্রাহিমপুরে  মহাসড়কের  পাশে মাদকের একটি বড় স্পট রয়েছে। যেটি চালায়  শাহআলম। সম্প্রতি শাহআলমকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এরআগে শাহআলম নিজেই জানান, তার কাছ থেকে প্রতিমাসে ৫০ হাজার টাকা নেন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা। থানার সাব ইন্সপেক্টর এবং হাইওয়ে পুলিশসহ আরো ৩০ হাজার টাকা দিতে হয় তাকে। মাদক ব্যবসা চালাতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারীবাহিনীকে তুষ্ট করতে গিয়ে শাহআলম তার দুটি বসত বাড়ি এবং ২ টি সিএনজি বিক্রি করেছেন গত ৩ বছরে। শাহআলম আরো জানান,মাদক ব্যবসা না চালালেই পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। তাই বাধ্য হয়েই সে মাদক ব্যবসা চালায়। এসব অভিযোগের বিষয়ে কথা বলার জন্যে বিজয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রসুল আহমেদ নিজামীর মোবাইল নম্বরে একাধিকবার ফোন করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। রসুল আহমেদ নিজামী এই থানায় যোগদান করেন ২০১২ সালের ২৫ শে জানুয়ারী। এরপর থেকেই ঘুষ-দূর্নীতিতে বেপড়োয়া হয়ে উঠে এই থানার পুলিশ। 

 

 

 

এ জাতীয় আরও খবর

সীমান্তে কাউকে ঢুকতে দেব না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

করোনায় আরও ২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৬৭৯

২ বাংলাদেশিকে অপহরণ করেছে ‘রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা’

রাজনীতিতে কালো মেঘ দেখা যাচ্ছে: পরিকল্পনামন্ত্রী

অবসরের পরও অস্ত্রধারী পুলিশের নিরাপত্তা পাবেন বেনজীর

লাঠির সঙ্গে জাতীয় পতাকা নিয়ে নামলে খবর আছে: ওবায়দুল কাদের

ব্রিটেনের রানির মৃত্যুর কারণ প্রকাশ

২ বছর আগেই ছেলের মা হন বুবলী, বাবা শাকিব

‘জবাবদিহির আওতায় না আনা পর্যন্ত র‌্যাবের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা থাকবে’

সালমান-ভীতি; নায়ক :জারিন খান

গৃহকর্মীদের জীবন নিরাপদ করতে উদ্যোগ নেবে সরকার: পরিকল্পনামন্ত্রী

‘সালমানের জন্য ওটিটি নয়, তিনি বড় পর্দার মানুষ’