শনিবার, ২৫শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১১ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

চীনা বিমানবাহিনীতে বানর ব্যাটালিয়ন

যুদ্ধবিমানের উড্ডয়নে ঝুঁকি হয়ে দাঁড়াচ্ছে পাখির ঝাঁক। তাদের ঠেকানো দায়। কিন্তু বুদ্ধি থাকলে আটকায় কে? পাখিদের সামলানোর জন্য গড়ে তোলা হয়েছে বানর বাহিনী। তারাই এখন পাখির উত্পাত ঠেকাবে।

বেইজিংয়ের কাছে একটি বিমানঘাঁটি রক্ষায় এই বানর ব্যাটালিয়ন গড়ে তুলেছে চীনের বিমানবাহিনী। বাহিনীটি একদল বানর প্রশিক্ষণ দিয়েছে।

চীনা বিমানবাহিনীর সংবাদবিষয়ক ওয়েবসাইটের বরাতে আজ বৃহস্পতিবার বার্তা সংস্থা আইএএনএসের প্রতিবেদনে জানানো হয়, বিমানঘাঁটিটির আশপাশের গাছে থাকা পাখির বাসা ধ্বংসের কৌশল ওই বানরগুলোকে শেখানো হয়েছে। সামরিক বিমান উড্ডয়নে বাধা সৃষ্টি করা পাখি তাড়ানোর কৌশলও শেখানো হয়েছে ওই বানর দলকে।

তবে ওই ঘাঁটির সঠিক অবস্থান জানায়নি চীনা বিমানবাহিনী।

বিমানঘাঁটিতে পাখির উপদ্রব মোকাবিলায় সম্ভাব্য সব কৌশল ব্যবহার করেছে কর্তৃপক্ষ। কিন্তু কোনো কিছুতেই তেমন সফলতা পাওয়া যাচ্ছিল না। তবে এ ক্ষেত্রে প্রশিক্ষিত বানর দল প্রশংসনীয় ভূমিকা পালন করতে সক্ষম হয়েছে।

চীনা সামরিক বাহিনীতে এই বানর ব্যাটালিয়ন নিয়ে বেশ হাস্যরসও হচ্ছে। বানর দলকে ‘চীনা সেনাবাহিনীর নতুন গোপন অস্ত্র’ বলে অভিহিত করা হচ্ছে।

বানরগুলো বেশ আনুগত্যের সঙ্গে কাজ করছে। প্রশিক্ষকের নির্দেশে বিমানঘাঁটির আশপাশের গাছে থাকা ১৮০টির বেশি পাখির বাসা ধ্বংস করতে সক্ষম বানর দল। এই হিসাব অনুসারে চীনা বিমানবাহিনী জানিয়েছে, প্রতিটি বানর ছয়টি পাখির বাসা ধ্বংস করতে পারে।

এ জাতীয় আরও খবর