শুক্রবার, ৫ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ২০শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

দলীয় শৃঙ্খলা না মানলে পরিণতি খারাপ হবে : ওবায়দুল কাদের

news-image

নিজস্ব প্রতিবেদক : চলমান সিটি করপোরেশন, পৌরসভা ও আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থিতা নিয়ে দলীয় শৃঙ্খলা মেনে চলার আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, দলীয় শৃঙ্খলা না মানলে পরিণতি খারাপ হবে।

মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক উপ-কমিটির প্রথম সাধারণ সভায় ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

কমিটির চেয়ারম্যান রাশিদুল আলমের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব মৃণাল কান্তি দাস এমপির সঞ্চালনায় এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ওবায়দুল কাদের। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন কমিটির সদস্য আরোমা দত্ত এমপি, ডা. নুজহাত চৌধুরী, শমী কায়সার, শাহেদ চৌধুরী, নাজমুল হক সৈকত প্রমুখ।

বক্তব্যে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, আমাদের দলে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের প্রতিযোগিতা আছে, থাকবে। এটাই সৌন্দর্য। তবে নিয়মতান্ত্রিকভাবে দলের সর্বস্তরের নেতাদের মতামতের ভিত্তিতে তৃণমূলের সবচেয়ে গ্রহণযোগ্য ও জনপ্রিয় নেতাকে মনোনয়ন দেই। নৌকা প্রতীক পাওয়ার পর দলের সব প্রার্থী ও নেতাকর্মী ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করে জয় নিশ্চিত করবে। এটাই আমাদের দলের নির্দেশনা। এই নির্দেশনার বাইরে গিয়ে কেউ বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ার সুযোগ নেই।

বিদ্রোহী প্রার্থীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, দলের নির্দেশনা অমান্য করে শৃঙ্খলাবিরোধী কর্মকাণ্ডে লিপ্ত হয়ে দলে বিভেদ তৈরি না করতে বিদ্রোহী প্রার্থীদের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি। দলীয় শৃঙ্খলা না মেনে বিদ্রোহী প্রার্থী হলে খারাপ পরিণতি ভোগ করতে হবে। বিদ্রোহী প্রার্থীদের সঙ্গে আওয়ামী লীগ কোনো আপস করবে না।

পৌরসভা নির্বাচন নিয়ে বিএনপির সমালোচনার জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, পৌরসভা নির্বাচনে জনগণের সাড়া আছে বলেই ৯০ শতাংশ উপস্থিতি ছিল।

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক উপ-কমিটির নেতাদেরকে ওবায়দুল কাদের বলেন, স্বাধীনতার পর মুক্তিযোদ্ধারা নানা ধারায় বিভক্ত হয়ে গেছে। তাদের ঐক্যবদ্ধ করে এক ছাদের নিচে আনতে হবে। বহু ধারায় বিভক্ত মুক্তিযোদ্ধাদের ঐক্যবদ্ধ করা মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক উপ-কমিটির প্রধান চ্যালেঞ্জ হবে। স্বাধীনতার উন্নয়ন বিরোধী অপশক্তিকে মোকাবিলা করতে হবে।

তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় নতুন প্রজন্মকে উদ্বুদ্ধ করে অপশক্তিকে দমন করতে হবে। উগ্র সাম্প্রদায়িকতা হাজার বছরের ঐতিহ্যকে ধ্বংস করতে চায়। সেটি প্রতিহত করতে হবে।

এ জাতীয় আরও খবর

প্রাথমিকের প্রধান শিক্ষকদের ১ম ও সহকারি শিক্ষকদের ২য় শ্রেণীর মর্যাদা দাবি

‘খাদ্য-পুষ্টিতে দেশের শক্তিশালী অবস্থানের পেছনে কৃষি খাত’

‘প্রয়োজনে জমি অধিগ্রহণ করে প্রতিটি ওয়ার্ডে খেলার মাঠ’

ভারতের প্রধান বিচারপতির পদত্যাগ দাবি

চীন ও দ.আফ্রিকায় কয়েক হাজার নকল ভ্যাকসিন উদ্ধার

বেশি সময় ঘরে থাকার পরও জন্মহার কমছে যুক্তরাষ্ট্রে

শিশুকে ১০ বছরের বেশি সাজা দেয়া যাবে না: হাইকোর্ট

আইপিএলেও কৃষক আন্দোলনের ভয়!

নয় মাস ধরে ঘরে : সাত শিশুর একজন মানসিক স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে

দেশে সংবাদ পাঠে প্রথম ট্রান্সজেন্ডার নারী

প্রিয় নেতার বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা! রাস্তায় নেমে সমর্থকদের বিক্ষোভ

ইসরায়েলের ‘যুদ্ধাপরাধ’ তদন্তের বিপক্ষে যুক্তরাষ্ট্র, জানালেন কমলা