রবিবার, ১৬ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ২রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

টি২০’র সব রেকর্ড ভাঙলো এই নারী ক্রিকেটাররা

news-image

স্পোর্টস ডেস্ক: টি২০ ক্রিকেটের ইতিহাসে নজির গড়লেন ইংল্যান্ডের মহিলা ক্রিকেট দল। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ইংল্যান্ড মহিলা ক্রিকেট দল রান তুলল ২৫০। তাও আবার ৩ উইকেটে।

একটা সময় ছিল ওয়ানডে ম্যাচে ২৫০ রান তোলা মানে বিপক্ষকে বেশ চাপে ফেলে দেওয়া। দিন যত গড়িয়েছে একদিনের ম্যাচে রানের পাহাড়ের নজির নিছক কম নেই। কিন্তু ২০ ওভারে আড়াইশো রান! সেও দেখল বিশ্ব।

বুধবার দক্ষিণ আফ্রিকাকে নাকানিচোবানি খাওয়াল ইংল্যান্ড।

এর আগে মহিলাদের টি২০ ম্যাচে সর্বোচ্চ স্কোর ছিল ২১৬ রান, ১ উইকেটে। নিউজিল্যান্ড করেছিল দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধেই। তার আগে গত মার্চে অস্ট্রেলিয়া মহিলা দল ৪ উইকেটে ২০৯ রান করেছিল।

একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অস্ট্রেলিয়ারকে বিশ্বরেকর্ড গড়ে হারাল ইংল্যান্ড। মঙ্গলবার বেয়ারস্টো ও হ্যালসের ব্যাটে অজিদের বিরুদ্ধে ৪৮১ রানের বিশ্বরেকর্ড গড়ল ইংল্যান্ড৷ এর আগেও ওয়ানডে-র সর্বোচ্চ স্কোরার ছিল ইংরেজবাহিনী৷ দু’বছর আগে এই টেন্টব্রিজের মাঠেই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ৪৪৪ রানের বিশ্বরেকর্ড গড়েছিল ইংরেজ ক্রিকেটাররা৷ চলতি অজি-ইংল্যান্ড ওয়ানডে সিরিজের থার্ড ম্যাচে জ্যাসন রয়, জনি বেয়ারস্টো জুটি ও ওয়ান ডাউনে ব্যাট করতে নামা অ্যালেক্স হ্যালসের ব্যাটে ভর করে এই রানের পাহাড়ে পৌঁছেছে ইংল্যান্ড৷

নটিংহ্যামশায়ারে ইংল্যান্ড প্রথমে ব্যাট করতে নেমে করে ৬ উইকেটে ৪৮১ রান। এটিই এখন একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সর্বোচ্চ দলীয় স্কোর। জবাবে অ্স্ট্রেলিয়া ২৩৯ রানে লঅ আউট হয়ে যায়। ইংল্যান্ড ম্যাচে জয় হয় ২৪২ রানে।
বেয়ারেস্টো ও হ্যালস দুজনেই ৯২ বল খেলে যথাক্রমে ১৩৯ ও ১৪৭ রান করেন৷ ৬১ বলে ৮২ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন জ্যাসন রয়৷ ৩০ বলে ৬৭ রানের একটি ঝোড়ো ইনিংস খেলেন ইংরেজ অধিনায়ক ইয়ন মর্গ্যানও৷ ২৭ বল বাকি থাকতেই ৪৫০ রানের স্কোর স্পর্শ করে ইংল্যান্ড৷ শেষপর্যন্ত ৫০ ওভারে অজিদের সামনে ৪৮২ রানের লক্ষ্যমাত্রা রাখে ইয়ন মর্গ্যানের দল৷

পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজটির তৃতীয় ম্যাচে ইংরেজদের শুরুটা ছিল সাধারণ৷ প্রথম ৫০ রান এসেছিল ৪৬ বলে৷ কিন্তু ক্রিজ সেট হওয়ার পর দু’ই ব্যাটসম্যান ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠেন৷ সাতটি ৪ এবং চারটি ৬-এর সাহায্যে ৬১ বলে ৮২ রান করে রান আউট হন ওপেনার জ্যাসন রয়৷ বেয়ারস্টোর এবং রয়ের ওপেনিং জুটিতে ১১৭ বলে ১৫৯ রান আসে৷ ৬৯ বলেই সেঞ্চুরি স্পর্শ করেন বেয়ারস্টোর৷ গত ছয় ওয়ানডেতে এটি তার চতুর্থ সেঞ্চুরি৷ রয়-বেয়ারস্টো জুটির কাছে ওপেনিংয়ের জায়গা হারানো হেলস সেঞ্চুরি করেন ৬২ বলে৷ ওয়ানডেতে এটি তার ষষ্ঠ সেঞ্চুরি৷ ২১ বলে অর্ধশত রান করে রেকর্ড গড়েন ইংল্যান্ড অধিনায়ক৷ শেষ পর্যন্ত ৩০ বলে ৬৭ রান করেন মর্গ্যান৷