বৃহস্পতিবার, ২রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সোনার খনি যেখানে মৃত্যুকূপ

news-image

অনলাইন ডেস্ক : বনের পশুর মতোই গুহায় প্রবেশ করতে হয় তাদের। ক্লান্ত হয়ে গেলেও মেলে না একটু বিশ্রাম। দিনের পর দিন, মাসের পর মাস এভাবে চলে আফ্রিকার দেশ কঙ্গোর সাউথ কিভু প্রদেশের লুহিহির সোনার খনির শ্রমিকদের। এর সঙ্গে আছে খনি থেকে বাইরে আসার সময় তল্লাশির নামে হয়রানি। কিন্তু বিকল্প কোনো পেশায় যাওয়ার সুযোগ নেই বলেই অক্লান্ত পরিশ্রম আর হয়রানি মেনে নিতে হয় তাদের।

খনিতে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছেন ২২ বছরের হার্ডি বিসিমওয়া। খনিতে প্রবেশ করার সময়ই মাথায় বসানো থাকে টর্চ লাইট। তাদের মাটি খোঁড়ার কাজ চললেও কোনো নিরাপত্তা ব্যবস্থা না থাকায় প্রতিদিনই তিনি থাকেন জীবন হারানোর ঝুঁকিতে।

কঙ্গোর ওই অঞ্চলটিতে স্বর্ণ উত্তোলনের ইতিহাস বেশিদিনের নয়। দুই বছর আগে স্থানীয়রা সেখানে একটি পাহাড় আবিষ্কার করেন, যে পাহাড়ের নিচে গুপ্তধনের মতোই স্বর্ণ লুকিয়ে আছে বলে ধারণা করা হয়। এমন ধারণায় স্থানীয়রা ওই পাহাড়কে ঘিরে ভিড় করতে থাকেন। কাঠ আর ত্রিপলের ঘর বানিয়ে শুরু হয় বসবাসও। বিসিমওয়ার মতো আরও অনেকেই এখন কাজ করছেন সেখানে।

তবে স্বর্ণ উত্তোলনের বিষয়টি কিন্তু অত্যন্ত ভয়াবহ। কেননা, স্থানীয় গোত্রগুলোর মধ্যে এ খনিজসম্পদ নিয়ে কোন্দল তো আছেই, সেই সঙ্গে গুহায় শ্বাসকষ্টে মারা যাওয়ার ঘটনাও ঘটে। স্থানীয় বেসরকারি সংস্থা ডিডিয়ের সিযার তথ্যমতে, গত পাঁচ মাসে লুহিহিতে সাতজন মারা গেছেন। তাদের কেউ কেউ গোত্র-কোন্দলে আর কেউ কেউ গুহার ভেতরে শ্বাসকষ্টে মারা গেছেন।

এতসব ঝুঁকি আর নিরাপত্তাহীনতার পর খুব বেশি কিছু যে পাওয়া যাচ্ছে তা কিন্তু নয়। সর্বশেষ সাতবারের চেষ্টায় বিসিমওয়া একবার স্বর্ণ পেয়েছেন। তবে আশা করছেন এক সময় তিনি বেশ পরিমাণ সোনা পাবেন।

এদিকে এত পরিশ্রমের পর যে সোনা হাতে তারা পান তারও আবার ন্যায্য দাম পান না। স্থানীয় কারবারিদের কাছে প্রতি কেজি সোনা ৪৫০ ডলারে বিক্রি করতে হয়, যা আন্তর্জাতিক বাজারের তুলনায় অনেক কম। তাই জীবনের ঝুঁকি নিয়ে স্বর্ণ তোলায় নিজেদের ভাগ্য পরিবর্তন খুব একটা হয় না।

এজন্যই দেশটিতে সোনা ও কোবাল্টসহ প্রাকৃতিক সম্পদের প্রাচুর্য থাকলেও জনগোষ্ঠীর একটি বড় অংশের অবস্থান দারিদ্র্যসীমার নিচে। বিশ্বব্যাংকের হিসাব অনুযায়ী, তাদের দৈনিক আয় ২ ডলারেরও কম।

এ জাতীয় আরও খবর

বোমা আতঙ্কে জরুরি অবতরণ, উড়োজাহাজে তল্লাশি

এইচএসসি পরীক্ষা : কেন্দ্রের ২০০ গজের মধ্যে প্রবেশ নয়

এইচএসসি পরীক্ষা, রংপুর বিভাগে অংশগ্রহণ নিবে ১লাখ ১৬ হাজার পরীক্ষার্থী

মুজিব শতবর্ষ ও বিজয় দিবসের সুবর্ণ জয়ন্তীতে রংপুরে মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বস্তাভর্তি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক

৭৯ শতাংশ করদাতা এখনও রিটার্ন দেননি

বয়স্ক নারীদের যেসব খাবার খাওয়া জরুরি

শীতের মৌসুমে ভ্রমণের জন্য ৫ জায়গা

সব বয়সের জন্য ভিন্ন স্বাদের গাজরের সন্দেশ

প্রতিশ্রুতি রক্ষায় নাইট গার্ডের দায়িত্বে ইউপি চেয়ারম্যান

বন্ধ হচ্ছে অবৈধ ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ব্যবসা

অধ্যাপক রফিকুল ইসলামের মৃত্যুতে জবির শোক