বৃহস্পতিবার, ১৮ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৩রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয় চলাচলে দুর্ভোগে পড়েছেন পূর্বাঞ্চলের যাত্রীরা।

train lain ====টানা তিনটি ট্রেন দুর্ঘটনার কারণে পূর্বাঞ্চল রেলওয়ের শিডিউল বিপর্যয় দেখা দিয়েছে। যথাসময়ে ট্রেন চলাচল না করায় দুর্ভোগে পড়েছেন যাত্রীরা। 

পূর্বাঞ্চল রেলওয়েতে ঢাকা-চট্টগ্রাম ও ঢাকা-সিলেট রুটে মালবাহী ও যাত্রীবাহী আপ ও ডাউন মোট ৫৮/৬০টি ট্রেন প্রতিদিন চলাচল করে। গত সপ্তাহে পরপর তিনটি ট্রেন দুর্ঘটনা ঘটে। এতে মারাত্মকভাবে শিডিউল বির্পযয় দেখা দেয়।

 রেল বিভাগ জানায়, গত ৮ জুলাই মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথের ভৈরবের জগন্নাথপুরে মালবাহী একটি ট্রেনের দুটি বগি লাইনচ্যুত হয়। এ দুর্ঘটনার কারণে প্রায় ছয় ঘণ্টা ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকে। 

পরদিন ৯ জুলাই চট্টগ্রামের ফৌজদারহাট এলাকায় কনটেইনার ট্রেন লাইনচ্যুত হলে ছয় ঘণ্টা রেল যোগাযোগ বন্ধ থাকে। একই রাতে নরসিংদীর ঘোড়াশালে মালবাহী ট্রেনের একটি বগি লাইনচ্যুত হয়। এতেও প্রায় চার ঘণ্টো ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকে।

এদিকে পরপর তিনটি দুর্ঘটনার পর বর্তমানে এই রেলরুটের ট্রেনগুলো নির্ধারিত সময়ে চলাচল করছেনা। এতে করে যাত্রীদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। তবে সবচেয়ে বেশি ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে অগ্রিম টিকেটের যাত্রীদের।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে নিয়মিত ঢাকায় যাতায়াতকারী ট্রেন যাত্রী ব্যাংক কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম জানান, এখন প্রতিটি ট্রেনই দুই/তিন ঘণ্টা বিলম্বে আসছে। ফলে আমরা কাঙ্খিত সময়ে গন্তব্যে পৌঁছাতে পারছিনা।

 

ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেল স্টেশনের মাস্টার মীর্জা সামছুল হক বাংলানিউজকে জানান, চলতি সপ্তাহে তিনটি ট্রেন দুর্ঘটনার কারণে রেলে কিছুটা শিডিউল বির্পযয় দেখা দিয়েছে। আগামী দু-এক দিনের মধ্যে শিডিউল স্বাভাবিক হয়ে যাবে।

এ জাতীয় আরও খবর