বুধবার, ২০শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বিয়ের আগে পুত্রকে মায়ের যা জানানো উচিত

Mother & Sonডেস্ক রিপোর্ট :পারিবারিক সমস্যা দিনে দিনে যেন বেড়েই চলেছে। আর এর অন্যতম একটি কারণ হলো শাশুড়ি ও পুত্রবধুর মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি। স্বামীর সঙ্গে স্ত্রীর বোঝাপড়ার সমস্যাও যেন বাড়ছেই বাড়ছে। এছাড়া বেশ কিছু আচরণও দাম্পত্য সম্পর্ককে বিষিয়ে তুলছে। এসব সমস্যার সমাধান করতে চাইলে যিনি অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে পারেন তিনি হলেন ছেলের মা অর্থাৎ শাশুড়ি।

একজন নারী হিসেবে শাশুড়িই পারেন পুত্রবধুর সুবিধা-অসুবিধার বিষয়গুলো অনুধাবন করতে। আর ছেলের মানসিতকা সম্পর্কেও যেহেতেু তার সম্যক ধারণা থাকে, তাই বিয়ের আগে কিছু বিষয় ছেলেকে বুঝিয়ে দিলে পারিবারিক সমস্যা এড়ানো যায় সহজেই। আসুন জেনে নেয়া যাক ৫টি কথা যেগুলো সব মায়েরই উচিত বিয়ের আগে ছেলেকে বুঝিয়ে বলা। 

 

স্ত্রীকে মায়ের সাথে তুলনা না করা

অধিকাংশ পুরুষই বিয়ের পর স্ত্রীর সঙ্গে মায়ের তুলনা করে। 'তোমার চাইতে আমার মায়ের রান্না ভালো' কিংবা 'তোমার জায়গায় মা হলে এটা করতেন না' এই ধরনের কথা স্বামীরা স্ত্রীদেরকে বলে থাকেন। এতে স্ত্রীরা নতুন সংসারের প্রতি আগ্রহ হারিয়ে ফেলে এবং হতাশায় ভোগে। শাশুড়ির প্রতি শ্রদ্ধাবোধও হারিয়ে ফেলে অনেক নারী। তাই সব মায়েরই উচিত ছেলেকে বিয়ের আগে বুঝিয়ে বলা যে স্ত্রীকে তারা যেন মায়ের সঙ্গে তুলনা না করে। 

অতিরিক্ত প্রত্যাশা না করা

মায়েদের উচিত বিয়ের আগে ছেলেকে বুঝিয়ে বলা যেন তারা স্ত্রীর কাছে অতিরিক্ত প্রত্যাশা না করে। নতুন সংসারে সব কিছু স্বামীর মন মতই হবে এমনটা প্রত্যাশা করা উচিত না। অতিরিক্ত প্রত্যাশা ছোটখাট ব্যাপারে ঝগড়ার সৃষ্টি করে। 

স্ত্রীকে সম্মান করা

অধিকাংশ নারীরাই স্বামীর কাছে নানান রকম অসম্মানের স্বীকার হয়। এতে সংসার জীবন মোটেও সুখের হয় না। তাই ছেলের মায়েদের উচিত বিয়ের আগেই ছেলেকে বুঝিয়ে বলা যে স্ত্রীকে সম্মান করলেই সে তার শ্বশুরবাড়ির সবাইকে ভালোবাসবে। নতুবা নতুন সংসারের সব কিছুর প্রতিই তার বিতৃষ্ণা দেখা দিবে। 

জীবনের প্রতিটি ধাপেই স্ত্রীকে সাহায্য করা

সব স্বামীরই উচিত নিজের স্ত্রীকে জীবনের প্রতিটি ধাপে সাহায্য করা। ইদানিং অনেক নারীই সংসারের পাশাপাশি চাকরী করে থাকেন। সারাদিন কর্মক্ষেত্রে থাকার পর বাসায় ফিরে একা একা সংসার সামলানো বেশ কষ্টকর। তাছাড়া সন্তানকে স্কুলে নেয়া, ঘর গুছানো, মেহমানকে খাওয়ানো ইত্যাদি নানা কাজ করতে হিমসিম খেতে হয় স্ত্রীদের। তাই স্বামী উচিত কিছু কাজ স্ত্রীর সঙ্গে ভাগ করে নেয়া। আর এই কথাগুলো বিয়ের আগেই নিজের ছেলেকে বুঝিয়ে বলা উচিত মায়ের। 

স্ত্রীর প্রতি ভালোবাসা প্রকাশ করা উচিত

স্ত্রীর প্রতি ভালোবাসা প্রকাশ করলে স্বভাবতই তারা খুশি থাকেন। বিয়ের আগেই মায়ের উচিত ছেলেকে বলে দেওয়া, ছেলে যেন স্ত্রীর প্রতি বিশ্বস্ত থাকেন এবং কখনোই প্রতারণা না করে।