বৃহস্পতিবার, ৭ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২৩শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

আখাউড়া থেকে অপহৃত স্কুলছাত্রী কসবা সীমান্তে উদ্ধার

প্রতিনিধি::: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার অপহৃত স্কুলছাত্রীকে অপহরণের তিন দিন পর বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড (বিজিবি’র) সহায়তায় বৃহস্পতিবার রাতে কসবা সীমান্ত থেকে উদ্ধার করা হয়। আখাউড়া উপজেলার খলাপাড়া গ্রামের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী (১৩)কে গত ১৩ই মে বিকালে ভারতের বিশালঘড় থানার পাথারিয়াদ্বার গ্রামের নারী পাচারকারী আবদুল আজিজ এর পুত্র সজীবের নেতৃত্বে এক দল পাচারকারী তাকে অপহরণ করে ভারতে নিয়ে যায়। অপহৃত স্কুলছাত্রী জানান, গত ১৩ই মে বিকালে পার্শ্ববর্তী গ্রামের বান্ধবীর বাড়িতে যাওয়ার পথে অপহরণকারীরা তাকে অপহরণ করে ভারতে নিয়ে যায়। গত ১৩ই মে দুপুরে ভারত বিশালঘড় থানা পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিশালঘড় থানার পাথারিয়াদ্বার গ্রামের অপহরণকারী দলের সদস্য সজীবের নিকটাত্মীয়ের বাড়ি থেকে অপহৃতা স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করে। পরে ওই দিন দুপুরে ভারতীয় পুলিশ বিএসএফ ১৫৮ ডাল্টা কোম্পানি কমলা সাগর ক্যাম্পে অপহৃতাকে সোর্পদ করে। গত ১৫ই মে রাত সাড়ে ৮টায় বিএসএফের ইন্সপেক্টর ধর্মেন্দ্র সিং কসবা সীমান্তের ২০৩৯- ১১ পিলার এলাকায় টহলরত বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড ১২ (বিজিবি’র) নায়েক সুবেদার মো. এরশাদ আলীর কাছে বাংলাদেশী অপহৃতা স্কুলছাত্রীকে হস্তান্তর করেন। উদ্ধারের পর ওই দিন রাতেই অপহৃতাকে তার অভিভাবকের কাছে বিজিবি’র হস্তান্তর করেন তবে সংঘবদ্ধ পাচারকারী দলের কোন সদস্যকে ভারতীয় পুলিশ গ্রেপ্তার করতে পারেনি বলে বিজিবি’র নায়েক সুবেদার এরশাদ আলী সাংবাদিকদের জানান।

এ জাতীয় আরও খবর