মঙ্গলবার, ৪ঠা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৯শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

যে কারণে বাড়িতে থাকা উচিত অন্তত একটি পোষা প্রাণী

Depositphotos_26993295_originalমায়ের কাছে আবদার করেছিলেন ছোট্ট একটি বিড়াল পালতে আনবেন ঘরে। ছোট্ট সেই বিড়ালটি পুরো ঘরেই দৌড়ে বেড়াবে, আপনার কোলে টানাটানি করবে খাওয়ার জন্য। এরকম আরো কত্ত স্বপ্ন দেখেছিলেন আপনি। কিন্তু সব স্বপ্ন ভেঙ্গে গেলো যখন আপনার মা আপনার প্রস্তাব নাকচ করে দিলো এক বাক্যে। আর তার কারণো অনেকগুলো। ঘর ময়লা হবে, সময় নষ্ট, অসুখ হবে, খাবারে মুখ দেবে আরো কত কি! মন খারাপ করে মায়ের কথা শোনা ছাড়া আর কিছুই করার ছিলো না আপনার। অনেকেই গৃহপালিত প্রাণী ঘরে পুষতে চাইলেও নানান ভয়, ঘেন্না, কষ্টের কথা ভেবে সেই পথে পা বাড়ায় না। কিন্তু আপনি কি জানেন ঘরে একটি পোষা প্রাণী থাকলে আপনার জন্যই সেটা ভালো? জেনে নিন ঘরে পোষা প্রাণী থাকার বেশ কিছু ভালো দিক সম্পর্কে।

১) আপনার যদি বিষন্নতায় ভোগার সমস্যা থাকে তাহলে আপনার অবশ্যই উচিত ঘরে একটি হলেই পোষা প্রাণী রাখা। কারন কুকুর, বিড়াল, মাছ, খরগোশ, পাখি এধরনের প্রাণী গুলো বিষন্নতা কমিয়ে মনকে ফুরফুরে করে দিতে পারে। বিশেষ করে খরগোশ, কুকুর ও বিড়াল এক্ষেত্রে বেশি কার্যকরী।

২) আপনি বা আপনার ঘরে কেউ যদি আত্মহত্যা প্রবণ হয়ে থাকে তাহলে তাকে উপহার দিন খুব আদুরে একটি বিড়াল, কুকুর অথবা খরগোশ। মানুষ যেমন মৃত্যুর আগে সন্তানের ভবিষ্যত চিন্তা করে, ঠিক একই ভাবে আদরের পোষা প্রাণীটির কথা চিন্তা করলেও মানুষের বেঁচে থাকার ইচ্ছে বেড়ে যায়।khorgosh

৩) গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে যাদের উচ্চরক্তচাপের সমস্যা আছে তারা কিছুক্ষন পোষা কুকুর, বিড়ালের সাথে খেলাধুলা করলে কিংবা মাছের একুরিয়ামের দিকে তাকিয়ে থাকলে রক্তচাপ স্বাভাবিক থাকে এবং মানসিক চাপ কমে যায়।

৪)_জরিপে দেখা গিয়েছে যাদের পোষা বিড়াল বা কুকুর আছে, অন্যদের তুলনায় তাঁদের হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা ৪০% কম এবং স্ট্রোকের সম্ভাবনা ৩০% কম।

৫) পোষা প্রাণীর সাথে খেলাধুলা ও ছোটাছুটি আপনার অনেকটা ক্যালরী পুড়িয়ে ফেলে এবং ওজন ও কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে থাকে।

এ জাতীয় আরও খবর