মঙ্গলবার, ২৮শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আখাউড়া ১৫ ই আগষ্ট করবে ‘উদযাপন কমিটি’

shok deboshআরাফাত আহমেদ : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় আওয়ামীলীগের ব্যানারে ১৫ ই আগষ্ট জাতীয় শোক দিবস পালনে বাধা দেয়া হয়েছে। বন্ধ করে দেয়া হয়েছে দিবস পালনে গৃহিত নানা কর্মসূচীর প্রচারে চলতে থাকা মাইক। উপজেলা যুবলীগের নেতা ও পৌর মেয়র তাকজিল খলিফা কাজলের বিরুদ্ধে আওয়ামীলীগের ব্যানারে কর্মসূচী পালনে বাধা দেয়ার এই অভিযোগ করেছেন উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতারা। বৃহস্পতিবার দুপুরে আখাউড়া বাইপাস সড়কে একটি সিএনজি অটোরিকসাতে মাইক লাগিয়ে আওয়ামীলীগের কর্মসূচীর প্রচারনা চালানোর সময় মেয়র কাজল ঐ সিএনজি অটোরিকসাটিকে লোক পাঠিয়ে তার কার্যালয়ে নিয়ে আসেন এবং আটকে রাখেন। এতে বন্ধ হয়ে যায় প্রচারনা। উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মনির হোসেন বাবুল বলেন, আমি উপজেলা আওয়ামীলীগের নির্বাচিত কমিটির সাধারণ সম্পাদক। ১৫ ই আগষ্ট পালনে আমরা নানা কর্মসূচী গ্রহন করেছি। বাইপাস সড়কে মাইকে গতকাল কর্মসূচীর প্রচারনা চালানোর সময় কাজল তাতে বাধা দেয়। মাইক লাগানো সিএনজি অটোরিকসাটিকে সে তার কার্যালয়ে লোক পাঠিয়ে ডেকে এনে আটকে রাখে। আমি তাৎক্ষনিক বিষয়টি জেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দকে জানিয়েছি। তবে যুবলীগ নেতা তাকজিল খলিফা কাজল বলেছেন আখাউড়ায় আওয়ামীলীগের কোন কমিটি নেই। সভাপতিকে বহিস্কার করা হয়েছে। এরপর সাধারণ সম্পাদকের থাকা না থাকা একই কথা। মাইক প্রচারনায় তিনি নিজে বাধা দেননি জানিয়ে বলেন ছাত্রলীগ বাধা দিয়েছে। তারা(আওয়ামীলীগ) মিলাদ পড়ানোর কথা বলছে। মিলাদের জন্যে মাইকিংয়ের দরকার কি।এ বিষয়ে জেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার বলেন, আখাউড়া আওয়ামীলীগের সভাপতিকে বহিস্কারের সুপারিশ করা হয়েছে। এটি এখনো কার্যকর হয়নি। আর সাধারণ সম্পাদক ঠিকই আছেন। তিনি বলেন ১৫ ই আগষ্টের কর্মসূচী পালনে কেউ বাধা দিতে পারেনা। ঘটনাটি কি হয়েছে তা খোজ নিয়ে আমি দেখছি। জানা গেছে,আখাউড়ায় ১৫ ই আগষ্ট জাতীয় শোক দিবস পালনে একটি উদযাপন কমিটি করা হয়েছে। যুবলীগ নেতা মেয়র কাজলের নেতৃত্বাধীন এই কমিটিই দলীয়ভাবে দিবসটি পালনের মুল দায়িত্বে রয়েছে। কিš' এই কমিটিতে উপজেলা আওয়ামীলীগের কাউকে রাখা হয়নি বলে অভিযোগ উঠেছে। উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মনির হোসেন বাবুল বলেন উদযাপন কমিটিতে আমরা নেই। তারা কি কর্মসূচী পালন করছে তাও আমরা জানিনা। মেয়র কাজল আওয়ামীলীগের কেউ নন। উল্লেখ্য আখাউড়া আওয়ামী রাজনীতিতে  বিভক্তি প্রকট হয়ে দেখা দিয়েছে। এই আসনের  সংসদ সদস্য ও আইনমন্ত্রী এডভোকেট আনিসুল হকের হয়ে যুবলীগ নেতা কাজল উপজেলা আওয়ামীলীগের রাজনীতি পরিচালনার কাজ করছেন। এর বিপরীতে রয়েছেন  সাবেক সংসদ সদস্য এডভোকেট শাহআলমের অনুসারীরা। যাদের অনেককে বাদ দিয়ে উপজেলা আওয়ামীলীগের কমিটি করার প্রক্রিয়া চলছে। এদিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ ও সরাইলে আলাদাভাবে ১৫ ই আগষ্ট পালন করছে আওয়ামীলীগের দু-গ্রুপ। সেখানে আওয়ামীলীগ বনাম উদযাপন কমিটি দিবসটি পালন করছে।