মঙ্গলবার, ৯ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২৫শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নির্বাচনী নিরাপত্তা কতটা সুনিশ্চিত ভারতে?

 

1394989539.ডেস্ক রিপোর্ট : 

ভারতে ২০১৪ সালের সাধারণ নির্বাচনকালে অভ্যন্তরীণ ও সীমান্তপার থেকে হামলার আশঙ্কা করছে সরকার। জঙ্গিদের উদ্দেশ্য নির্বাচন প্রক্রিয়া প- করা। তাই নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে বিশেষ কৌশলনীতি রচনার জন্য বৈঠক করেছে সরকার। সংসদীয় নির্বাচনের দিনক্ষণ ঘোষণার সাথে সাথে শক্তি প্রদর্শনের জানান দিল মধ্যভারতের ছত্রিশগড় রাজ্যের মাওবাদী জঙ্গিরা। গত বুধবার জগদ্দলুর-সুকমা জাতীয় সড়কের উপর যৌথ নিরাপত্তা বাহিনীর উপর জবরদস্ত হামলা চালায় মাওবাদীরা। নিহত হয় ১৫ জন নিরাপত্তা কর্মীসহ ১৬ জন। 

 

গণতন্ত্র-বিরোধী মাওবাদীরা একেবারে নিশ্চিহ্ন না হলেও, যথেষ্ট কাবু হয়ে পড়েছে এমন একটা আত্মসন্তুষ্টিরভাব এসেছিল সরকারের মনে। এই হামলা তা মিথ্যা প্রমাণ করে দিল, যা স্বাভাবিকভাবেই ভোটদাতাদের মনে বেশ ভীতির সঞ্চার করেছে। মাওবাদীদের মোকাবিলায় সরকার বারংবার ব্যর্থ হচ্ছে: কিন্তু কেন হচ্ছে, কোথায় গলদ এবং কীভাবে নিরাপত্তা নিশ্চিত করা যায় তা নিয়ে সরকারের কপালে উদ্বেগের ভাজ। গোয়েন্দা ও নিরাপত্তা বাহিনীর শীর্ষ কর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকার দফায় দফায় বৈঠক করে। 


স্থির হয়, মাওবাদী অধ্যুষিত এলাকাগুলোতে ভোটের আগে ও ভোট চলাকালীন নিরাপত্তা বাহিনীর সংখ্যা বাড়াতে হবে। বাড়াতে হবে গোয়েন্দা ও নিরাপত্তা বাহিনীর মধ্যে সমন্বয়। এছাড়া মজবুত করতে হবে নিরাপত্তা পরিকাঠামো। যথেষ্ট সংখ্যক নিরাপত্তা বাহিনী মোতায়েনের সুবিধার জন্য নির্বাচন পর্ব ৯-দফায় সম্পূর্ণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন। মাওবাদী অধ্যুষিত রাজ্যগুলোর মধ্যে আছে ছত্রিশগড়, ঝাড়খ-, ওড়িষ্যা, অন্ধ্রপ্রদেশ, মহারাষ্ট্র ও পশ্চিমবঙ্গ। 

অন্যদিকে ভারতের জম্মু-কাশ্মীর রাজ্যে সীমান্তপারের জঙ্গি হামলা রুখতে নিরাপত্তা বাহিনীকে অতিরিক্ত সতর্কতা অবলম্বন করার আদেশ দেয়া হয়েছে। রাজ্য পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্তাব্যক্তি সংবাদমাধ্যমকে জানান যে, তাদের কাছে খবর আছে পুঞ্চ এলাকায় বেশ কিছু জঙ্গি আত্মগোপনে রয়েছে এবং সময়মত হামলা চালার জন্য তৈরি আছে।