সোমবার, ২৩শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ ৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা অনলাইনে হবে না

news-image

নিজস্ব প্রতিবেদক : করোনা পরিস্থিতিতে অনলাইনে ভর্তি পরীক্ষা নেয়ার বিষয়ে নীতিগত সিদ্ধান্ত দেয় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের সংগঠন। এমন সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তীব্র সমালোচনা শুরু হয়। বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা কোন পদ্ধতিতে হবে এ নিয়ে সব মহলে চলছিলো নানা আলোচনা। এরপর অনলাইনে বিশ্ববিদ্যালয় পরীক্ষা নেয়ার সক্ষমতা যাচাইয়ে বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠন করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। তবে সফটওয়্যার দিয়ে ভর্তি পরীক্ষা নেয়ার মতো সক্ষমতা দেশে এখনো তৈরি হয়নি বলে জানিয়েছে বিশেষজ্ঞ কমিটি।

মঙ্গলবার ইউজিসিতে অনুষ্ঠিত পর্যালোচনা সভায় তারা বলেন, এই সফটওয়্যার দিয়ে ভর্তি পরীক্ষা নেয়ার ফলে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হতে পারে। নেটওয়ার্ক এবং টেকনিক্যাল সমস্যার কারণে অধিকাংশ শিক্ষার্থীর মূল্যায়ন সঠিক নাও হতে পারে। দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘প্রক্টরড রিমোট এক্সামিনেশন সিস্টেম’ সফটওয়্যার ব্যবহার করে বর্তমান অবস্থায় ভর্তি পরীক্ষা নেয়া ঠিক হবে না বলেও জানিয়েছেন তারা।

বিশেষজ্ঞদের মতে, বিশ্বের কোন দেশে একটি মাত্র সফটওয়্যার দিয়ে বড় পরিসরে পরীক্ষা গ্রহণ করা হয় না। সফটওয়্যার দিয়ে যদি ভর্তি পরীক্ষা নিতে হয় সেক্ষেত্রে ইউজিসিকে একটি নীতিমালা প্রণয়ন করে দিতে কমিটি সুপারিশ করে। বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. কাজী শহীদুল্লাহ- এর সভাপতিত্বে ইউজিসি অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত পর্যালোচনা সভায় এসব মতামত তারা তুলে ধরেন।

সভায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. মুনাজ আহমেদ নূর তার উদ্ভাবিত ‘প্রক্টরড রিমোট এক্সামিনেশন সিস্টেম’ সফটওয়্যারের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন। তিনি বলেন, এই সফটওয়্যারটি মূলত বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের অভ্যন্তরীণ পরীক্ষার মূল্যায়নের উদ্দেশ্যে তৈরি করা হয়েছে। এটি বর্তমান অবস্থায় অনলাইনে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা নেয়ার জন্য উপযোগী নয়।

পর্যালোচনা সভায় ইউজিসি চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. কাজী শহীদুল্লাহ এবং কমিশনের সদস্য প্রফেসর ড. দিল আফরোজা বেগম ভার্চুয়ালি যুক্ত হন। এছাড়া, সভায় ইউজিসি সদস্য প্রফেসর ড. মো. সাজ্জাদ হোসেন, প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আলমগীর, সচিব (অতিরিক্ত দায়িত্ব) ড. ফেরদৌস জামান, কমিটির সদস্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সাইন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রফেসর ড. হাফিজ মো. হাসান বাবু, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সাইন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রফেসর ড. মো. মোস্তফা আকবর, উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কুল অব বিজনেসের ডিন প্রফেসর মোস্তফা আজাদ কামাল, এডুকেশন ইন্টারন্যাশনালের নির্বাহী পরিচালক সোহেল নাদিম রহমান শুভ, এটুআই এর টেকনোলজি এক্সপার্ট মো. ফজলে মুনীম, ওরেঞ্জ বিজনেস ডেভেলপমেন্ট লিমিটেডের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর শামীম হোসেন, ডিএসআই এর টেকনিক্যাল ডিরেক্টর মুশরাফুল হক অনিক এবং হেড অব প্রোডাক্ট এন্ড বিজনেস ডেভেলপমেন্ট মইনুল ইসলাম অংশগ্রহণ করেন। উল্লেখ্য, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে অনলাইনে ভর্তি পরীক্ষায় যে সফটওয়্যারটি ব্যবহারের কথা বলা হচ্ছে, এ বিষয়ে ইউজিসি গত সপ্তাহে বিশেষজ্ঞদের মতামত নেওয়ার উদ্যোগ গ্রহণ করে। এছাড়া, ইউজিসি চলতি শিক্ষাবর্ষে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে সমন্বিত বা গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষারও উদ্যোগ গ্রহণ করে। সমন্বিত বা গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণের বিষয়ে ১ নভেম্বর শিক্ষামন্ত্রী পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের প্রতি আহ্বান জানান।

এ জাতীয় আরও খবর

একই রোল নিয়ে পরের ক্লাসে যাবে প্রাথমিকের পড়ুয়ারা

কক্সবাজারে ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে এক যুবক নিহত

সীমান্তে বাংলাদেশিকে ব্যবসায়ীকে আটক করল বিএসএফ

আফগান সীমান্তে অভিযানে পাকিস্তানের এক সেনাসহ নিহত ৫

প্লাটফর্ম থেকে ১১শ’ পিস ইয়াবাসহ যাত্রী গ্রেফতার

করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি অভিনেতা ফারুকের মেয়ে

শহীদ বুদ্ধিজীবীদের তালিকা করবে সরকার, কমিটি গঠন

খুলনায় ভ্যানচালক হত্যায় একমাত্র আসামির ফাঁসি

নাইজেরিয়ায় মসজিদে নামাজের সময় হামলা, নিহত ৫

মুদ্রা পাচারের ১৫৮২টি ঘটনা চিহ্নিত করেছে কানাডা

আগামীকাল মন্ত্রিসভার সদস্যদের নাম ঘোষণা করবেন বাইডেন

সৌদি যুবরাজ সালমানকে বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর উদযাপনে আমন্ত্রণ