বুধবার, ৬ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২২শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

“পারফেক্ট” ঘুমের জন্য সাজিয়ে নিন বিছানা

comforterলাইফস্টাইল ডেস্ক : ভালো ঘুম হবার জন্য শারীরিক এবং মানসিক শান্তি যেমন প্রয়োজন, তেমনি আপনার বিছানাটিও কিন্তু আরামদায়ক হওয়া চাই। ভালো ঘুমের পেছনে একটি স্বাচ্ছন্দ্যকর বিছানা যে কতটা ভূমিকা পালন করে তা অনেকের কাছেই অজানা।

মনে মনে নিজের বিছানার কথা ভাবুন। রাত্রে বিছানায় যাবার কথা ভাবতে কি আপনার ভালো লাগে? আপনার বালিশ কি আপনার মাথা, ঘাড় ও কাঁধের জন্য আরামদায়ক? বিছানার চাদরটা কি যথেষ্ট নরম?এসবের উত্তর যদি না হয়, তবে আপনার বিছানা আপনার জন্য ঠিক নয়। বিছানা আরামদায়ক না হবার কারণেই আপনার ঘুমে ব্যাঘ্যাত ঘটছে। দেখে নিন বিছানাকে আরামদায়ক করে তোলার কিছু টিপস।

১) নিজের সামর্থ্যের মাঝে সবচাইতে ভালো ম্যাট্রেসটি কিনুন
রাতের একটা বড় সময় আমরা ঘুমিয়ে থাকি এই ম্যাট্রেসের ওপরেই। তাই স্বাচ্ছন্দ্যের কথা বিবেচনা করে একটু দাম দিয়ে কিনেই ফেলুন ভালো একটি ম্যাট্রেস।

২) কেনার আগে ম্যাট্রেস যাচাই করে নিন
আপনার জন্য কোন ম্যাট্রেসটি আরামদায়ক তা বুঝেই কিনুন। খুব বেশি নরম বা খুব বেশি শক্ত ম্যাট্রেসে ঘুম তো আসবেই না বরং শরীর ব্যাথা হয়ে যাবে। এ কারণে কেনার আগে ম্যাট্রেসে বসে, সম্ভব হলে শুয়ে দেখুন আরাম লাগছে কি না।

৩) আরামদায়ক বালিশ কিনুন
বালিশের ওপর আপনার মাথা, ঘাড় ও কাঁধের আরাম নির্ভর করছে। তাই একটু ভেবেচিন্তে কিনুন বালিশ। শুধু তাই নয়, আপনি কি কাত হয়ে ঘুমান, নাকি চিত হয়ে বা উপুড় হয়ে, তার ওপরেও বালিশের ধরণ নির্ভর করে। এসব কথা মাথায় রেখে আরামদায়ক একটি বালিশ নির্বাচন করুন।

৪) বিছানার চাদর ও বালিশের কভার হওয়া চাই আরামদায়ক
বিছানার চাদর খসখসে ও ময়লা হলে যে তা শুধু ঘুমের ব্যাঘ্যাত ঘটাবে তাই নয়। পাশাপাশি এর থেকে আপনার ত্বকেরও ক্ষতি হতে পারে। বিশেষ করে খসখসে বালিশের কভারের কারণে নারীদের মুখের ত্বকে ব্রণের উপদ্রব হতে দেখা যায়।

৫) বিছানায় রাখুন কমফোর্টার
কমফোর্টার বলতে কাঁথা অথবা হালকা একটি কম্বল রাখতে পারেন। গরমকালে খুব একটা দরকার না হলেও হালকা ঠাণ্ডা ঠাণ্ডা আবহাওয়ায় এই কম্বল বা কাঁথা গায়ে দিয়ে ঘুমটা হবে একেবারেই পারফেক্ট।