মঙ্গলবার, ২৫শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১১ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

গাইবান্ধায় আতঙ্ক ছড়ানো সেই অচেনা প্রাণীটি শনাক্ত

news-image

গাইবান্ধা প্রতিনিধি : গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলায় হঠাৎ করে আক্রমণ করে মানুষের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে দেয়া সেই অচেনা প্রাণীটিকে শনাক্ত করেছে বন বিভাগ। প্রাণীটির নাম খেঁকশিয়াল। গত দুই দিন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে দুই তদন্তকারী দল।

বুধবার সকালে গণমাধ্যমকে এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন রাজশাহীর বন্যপ্রাণী ও প্রকৃতি সংরক্ষণ কর্মকর্তা রাহাত হোসেন।

ভাইরাসে আক্রান্ত এই শিয়ালের কামড়ে গতমাসে উত্তর হরিনাথপুর গ্রামের এক মসজিদের ইমাম চিকিৎসাধীন অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যান। এর পরে পলাশবাড়ী উপজেলার প্রায় পাঁচটি গ্রামের মানুষকে আক্রমণ করে এই পাগলা শিয়াল যার মধ্যে শিশু ও নারী রয়েছেন।

প্রাণীটির আক্রমণ থেকে রক্ষা পেতে পলাশবাড়ী উপজেলার হরিনাথপুর, তালুক কেওড়াবাড়ি, কিশামত কেওড়াবাড়ি, খামার বালুয়া, ফতের ভিটাসহ আরও কয়েকটা গ্রামের মানুষ স্থানীয় প্রশাসনের কাছে আবেদন জানায়।

পরে বন বিভাগ স্থানীয় প্রশাসন ও স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান ‘তীর’ প্রাণীটিকে শনাক্ত করার উদ্যোগ নেয়। এর ধারাবাহিকতায় গতকাল মঙ্গলবার বন বিভাগ ঢাকা থেকে তিন সদস্যের একটি বন্যপ্রাণী বিশেষজ্ঞ দল পাঠায়। তার সঙ্গে রাজশাহীর বন্যপ্রাণী ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের চার সদস্যের একটি দল তাদের সঙ্গে যোগ দেয়।

এ বিষয়ে শিক্ষার্থীদের পরিবেশবাদী সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক রিফাত হাসান জানান, প্রাণীটি শনাক্তের জন্যে আমাদের একটি দল গত পাঁচ দিন ধরে আক্রান্ত এলাকায় জরিপ করে। আক্রান্তদের সঙ্গে কথা বলে। তাদেরকে বিভিন্ন প্রাণীর ছবি দেখিয়ে প্রাণীটি সম্পর্কে ধারণা নেয়ার চেষ্টা করে। এছাড়া, প্রাণীটির পায়ের ছাপও শনাক্ত করার চেষ্টা করা হয়।

রিফাত হাসান আরও বলেন, বন বিভাগের পাঠানো বিশেষজ্ঞ দল তাদের সংগৃহীত তথ্য-উপাত্ত নিয়েও কাজ করে। পরে আজ সকালে প্রাণীটিকে শনাক্ত করা হয়।

 

এ জাতীয় আরও খবর