শনিবার, ২৫শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১১ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নাসিরনগরে ডাক বিভাগে লোকবল সংকট জেলা সদরের সাথে সরাসরি ডাক ব্যবস্থা না থাকায় জনগনের ভোগান্তি

Nasirnagar Picture(Dak bivag)আকতার হোসেন ভুইয়া : ইন্টারনেট-মেইলের ডিজিটাল যুগে তড়িৎ অনেক কিছু সম্ভব হলেও চিঠিপত্র আদান-প্রদানের মূল মাধ্যম ডাক বিভাগের প্রয়োজনীয়তা এখনো ফুরিয়ে যায়নি। সরকারি অফিস-আদালতের যোগাযোগ এখনো ডাক বিভাগের মাধ্যমেই চলছে । কোন কোন ক্ষেত্রে ডিজিটাল পদ্ধতি চালু হলেও একভাগ কাজ সম্পন্ন করতে এখনো ডাক বিভাগের দ্বারস্ত হতে হচ্ছে সকলকে। অথচ দীর্ঘদিন ধরে অনিয়মিতভাবে ডাক আসায় ভোগান্তি হচ্ছে এ উপজেলাবাসী। পাশাপাশি রয়েছে ডাক বিভাগে জনবলের সংকট। খোজঁ নিয়ে জানা যায়, বছরের পর বছর ধরে অনিয়মিত ডাক আসায় উপজেলার সকল পোষ্ট অফিসগুলো প্রায়ই ডাক শূন্যভাবে দিন কাটাতে হচ্ছে। নাসিরনগর থেকে ডাক ফান্দাউক হয়ে নয়াপাড়া যায়,সেখান থেকে আখাউড়া রেল ষ্টেশন হয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়াসহ বিভিন্ন স্থানে যায় এবং একই রাস্তায় ডাক আসে। ফলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে নাসিরনগরে ডাক আসতে কোন কোন সময় ৪/৫দিন লাগে। নাসিরনগর থেকে ডাক  সরাসরি ব্রাহ্মণবাড়িয়া আসা-যাওয়ার এলাকাবাসীর দীর্ঘদিনের দাবী হলেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ তা আমলে নিচ্ছে না। নিয়মিত ডাক আসা-যাওয়া না করায় সাব পোষ্ট অফিসগুলো কর্মহীন হয়ে পড়ে। এতে জনগন ডিজিটাল যুগে ডাক পেতে ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে। অনেকে ডাকের জন্য অপেক্ষা করে বিরক্ত হলেও ডাক বিভাগের লোকজন কোন সদোত্তর দিতে পারছে না। এদিকে উপজেলা পোষ্ট অফিসে জনবল সংকটের কারণে  প্রতিদিন গ্রাহকরা হয়রানীর শিকার হচ্ছে। উপজেলা পোষ্ট অফিসে দীর্ঘদিন ধরে উপজেলা পোষ্ট মাস্টারের পদসহ বেশ কয়েকটি পদ শূণ্য রয়েছে । ডাক পিয়নের ২টি পদের স্থলে ১ জন, অপারেটর ৩টি পদের মধ্যে ২টিই শূণ্য, প্যাকারের ১টি পদের মধ্যে ১টিই শূণ্য রয়েছে। কর্মরত উপজেলা পোষ্ট মাষ্টারের দায়িত্বে রয়েছে একজন অপারেটর। বর্তমানে দায়িত্বরত পোষ্ট মাষ্টার ও ডাক পিয়নকেই অফিসের সকল কার্যক্রম চালাতে হচ্ছে। দীর্ঘদিন যাবৎ এসব পদ শূণ্য থাকায় পোষ্ট অফিসের কার্যক্রম চালাতে হিমসিম খেতে হচ্ছে । তাছাড়া দীর্ঘদিন সংস্কার না করায় উপজেলা পোষ্ট অফিসের মূল ভবনসহ আবাসিক ভবনের বিভিন্ন স্থান থেকে আস্তর খসে পড়ছে। উপজেলার অধিকাংশ পোষ্ট অফিসের নিজস্ব ভবন নেই। গ্রামীণ জনসাধারণের নিরাপদ যোগাযোগ ব্যবস্থার জন্য সারা দেশের ন্যায় নাসিরনগর উপজেলা পোষ্ট অফিসের আওতায় ১০টি শাখা পোষ্ট অফিস স্থাপিত হয়েছে। অফিস গুলোর বেশীর ভাগই ঘরের বারান্দায়,বাজারের দোকান ঘরে,বাড়িতে স্থাপন করে কোন রকমে কার্যক্রম চলছে যুগ যুগ ধরে। ফলে পোষ্ট অফিসের মূল্যবান চিঠিপত্র,পার্সেল ডকুমেন্টসহ গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র অযতেœ-অবহেলায় পড়ে থাকছে সর্বদা। এছাড়াও বিলম্বে ডাক আসায় ও গুরুত্বপূর্ণ চিঠিপত্র সঠিক সময়ে বিলি না হওয়ায় স্থানীয় কর্তৃপক্ষে সর্বদা সমস্যায় পড়তে হচ্ছে । এ অবস্থায় সাধারণ মানুষ দিনে দিনে পোষ্ট অফিসের উপর আস্থা হারিয়ে কুরিয়ার সার্ভিসের উপর নির্ভর করছে। দায়িত্বরত উপজেলা পোষ্ট মাস্টার বাদল চন্দ্র সিংহ রায় বিভিন্ন সমস্যার কথা স্বীকার করে জানায় এ বিষয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ অবগত রয়েছে। এর বেশী  কিছু বলতে নারাজ।

 

এ জাতীয় আরও খবর