বৃহস্পতিবার, ২৮শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১২ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ফাইনালে উঠতে সহজ লক্ষ্য পেল সাকিবের কলকাতা

news-image

স্পোর্টস ডেস্ক : আইপিএলের ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার ম্যাচে মুখোমুখি কলকাতা নাইট রাইডার্স আর দিল্লি ক্যাপিটালস।

এই ম্যাচে জয়ী দল নাম লেখাবে ফাইনালে। খেলবে মাহেন্দ্র সিং ধোনির দল চেন্নাই সুপার কিংসের বিপক্ষে।

এমন গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে বাংলাদেশের অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে নিয়েই দিল্লির বিপক্ষে মাঠে নেমেছেন কলকাতা অধিনায়ক ইয়ন মরগান।

টস ভাগ্যটাও গেল মরগানের পক্ষে। দিল্লিকে ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ জানায় নাইট অধিনায়ক।

আর মরগানের বোলিং নেওয়ার পরিকল্পনাকে সফল করেছে কলকাতার বোলাররা।

বরুণ, শিভাম ও সাকিবদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে মাত্র ১৩৫ রানের সল্প পুঁজি পেয়েছে দিল্লি। এক কথায় টি-টোয়েন্টির এই ধুমধাড়াক্কা ম্যাচে এটি সহজ লক্ষ্য (১৩৬ রান)।

দিল্লির দুর্দান্ত ওপেনার পৃথ্বি শকে আজ ১৮ রানেই থামিয়ে দিয়েছেন পেসার বরুণ চক্রবর্তী। অধিনায়ক শিখর ধাওয়ান উইকেটে থিতু হয়ে গেলেও সাকিবের তালুবন্দি হয়ে ৩৬ রানে সাজঘরে ফেরেন শিখর। এই গুরুত্বপূর্ণ উইকেটটিও নিয়েছেন বরুণ।

দুর্দান্ত এক ডেলিভারিতে মার্কুস স্টইনিরে উইকেটে ভেঙে দেন শিভাম। পৃথ্বির সমান ১৮ রান যোগ করতে পারেন তিনি।

দলের সবচেয়ে বেশি নির্ভরযোগ্য ব্যাটার অধিনায়ক ঋষভ পন্তকে মাত্র ৬ রানেই সাজঘরের পথ দেখিয়ে দেন পেসার ফার্গুসন।

ক্যারিবীয় হার্ডহিটার হেটামায়ারকে ১৭ রানে রানআউট করলে লড়াকু পুঁজি পায়নি দিল্লি।

নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে মাত্র ১৩৫ রানের সল্প পুঁজি নিয়ে মাঠ ছাড়ে দিল্লি। ২৭ বলে ৩০ রানের ইনিংস খেলে অপরাজিত থাকেন শ্রেয়াস আইয়ার।

ম্যাচে ৪ ওভারে ২৬ রান দিয়ে দুটি উইকেট পেয়েছেন বরুণ। একটি করে উইকেট পেয়েছেন শিভাম ও ফার্গুসন।

আজ সাকিব উইকেটশূন্য ছিলেন। ৪ ওভার করে ২৮ রান দিয়েছেন। বল হাতে তেমন একটা কিছু না করতে পারলেও এবার ব্যাটিংয়ে সুযোগ পেলে সাকিব কতটা উজ্জ্বল হয়ে উঠবেন তা দেখার অপেক্ষায় ভক্ত-অনুরাগীরা।