বৃহস্পতিবার, ৯ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ ২৬শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দখলদার যে দলেরই হোক, ছাড় নেই: সালমান এফ রহমান

news-image

দোহার-নবাবগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি : ঢাকার নবাবগঞ্জ ও দোহার উপজেলায় যতগুলো প্রাচীন স্থাপত্য অন্যের দখলে আছে, তা পর্যায়ক্রমে সরকারকে বুঝিয়ে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান ফজলুর রহমান। তিনি বলেন, দখলদার যে দলেরই হোক না কেন, কাউকেই ছাড় দেওয়া হবে না।

সম্প্রতি উদ্ধার হওয়া নবাবগঞ্জের কলাকোপা ব্রজ নিকেতন পরিদর্শনের সময় আজ সোমবার তিনি এসব কথা বলেন।

সালমান এফ রহমান বলেন, ‘আমি যখন নবাবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে ব্রজ নিকেতন সর্ম্পকে জানতে চাইলাম, তারা জানালেন, এ নিয়ে অনেক মামলা আছে। আমি বললাম, মামলা থাকতে পারে কিন্তু আদালতের কোনো আদেশ আছে কি না বা তাদের নামে জমি দেওয়া হয়েছে বা ইনজাঙ্কশন আছে কি না। পরে সকল কাগজপত্র দেখে জানতে পারলাম, প্রথমে উনারা বাড়িটি দখল করে আদালতে মামলা করেন। আগে যারা জমিদার ছিলেন, তাদের কাছ থেকে বাড়িটি কিনেছেন বলে আদালতে রেকর্ড দেখিয়েছেন। কিন্তু আমরা যখন ভূমি রেকর্ড দেখলাম, তখন জানতে পারলাম বিষয়টি সত্য নয়।’

জানা যায়, ঐতিহ্যবাহী জজবাড়ি খ্যাত ব্রজ নিকেতনের বয়স প্রায় ২০০ বছর। গত ৩১ ডিসেম্বর ঢাকা জেলা বিএনপির সভাপতি খন্দকার আবু আশফাকের বড় ভাই অবসরপ্রাপ্ত জেলা জজ খন্দকার আবুল হোসেনের কাছ থেকে জেলা প্রশাসন দখল মুক্ত করেন।

সালমান এফ রহমান বলেন, ‘আমি যখন বিষয়টি নিয়ে ঢাকা জেলা ডিসি এবং পুলিশ সুপারের সঙ্গে কথা বলি, তাদের জিজ্ঞেস করলাম তারা কীভাবে সরকারি সম্পত্তি দখল করে আছেন। আমরা কেন তা ফেরত নিতে পারব না? পরে তাদের সহযোগিতায় ব্রজ নিকেতন উদ্ধার করা হয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘ইতোমধ্যে নবাবগঞ্জে দখল হওয়া প্রাচীন জমির তালিকা করা হয়েছে। মামলার অবস্থা বুঝে আমরা সকল প্রাচীন সম্পত্তি সরকারের হাতে তুলে দিব।’

এ সময় সালমান এফ রহমান নবাবগঞ্জ উপজেলা শিল্পকলা একাডেমির নবনির্মিত ভবন উদ্বোধন করেন। পরে নবাবগঞ্জ সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় অ্যান্ড কলেজ মাঠে আয়োজিত শেখ কামাল আন্তঃস্কুল ও আন্তঃমাদ্রাসা অ্যাথলেটিক্স প্রতিযোগিতায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়ে পুরষ্কার বিতরণ করেন।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতিক মন্ত্রণালয়ের সচিব আবুল মনসুর, প্রত্নত্তত্ত্ব অধিদপ্তরের মহাপরিচালক চন্দন কুমার দে, নবাবগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন আহমেদ ঝিলু, দোহার উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন, ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পনিরুজ্জামান তরুণ, নবাবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মতিউর রহমান সামীম, দোহার সার্কেল এএসপি আরিফুর রহমান, নবাবগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মিজানুর রহমান ভূঁইয়া কিসমত, সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আরিফুর রহমান শিকদার, সাবেক সাধারণ সম্পাদক জালাল উদ্দিন, সহসভাপতি ড. সাফিল উদ্দিন মিয়া, এম এ বারী বাবুল মোল্লা, ইব্রাহিম খলিল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুবেদুজ্জামান, সাংগঠনিক সম্পাদক তাবির হোসেন পাবেল, সাংবাদিক হালিমা আক্তার লাবন্য ভূঁইয়াসহ জেলা, উপজেলার বিভিন্ন নেতাকর্মীরা।

 

এ জাতীয় আরও খবর

সড়কে না করে মাঠে বৈধ কর্মসূচি করুন : বিএনপিকে ডিএমপি কমিশনার

বিধ্বস্ত প্রদেশগুলো এক বছরে পুনর্গঠনের প্রতিশ্রুতি এরদোয়ানের

টানা ষষ্ঠ জয়ে শীর্ষ দুইয়ে রংপুর

দক্ষতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেছেন রাষ্ট্রপতি : প্রধানমন্ত্রী

সেনাবাহিনীর নেতৃত্বে তুরস্কে গেলো বিশেষ উদ্ধারকারী দল

এসেছে কয়লা, চালু হচ্ছে রামপাল

আওয়ামী লীগের আমলে সুষ্ঠু নির্বাচন হয়: প্রধানমন্ত্রী

মওলানা ভাসানীকে সম্মান না করলে গুনাহ হবে: ডা. জাফরুল্লাহ

বিমানের ১৭ কর্মকর্তাকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

দেশে খাদ্যের কোনো ঘাটতি নেই: খাদ্যমন্ত্রী

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বেলজিয়ামের সহযোগিতা চান রাষ্ট্রপতি

প্রধানমন্ত্রী জানালেন গ্যাস-বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর কারণ