বুধবার, ৬ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২২শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় মাকে লাথি, মেয়েকে ‘ধর্ষণচেষ্টা’!

news-image

রাজাপুর (ঝালকাঠি) প্রতিনিধি : ঝালকাঠির রাজাপুরে কলেজছাত্রীকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় মায়ের সামনেই ওই ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় গতকাল শনিবার ছাত্রীর পরিবার থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছে।

উপজেলার শুক্তগড় ইউনিয়নের জগাইরহাট বাজার সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগীর পরিবারের অভিযোগ থেকে জানা যায়, জগাইরহাট এলাকার হেমায়েত হাওলাদারের ছেলে সারফি হাওলাদার (১৯) আগে থেকেই ওই ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করে আসছিলেন। শনিবার বিকেলে ভুক্তভোগী তার মায়ের সঙ্গে খালার বাড়িতে যান। খালার বাড়ির সামনে সারফি ফের তাকে উত্ত্যক্ত করেন। ছাত্রীর মা প্রতিবাদ করায় সারফি তাকে লাথি মেরে রাস্তায় ফেলে দেন। মাকে বাঁচাতে গেলে ছাত্রীকে ধর্ষণের চষ্টা করা হয়। এতে আহত হন কলেজছাত্রী।

ছাত্রীর চিৎকারে বাড়ির ভেতর থেকে কলেজছাত্রীর খালা ছুটে এসে সারফির হাত থেকে বাঁচায়। এদিকে, সারফির বাবা-মাও ছুটে এসে ছেলের পক্ষ নেয়। পরে অভিযুক্ত ছেলের বাবা কলেজছাত্রীর হাত ধরে টানাটানি করেন। ঘটনার পরে ছাত্রী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে চিকিৎসা নিয়েছেন।

সারফির বাবা মো. হেমায়েত হাওলাদার ও মা রানু বেগম অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘মেয়েটা আমাদের ছেলে সারফিকে জুতা দিয়ে পিটিয়ে আহত করেছে। ওই মেয়েকে আমার ছেলের সঙ্গে বিয়ে দিলে আমাদের সম্মতি থাকবে।’

রাজাপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পুলক চন্দ্র রায় বলেন, দুইপক্ষকে ডেকে পাঠানো হয়েছে। তাদের বক্তব্য শুনে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

53
Shares
facebook sharing buttontwitter sharing button