রবিবার, ১৪ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৩০শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

২০ মন ওজনের ময়নাকে নিয়ে দুশ্চিন্তায় খামারি

news-image

নালিতাবাড়ী (শেরপুর) প্রতিনিধি : শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার সবচেয়ে বড় ময়না নামের ২০ মন ওজনের ষাঁড় গরুটি বিক্রি নিয়ে দুশ্চিন্তায় রয়েছেন খামারি আব্দুস সালাম। ঈদের মাত্র আর কয়েক দিন বাকি আছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত ময়নার ক্রেতা পাওয়া যাচ্ছে না। যদিও তিনি ময়নার দাম হাঁকছেন ৫ লাখ টাকা।

জানা গেছে, উপজেলার সীমান্তবর্তী পোড়াগাঁও ইউনিয়নের বুরুঙ্গা মধ্যপাড়া গ্রামের খামারি আব্দুস সালাম। কোরবানির পশুর চাহিদা মেটাতে তিনি গত দুই বছর ধরে নেপালি জাতের ৮০০ কেজি ওজনের ময়না এবং শাহী ওয়াল জাতের ৪৪০ কেজি ওজনের রবিসহ চারটি ষাঁড় গরু লালন পালন করছেন।

ক্ষুদ্র খামারি আব্দুস সালাম বলেন, ‌‘আমি খুব আশা কইরা নিজে না খাইয়া ময়নারে খাওয়াইছি। গত দুই বছরে আমার নিজের পরিশ্রম ছাড়াও তার পেছনে খরচ অইছে প্রায় ৩ লাখ টাকা। এহন এই ষাঁড়টিকে কমপক্ষে ৫ লাখ টাকা বেচতে করতে না পারলে আমার পথে বসন লাগবো। কিন্তু এহন পর্যন্ত ময়নার দাম অইছে মাত্র আড়াই লাখ টাকা। সৌখিন ক্রেতা পাইলে আমি নিজ বাড়ি থেকেই ময়নাকে বিক্রি করতে চাই।’

এ ব্যাপারে উপজেলা প্রাণিসম্পদ কার্যালয় সূত্র জানায়, নালিতাবাড়ীতে কোরবানির পশুর কোনো ঘাটতি নেই। চাহিদা মেটাতে ৯ হাজার ৮৮৭টি পশুর বিপরীতে ১০ হাজার ৩৮৯টি পশু প্রস্তুত আছে। তবে খামারিরা বলছেন, পশু খাদ্যের দাম বেড়ে যাওয়ায় এসব পশুর উৎপাদন খরচ পড়েছে বেশি। তাই ন্যায্যমূল্য পাওয়ার আশঙ্কা করছেন তারা।

 

এ জাতীয় আরও খবর

গোপন ছবি দিয়ে সাবেক স্ত্রীকে ‘ব্ল্যাকমেইল করছেন’ হিরো আলম

স্বামীকে খুশি করতে ‘রক্ষিতা’ আনলেন স্ত্রী!

ডিমের হালি ৭০ টাকা!

বঙ্গবন্ধু হত্যার ষড়যন্ত্রকারীদের খুঁজতে কমিশনের রূপরেখা প্রস্তুত : আইনমন্ত্রী

সিসিএর গবেষণা : নারীরা বেশি পর্নোগ্রাফির শিকার, পুরুষেরা হ্যাকিংয়ের

পুলিশের গাড়িতে তেল বরাদ্দ কমেছে

ক্ষমতায় গেলে কুইক রেন্টাল ও বিদ্যুৎ খাতে আইন বাতিল করবে বিএনপি

হলিউড অভিনেত্রী অ্যান হেচে আর নেই

কাজের কথা বলে ভাড়া বাসায় নিয়ে ধর্ষণ, খুবি শিক্ষার্থী কারাগারে

‘পররাষ্ট্রমন্ত্রী দেশবাসীর কাছে কৌতুক অভিনেতায় পরিণত হয়েছেন’

স্বামীকে খুশি করতে ‘রক্ষিতা’ আনলেন স্ত্রী!

রুশদির ওপর হামলাকারী কে এই হাদি মাতার?