বুধবার, ১৮ই মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পূর্বাঞ্চল রেলপথে ঘরমুখো মানুষের সঙ্গী হবে ভোগান্তি!

news-image

মুসলিম সম্প্রদায়ের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদ-উল-আযহার আর মাত্র কয়েক দিন বাকি। এরই মধ্যে প্রিয়জনদের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতে রাজধানী ঢাকা ও বন্দরনগরী চট্টগ্রাম থেকে গ্রামের বাড়ি ফিরতে শুরু করেছেন সাধারণ মানুষ। প্রতিবছরই ঈদে বাড়ি ফোরার পথে যানজটসহ নানা ঝক্কি-ঝামেলা এড়াতে ঘরমুখো মানুষের প্রথম পছন্দ ট্রেন যাত্রা। 

কিন্তু এবারের ট্রেন যাত্রায় ঘরমুখো মানুষগুলোর ভোগান্তির শঙ্কা থেকেই যাচ্ছে। রেলওয়ে সূত্রে জানা যায়, ঢাকা-চট্টগ্রাম ও ঢাকা-সিলেট রেলপথের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অংশে ৬৭ কিলোমিটার রেলপথ রয়েছে। বিশাল এই রেলপথে প্রায়ই ট্রেনলাইনচ্যুত হয়ে সিডিউল বিপর্যয়ের ঘটনা ঘটছে। 

পাশাপাশি গত কয়েকদিনের প্রচণ্ড সূর্যতাপের কারণে রেললাইন অতিরিক্ত গরম হয়ে বেঁকে যাওয়ারও উপক্রম হয়েছে। তাই ঈদের আগে এই রেলপথে ট্রেন লাইনচ্যুত হয়ে সিডিউল বিপর্যয় ঘটে ঘরমুখো মানুষের দুর্ভোগ বাড়ার শঙ্কা রয়েছে। 

গত ৩ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার বেলা পৌনে ১১টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া রেলওয়ে জংশনে ঢাকাগামী একটি মালবাহী ট্রেনের তিনটি বগি লাইনচ্যুত হয়ে পূর্বাঞ্চলের সঙ্গে ঢাকার রেল যোগাযোগ দেড় ঘণ্টা বন্ধ ছিল।

সর্বশেষ গত ১৩ সেপ্টেম্বর রোববার বেলা পৌনে ১১টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জের তালশহর রেলওয়ে স্টেশনের আউটারে চট্টগ্রামগামী একটি মালবাহী ট্রেনের ইঞ্জিন লাইনচ্যুত হয়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম ও ঢাকা-সিলেট রেলপথে টানা সাত ঘণ্টা ট্রেন চলাল বন্ধ ছিল। পরে বিকল্প পথে আপ লাইনে (ঊর্ধ্বগামী) ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক করা হলেও পরদিন সোমবার সকাল ১০টা থেকে ত্রুটিপূর্ণ রেললাইন মেরামতের জন্য ঢাকার সঙ্গে পূর্বাঞ্চলের রেল যোগাযোগ বন্ধ রাখা হয়। 

এরপর দুপুর একটার দিকে ত্রুটিপূর্ণ রেললাইনের মেরামত কাজ শেষে পুনরায় ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়। রেলওয়ের সূত্রটি আরো জানায়, ঢাকা-চট্টগ্রাম ও চট্টগ্রাম-সিলেট রেলপথের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অংশে এখনো ডাবল লাইন চালু না হওয়ায় ট্রেন লাইনচ্যুত হয়ে দীর্ঘ সময় ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকে। এর ফলে ট্রেনের সিডিউল বিপর্যয় ঘটে যাত্রীদের দুর্ভোগ বাড়ে।

তবে গত ১১ সেপ্টম্বর আখাউড়া-লাকসাম রেলপথ পরিদর্শনে এসে আখাউড়া রেলওয়ে স্টেশনে যাত্রা বিরতিকালে রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব ফিরোজ সালাহউদ্দিন সাংবাদিকদের বলেছিলেন, পবিত্র ঈদ-উল-আযহাকে কেন্দ্র করে ঘরমুখো মানুষের যাত্রাপথে দুর্ভোগ এড়াতে পূর্বাঞ্চল রেলপথের দিকে বিশেষ নজর দেয়া হচ্ছে যেন ঈদের আগে কোনো ট্রেন লাইনচ্যুত হয়ে সিডিউল বিপর্যয় না ঘটে।

এসব ব্যাপারে জানতে চাইলে আখাউড়া রেলওয়ে জংশনের সহকারী নির্বাহী প্রকৌশলী কাজী মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ঈদে ঘরমুখো মানুষের ট্রেনযাত্রা নিরাপদ ও নির্বিঘ্ন করতে রেললাইন রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বে থাকা সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীর ছুটি বাতিল করা হয়েছে। ঈদের আগে যদি রেললাইনে কোনো প্রকার ত্রুটি দেখা দেয় তাহলে তা দ্রুত সময়ের মধ্যে মেরামত করে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক রাখতে এবং ট্রেনের যেন সিডিউল বিপর্যয় না ঘটে সেজন্য আমরা কাজ করে যাচ্ছি। আমরা আশা করছি এবারের ঈদে নিরাপদেই ঘরমুখো মানুষ তাদের বাড়ি পৌঁছাতে পারবেন।

 

এ জাতীয় আরও খবর

উচ্চ রক্তচাপ কী? হঠাৎ রক্তচাপ বেড়ে গেলে করণীয়

শরীরের যেসব স্থানের ব্যথা হতে পারে ক্যানসারের লক্ষণ

ত্বক আর্দ্রতা হারিয়েছে কি না বুঝবেন যেভাবে

পিপলস লিজিংয়ের ২৫ ঋণখেলাপিকে গ্রেফতার করে হাজির করার নির্দেশ

গরমে জনজীবনে নাভিশ্বাস, বৃষ্টি বাড়তে পারে আগামী সপ্তাহে

দ্রব্যমূল্যের অস্থির পরিস্থিতিতে ব্যবসায়ীদের সতর্ক হওয়ার আহ্বান

বিদ্যুতের দাম ৫৮ শতাংশ বাড়ানোর সুপারিশ

সেতুর উদ্বোধন ঘিরে পদ্মাপারে জয়গান

জেনেভায়‌ প্রবাসীদের কনস্যুলেট সেবা প্রদান

বই পড়লে কারামুক্তি

হাইকোর্ট সেই এরশাদ আলীকে পুলিশে দিল

দৈনিক সংক্রমণে শীর্ষে উত্তর কোরিয়া, বিশ্বে মৃত্যু আরও দেড় হাজার